Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬, ১৫ সফর ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

প্রধান আসামির আত্মসমর্পণ

সুবর্ণচরে গণধর্ষণ

নোয়াখালী ব্যুরো : | প্রকাশের সময় : ৪ এপ্রিল, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভাইস-চেয়ারম্যান প্রার্থীর ভোট করার জের ধরে প্রতিপক্ষের লোকজন কর্তৃক ছয় সন্তানের জননীকে গণধর্ষণের ঘটনায় দায়েরকৃত মামলার প্রধান আসামি আবুল কালাম প্রকাশ বেচু মাঝি আদালতে আত্মসমর্পণ করেছে। এ ঘটনায় ৬জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। এদিকে গ্রেফতারকৃত দুই আসামির রিমান্ড মঞ্জুর করেছে আদালত।
গতকাল বুধবার দুপুরে শুনানি শেষে জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট ২নং আমলি আদালতের বিচারক নবনীতা গুহ আসামি আবুল বাসারের ৩দিন ও ইউসুফ মাঝির ২দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন। চরজব্বার থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) ইব্রাহিম খলিল জানান, আসামি ইউছুফ ও বাসারকে রিমান্ডে আনা হয়েছে। মামলার প্রধান আসামি আবুল কালাম বেচু মাঝি সেচ্ছায় আদালতে আত্মসমর্পণ করলে আদালত তার জামিন নামঞ্জুর করে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন। এ কর্মকর্তা আরও জানান, গ্রেফতারকৃত অপর তিন আসামি রুবেল, আরমান ও রায়হানকে বুধবার দুপুরে আদালতে হাজির করে ৭দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে। অপর আসামিদের গ্রেফতারের জন্য পুলিশের অভিযান অব্যাহত রয়েছে। উল্লেখ্য, ৩১ মার্চ রোববার সন্ধ্যা সাড়ে ৭টার দিকে ভিকটিম ও তার স্বামী মোটরসাইকেল যোগে নিজেদের বাড়িতে যাচ্ছিলেন। পথে উত্তর বাগ্যা এলাকায় তালা প্রতীকের প্রার্থীর সমর্থক ইউসুফ মাঝির নেতৃত্বে ১০/১২জন তাদের গতিরোধ করে মারধর করে। এসময় বেচু মাঝি, বজলু ও আবুল বাসার ওই নারীর স্বামীকে আটকে রেখে তাকে পার্শ্ববর্তী রুহুল আমিনের মৎস্য খামারে নিয়ে গিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। পরে তার স্বামীর চিৎকারে এলাকার লোকজন ছুঁটে আসলে ধর্ষকরা পালিয়ে যায়। রাতেই ভিকটিমকে উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করে স্থানীয়রা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন