Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার ২৪ মে ২০১৯, ১০ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৮ রমজান ১৪৪০ হিজরী।

আফগান ক্রিকেটে গৃহদাহ

বিতর্ক নিয়েই বিশ্বকাপের প্রাথমিক দল

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৮ এপ্রিল, ২০১৯, ১২:০৬ এএম

বিশ্বকাপের আর দুমাসও বাকি নেই। এই সময়ে নেতৃত্বে বড় ধরণের রদবদল এনেছেন আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ড (এসিবি)। আসগার আফগানকে সরিয়ে তিন ফরম্যাটে তিন অধিনায়কের নাম ঘোষণা করেছে তারা। ওয়ানডে সংস্করণে নেতৃত্ব পাওয়া গুলাবদিন নাইবই তাই করবেন বিশ্বকাপে অধিনায়কত্ব। আর এটা না মেনে প্রকাশ্যে ক্ষোভ জানিয়েছেন দলের দুই সেরা তারকা রশিদ খার ও মোহাম্মদ নবি।

গতপরশু এসিবি জানায় এখন থেকে টেস্টের নেতৃত্ব দেবেন রহমত শাহ, ওয়ানডে অধিনায়ক গুলবদিন নাইব, টি-টোয়েন্টিতে নেতাগিরি করবেন রশিদ খান। আফগানিস্তানের ইতিহাসের এই পর্যন্ত সফল অধিনায়ক আসগরকে হুট করে, তাও বিশ্বকাপের ঠিক আগে সরিয়ে দেওয়া কোনভাবেই মেনে নিতে পারেননি নবী আর রশিদ। কোড অব কন্ডাক্টের তোয়াক্কা না করে আইপিএল খেলতে ভারতে থাকা সাবেক অধিনায়ক নবি টুইটারে জানিয়েছেন ক্ষোভ, ‘দলের একজন সিনিয়র সদস্য হিসেবে এবং আফগান ক্রিকেটের বাঁক বদলের একজন সাক্ষী হিসেবে আমি মনে করি না অধিনায়কত্ব বদলের এখন ঠিক সময়। আসগর দারুণ নেতৃত্ব দিচ্ছিল দলকে। আমি মনে করি অধিনায়কত্ব করার মতো সেই যোগ্য ব্যক্তি।’

রশিদ আরেক কাঠি সরেস। নিজে টি-টোয়েন্টির অধিনায়কত্ব পেলেও এই সিদ্ধান্ত কোনভাবেই হজম হচ্ছে না তার। বরং নাইবকে বিশ্বকাপ দলের দায়িত্ব দেওয়ায় বিশ্বসেরা এই লেগ স্পিনার খুঁজে পাচ্ছেন পক্ষপাতিত্ব, ‘নির্বাচকদের প্রতি শ্রদ্ধা রেখেই বলছি, আমি এই সিদ্ধান্তের তীব্র বিরোধিতা করছি, কারণ এটি দায়িত্বজ্ঞানহীন ও পক্ষপাতদুষ্ট সিদ্ধান্ত। যেহেতু বিশ্বকাপ দুয়ারে কড়া নাড়ছে, আসগর আফগানের হাতেই নেতৃত্বে থাকা উচিত। দলের সাফল্যে তার নেতৃত্বের অবদান অনেক বেশি। বিশ্বকাপের মতো বড় আসরের মাত্র মাস দুয়েক আগে নেতৃত্বের এই বদল দলে অনিশ্চয়তা তৈরি করবে, দলের মনোবলেও আঘাত আসতে পারে।’

সানরাইজার্স হায়দরাবাদের হয়ে আইপিএল খেলতে থাকা দুই ক্রিকেটার টুইটারে তাদের টুইটে রীতিমতো দেশটির প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনিকেও ট্যাগ করেছেন। এই সিদ্ধান্ত বদলাতে হস্তক্ষেপ চেয়েছেন রাষ্ট্রের সর্বোচ্চ পর্যায়ের।

আসগর আফগানের নেতৃত্বে সবচেয়ে বেশি আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলেছে আফগানিস্তান। ৫৬ ওয়ানডেতে জিতেছে ৩১টিতে। ৪৬ টি-টোয়েন্টিতে জিতেছে ৩৭টিতে। কদিন আগে আয়ারল্যান্ডের বিপক্ষে নিজেদের ইতিহাসের প্রথম টেস্ট জয়ও এসেছে আসগরের অধিনায়কত্বে। ২০১৫ সালের বিশ্বকাপ পর্যন্ত মোহাম্মদ নবি ছিলেন আফগান দলের অধিনায়ক। বিশ্বকাপের পর তাকে সরিয়ে দায়িত্ব দেওয়া হয় আসগর স্টেনেকজাইকে। পরে আসগর তার নাম থেকে স্টেনেকজাই ছেঁটে বসিয়েছেন আফগান।

এই বিতর্কের মাঝে গতকালই বিশ্বকাপের প্রাথমিক দল ঘোষনা করেছে আফগানিস্তান। নতুন-পুরাতন অধিনায়ক মিলিয়ে ২৩ সদস্যের দলটি দক্ষিণ আফ্রিকায় ছয়টি প্রস্তুতি ম্যাচ খেলে নিজেদের ঝালিয়ে নেবে। এই ক্যাম্প শেষ হলে নির্বাচকেরা ঘোষণা করবেন ১৫ সদস্যের চূড়ান্ত দল। এই দলটি আগামী মাসে আয়ারল্যান্ড ও স্কটল্যান্ডের বিরুদ্ধে সিরিজ খেলবে। বিশ্বকাপ খেলতে নামার আগে ইংল্যান্ড ও পাকিস্তানের সঙ্গে একটা করে ওয়ানডেও খেলবে তারা। জুন মাসের ১ তারিখে বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে আফগানিস্তান মুখোমুখি হবে ফেভারিট অস্ট্রেলিয়ার।

২৩ সদস্যের ঘোষিত আফগানিস্তান দল : গুলবদিন নাইব (অধিনায়ক), রশিদ খান (সহ-অধিনায়ক), মোহাম্মদ শাহজাদ, মোহাম্মদ নবী, আসগর আফগান, রহমত শাহ, হাশমতউল্লাহ শহীদী, শফিকউল্লাহ শফিক, মুজিব উর রহমান, নজিব জাদরান, সামিউল্লাহ শিনওয়ারি, হযরতউল্লাহ জাজাই, নূর আলী জাদরান, উসমান গনি, দরউইশ রসুলি, দৌলত জাদরান, শাপুর জাদরান, আফতাব আলম, হামিদ হাসান, করিম জানাত, কায়েস আহমেদ, শরাফউদ্দিন আশরাফ, সাঈদ শিরজাদ



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আফগান ক্রিকেট
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ