Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬, ১৫ সফর ১৪৪১ হিজরী

ইউপি চেয়ারম্যান ও আ’লীগ নেতা আটকে পুরস্কার

মণিরামপুরে জমি দখল করে ঘের

প্রকাশের সময় : ২২ মে, ২০১৬, ১২:০০ এএম

বিশেষ সংবাদদাতা,যশোর : যশোরের মণিরামপুরে সংখ্যালঘুসহ নিরীহ কৃষকদের ২শ’ বিঘা ফসলি জমি জোরজবরদস্তি করে দখল করে ঘের নির্মাণের ঘটনায় মামলার প্রধান আসামি নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান আ’লীগ নেতা সামছুল হক মন্টুকে আটকের সহায়তাকারীকে ২৫ হাজার টাকা পুরস্কার দেয়ার ঘোষণা দিয়েছেন যশোরের পুলিশ সুপার আনিসুর রহমান। শনিবার দুপুরে উপজেলার রামনাথপুর গ্রাম পরিদর্শন করেন জেলা প্রশাসক ড. হুমায়ুন কবির ও পুলিশ সুপার মোঃ আনিসুর রহমানসহ প্রশাসনের কর্মকর্তারা। জেলা প্রশাসক বলেন, ঘেরের ভেড়ি বাঁধ আগামী কয়েক দিনের মধ্যে মাটি সমান করে দিয়ে চাষের উপযোগি করে দেয়া হবে। দৈনিক ইনকিলাবসহ পত্র-পত্রিকায় রিপোর্ট প্রকাশের পর প্রশাসনের পক্ষ থেকে তদন্তে প্রমাণ পাওয়ার পর গতকাল জেলা প্রশাসক ও পুলিশ সুপার পরিদর্শন করে ক্ষতিগ্রস্তদের আশ্বস্ত করেন।
উল্লেখ্য উপজেলার ঝাঁপা ইউনিয়নের নবনির্বাচিত চেয়ারম্যান আ’লীগ নেতা সামছুল হক মন্টু ও তার ক্যাডারবাহিনী রামনাথপুর, চন্ডিপুর ও মনোহরপুর গ্রামের সংখ্যালঘু হিন্দু পরিবারসহ নিরীহ সাধারণ কৃষকের ২শ’ বিঘা জমি জোর-দখল করে মাছের ঘের নির্মাণের চেষ্টা করেন। এ ঘটনায় ক্ষতিগ্রস্থ কৃষকরা ফুসে উঠেন। এক পর্যায়ে গত বুধবার ক্ষতিগ্রস্থ অরুণ হাজরা বাদী হয়ে মন্টু চেয়ারম্যানসহ ১৩ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা করেন। পরে পুলিশ অভিযান চালিয়ে মাহবুব মেম্বর নামে মন্টু চেয়ারম্যানের এক সহযোগিকে আটক করেন। যশোর পুলিশ সুপার আরও বলেন, মামলার অন্যান্য আসামিদেরকে আটকের জন্য পুলিশি অভিযান অব্যহত রয়েছে। এ দিকে সন্ত্রাসীদের অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবিতে শুক্রবার বিকেলে মনিরামপুরে হিন্দু-বৌদ্ধ-খ্রিস্টান ঐক্য পরিষদের উদ্যোগে প্রতিবাদ সভা অনুষ্ঠিত হয়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ