Inqilab Logo

সোমবার, ১৫ আগস্ট ২০২২, ৩১ শ্রাবণ ১৪২৯, ১৬ মুহাররম ১৪৪৪

এ যুগে ঈমান ধরে রাখা হাতের মুঠোয় জ¦লন্ত আগুন রাখার সমান

আরব আমিরাতে কাগতিয়ার পীর সাহেব

প্রেস বিজ্ঞপ্তি : | প্রকাশের সময় : ১৬ এপ্রিল, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

কাগতিয়া দরবার শরীফের পীর সাহেব আল্লামা শায়খ ছৈয়্যদ মুহাম্মদ মুনির উল্লাহ আহমদী বলেছেন, বর্তমানে এমন এক কঠিন সময়ে আমরা উপনীত হয়েছি যে, এ যুগে ঈমান ধরে রাখা হাতের মুঠোয় জ¦লন্ত আগুন রাখার সমান। এমন সময়ে নূরে মোহাম্মদীর আলোকধারায় দিশেহারা মানবজাতির হেদায়তের পথে আরাধ্য পাঞ্জেরীরূপে আবির্ভূত হন কাগতিয়ার মরহুম পীর সাহেব। তিনি বলেন, আঁধারে পর্যবসিত মানবজাতির উত্তরণের জন্য নূরে মোহাম্মদীর বিকল্প নাই। প্রিয় রাসুল যে নূর, তার বাস্তবতা রয়েছে কাগতিয়ার তরিক্বতে। প্রিয় নবীর নূর এ দরবার থেকে মানুষকে দান করে যাচ্ছেন। এ নূর ক্বলবে নিলে ক্বলব আল্লাহর স্মরণে মশগুল হয়। দুনিয়ার প্রতি মোহ কমে, আখেরাতের দিকে ঝুঁকে এবং সদা-সর্বদা মৃত্যুর স্মরণ কলবে জাগ্রত থাকে। ফলশ্রæতিতে পাপে আসক্ত মানব হয় খোদাভীরু। কাগতিয়ার দর্শনে সারা পৃথিবীর মানুষ জাগ্রত হলে পৃথিবীটা হবে শান্তির নিকেতন। এ বার্তা পৌঁছানোর জন্যই আরবভূমিতে অনুষ্ঠিত হল এশায়াত মাহফিল। তিনি গত শুক্রবার সালানা ওরছ উপলক্ষে মুনিরীয়া যুব তবলীগ কমিটি সংযুক্ত আরব আমিরাত শাখার উদ্যোগে দুবাইস্থ আল মারাবিয়া স্ট্রিট, ডাসকু ক্লাবে আয়োজিত বিশাল এশায়াত মাহফিলে প্রধান অতিথির বক্তব্যে এ কথা বলেন। তিনি আরো বলেন, মুসলমানদের হারানো ঐতিহ্য পুনরুদ্ধারে কাগতিয়া দরবারের অবদান অনস্বীকার্য। এ দরবারের সংস্পর্শে একজন মানুষ হয়ে উঠে আশেকে রাসুল।
প্রবাসীদের অনুরোধে বাংলাদেশ থেকে আরব আমিরাতে আসায় প্রধান অতিথির প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন বিশ্বের বিভিন্ন দেশের প্রবাসী বক্তারা। কমিটির সাংগঠনিক তদারক পরিষদের আহবায়ক আলহাজ্ব নূর মুহাম্মদ সিকদারের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত এশায়াত মাহফিলে অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন সংগঠনের সংযুক্ত আরব আমিরাত ওলামা পরিষদের আহবায়ক আলহাজ্ব মাওলানা শফিউল আলম, মাওলানা মাহাবুবুল আলম বোগদাদীসহ আরো অনেকে। বিশেষ অতিথি ছিলেন বৃহত্তর চট্টগ্রাম সমিতির উপদেষ্টা অধ্যাপক আবদুর সবুর, মহিউদ্দিন মহিন। শারজাহ প্রবাসী ব্যবসায়ী ফোরাম ও চট্টগ্রাম দক্ষিণ জেলা প্রবাসী আওয়ামীলীগ সভাপতি লায়ন মুহাম্মদ নজরুল ইসলাম। ইউ.এ.ই আওয়ামীলীগ সাধারণ সম্পাদক মহিউদ্দিন ইকবাল, দুবাই রাউজান সমিতি ও দুবাই বঙ্গবন্ধু পরিষদের সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ আবুল কাসেম, আজমান রাউজান সমিতির সভাপতি মুহাম্মদ জাহাঙ্গির আলমসহ আমিরাতের বিশিষ্ট কমিউনিটি নেতৃবৃন্দ। মাহফিলে দেশ, জাতি, বিশ্ব মুসলিম উম্মাহর শান্তি, অগ্রগতি ও উপস্থিত সকলের ইহকালীন কল্যাণ, পরকালীন মুক্তি কামনা করে বিশেষ দোয়া করা হয়।



 

Show all comments
  • Golam Mortuza ১৪ এপ্রিল, ২০১৯, ২:২৮ এএম says : 0
    আল্লাহর রাসুলের এই হাদিস এখন বাস্তবে রূপ নিয়েছে। আল্লাহতায়ালা আমাদের রক্ষা করুন।
    Total Reply(0) Reply
  • মিরাজ মাহাদী ১৪ এপ্রিল, ২০১৯, ২:২৯ এএম says : 0
    ঠিক বলেছেন। এখন যেন হাতোর মুঠোয় আগুন রাখা ঈমানের চেয়ে সহজ হয়ে গেছে।
    Total Reply(0) Reply
  • কেরামত উল্লাহ ১৪ এপ্রিল, ২০১৯, ২:৩০ এএম says : 0
    হে আল্লাহ আমাদের ঈমান আমলের সাথে মৃত্যুবরণের তৌফিক দাও। কঠিন অবস্থায় থেকে মুক্তি দিও।
    Total Reply(0) Reply
  • taijul Islam ১৪ এপ্রিল, ২০১৯, ৯:৩৩ এএম says : 0
    Its really right
    Total Reply(0) Reply
  • taijul Islam ১৪ এপ্রিল, ২০১৯, ৯:৩৪ এএম says : 0
    হে আল্লাহ আমাদের ঈমান আমলের সাথে মৃত্যুবরণের তৌফিক দাও। কঠিন অবস্থায় থেকে মুক্তি দিও।
    Total Reply(0) Reply
  • Ifaz Ahamad ১৪ এপ্রিল, ২০১৯, ১০:৫৯ এএম says : 0
    আল্লাহ যেন ওনাকে হায়াতে আবেদী শেফায়ে দায়য়েমী দান করেন
    Total Reply(0) Reply
  • ম নাছিরউদ্দীন শাহ ১৪ এপ্রিল, ২০১৯, ২:০০ পিএম says : 0
    বিশ্ব নবী হযরত মুহাম্মদ মুস্তাফা {সাঃ} বলেছেন আমার উম্মতের জন্য এমন টি সময় আসবে জাকে মারছে সে সে জানবে না তাকে কি জন্য মারছে। জিনি মারছেন তিনি ও জানবেন না কেন তাকে মারছেন। তখন হাতে জলন্ত আগুনের টুকরা রাখলে যে কস্ট হবে। আমার উম্মতের ঈমান ধরে রাখা সে রকম হবে। এক শ্রেনীর দুনিয়া পূজারী মুসলমানদের সেটি পরিলক্ষিত হচ্ছেন না। পকৃত ঈমানদার য়ারা তাদের ঈমান আকিদা বাচাতে কষ্ট হচ্ছে। পূথিবীতে এত উলঙ্গ পনা বেহায়া পনা বে পদ্দা পনা জুলুম নির্যাতনকারী বেবিচার অহরহ মিথ্যাচার এ সব কিসের আলামত। অথ্যাৎ আখেরি জমানা। হে রাহমানের রাহিম আপনি আমরা গুনাগর তোমার প্রিয় হাবিবের উম্মতের ঈমান আকিদা বাচানোর তৌফিক দিন।
    Total Reply(0) Reply
  • হাসিবুল হাসান ১৯ এপ্রিল, ২০২১, ১০:২২ পিএম says : 0
    Plzz....দয়া করে আমাকে এই হদিসের reference টা দেন। আমার খুব দরকার।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ