Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার ২৩ জুলাই ২০১৯, ০৮ শ্রাবণ ১৪২৬, ১৯ যিলক্বদ ১৪৪০ হিজরী।
শিরোনাম

তবুও পাকিস্তানকে কেন ফেভারিট মনে করছেন ইংল্যান্ডের অধিনায়ক

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৫ এপ্রিল, ২০১৯, ৩:০০ পিএম
ইংল্যান্ড অধিনায়ক মনে করছেন আগামী ৩০ মে শুরু হওয়া ক্রিকেট বিশ্বকাপ শিরোপা জয়ে অন্যতম ফেবারিট পাকিস্তান।
সম্প্রতি সংযুক্ত আরব আমিরাতের মাটিতে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে সফরকারী অস্ট্রেলিয়ার কাছে হোয়াইটওয়াশ হয়েছে স্বাগতিক পাকিস্তান। এরপরই আসন্ন বিশ্বকাপে দলটির প্রস্তুতি নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। তবে মরগান মনে করছেন পাকিস্তান টুর্নামেন্টের ‘দ্বিতীয় অথবা তৃতীয় ফেবারিট’।
 
আইসিসি ওয়ানডে র‌্যাংকিংয়ের শীর্ষ দল ইংল্যান্ডকে আসন্ন এ মেগা ইভেন্টের ফেবারিট হিসেবে বিবেচনা করা হচ্ছে। বিশ্বকাপ শুরুর আগে ৫ মে থেকে দলটি পাকিস্তানের বিপক্ষে পাঁচ ওয়ানডে ও একমাত্র টি-২০ ম্যাচের সিরিজ খেলবে। বিশ্বকাপের আগ মুহূর্তে উভয় দলই তাদের দক্ষতা প্রমাণের একটা সুযোগ পাবে এ সিরিজ থেকে।
 
 
 
মরগান বলেন, ‘আসন্ন গ্রীষ্ম মৌসুমটি সুন্দরভাবে শুরু করতে এবং সত্যিকারার্থেই ভালো ও প্রতিদ্বন্দ্বিতামূলক খেলার জন্য পাকিস্তান সিরিজটি সহায়ক হবে। পাকিস্তান সম্ভবত আসন্ন টুর্নামেন্টের দ্বিতীয় অথবা তৃতীয় ফেবারিট দল।’
 
তিনি আরো বলেন, ‘তাদের কাছে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির শিরোপা বর্তমান- বিশ্বকাপ জিততে ইংল্যান্ডের মাটিতে তারা অত্যন্ত ভাল খেলবে। আমরা সবাই এ সিরিজের দিকে তাকিয়ে আছি।
অস্ট্রেলিয়া ও নিউজিল্যান্ড অনুষ্ঠিত ২০১৫ বিশ্বকাপের প্রথম রাউন্ড থেকে ছিটকে পড়ার পর থেকেই ওয়ানডেতে দারুন ক্রিকেট খেলে আসছে ইংল্যান্ড। বিশেষ করে নিজ মাটিতে ৫০ ওভার ভার্সনে অপ্রতিদ্বন্দ্বী হয়ে উঠেছে ইংলিশরা।
 
মরগান বলেন, ‘গত চার বছরে আমরা দলগতভাবে এগিয়েছি। দলের আজকের এ অবস্থানে আসার পিছনে অনেকের অবদান আছে। আমাদের হাতে ১৮-১৯ জন খেলোয়াড় আছে যারা সহজেই চূড়ান্ত দলে আসার যোগ্য। তবে আমাদের ১৫ সদস্যের দলই গঠন করতে হবে। আসন্ন পাকিস্তান সিরিজ আমাদের জন্য একটি সুযোগ হচ্ছে- খেলোয়াড়রা এ মাধ্যমে বিশ্বকাপ দলে জায়গা পাওয়ার সুযোগ পাচ্ছে।’

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ইংল্যান্ড


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ