Inqilab Logo

ঢাকা, শনিবার, ২০ এপ্রিল ২০১৯, ৭ বৈশাখ ১৪২৬, ১৩ শাবান ১৪৪০ হিজরী।
শিরোনাম

বার্সার ম্যান ইউ পরীক্ষা, জুভেন্টাসের আয়াক্স

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৫ এপ্রিল, ২০১৯, ৮:৩৩ পিএম

উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে কোয়ার্টার ফাইনালের দ্বিতীয় লেগে আগামীকাল মাঠে নামবে চারটি দল। ন্যু ক্যাম্পে স্বাগতিক বার্সেলোনা আতিথ্য দেবে প্রিমিয়ার লিগ জায়ান্ট ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডকে। একই সময়ে তুরিনে স্বাগতিক জুভেন্টাসের মুখোমুখি হবে নেদারল্যান্ডসের দল আয়াক্স।
গত বুধবার প্রথম লেগের ম্যাচে ওল্ড ট্রাফোর্ড থেকে ১-০ গোলের জয় নিয়ে ফেরায় শেষ চারের পথে সুবিধাজনক অবস্থায় রয়েছে বার্সেলোনা। ১১ সতীর্থের পা ঘুরে ৫০টি সফল পাসের পর সেদিন গোলটি আদায় করে বার্সা। গোলটি অব্যশ আত্মঘাতি হিসেবে লেখা হয়। লিওনেল মেসির বাড়ানো বলে হেড নেন লুইস সুয়ারেজ। বল ম্যান ইউ ডিফেন্ডার লুক শয়ের গায়ে লেগে জালে জড়ায়। ঐ ম্যাচের পর একটি করে ঘরোয়া লিগ ম্যাচ খেলেছে দল দুটি। ম্যান ইউ জয় পেলেও পয়েন্ট তালিকার তলানির দলের কাছে পয়েন্ট হারায় বার্সা।
নিষেধাজ্ঞার কারণে কালকের ম্যাচে খেলতে পারবেন না ম্যান ইউ ডিফেন্ডার শ। চোট কাটিয়ে দলে ফিরেছেন বার্সার একসময়ের স্ট্রাইকার অ্যালিক্সেস সানচেস। প্রতিযোগিতায় টিকে থাকতে হলে প্রতিপক্ষের ডেরায় আজ কমপক্ষে দুই গোল করতে হবে ইউনাইটেডকে। ওলে গানার সুলশারের দলের জন্য কাজটা যে সহজ হবে না তা পরিসংখ্যানই বলে দেয়। শেষ চার ম্যাচে ন্যু ক্যাম্পে জয় পায়নি ‘রেড ডেভিল’ খ্যাত দলটি। অন্যদিকে ঘরের মাঠে টানা ১২ ম্যাচ জিতেছে বার্সা। দু’দলের শেষ তিন সাক্ষাতেও জয় স্প্যানিশ জায়ান্টদের। ২০০৯ ও ২০১১ সালের ফাইনালে বার্সার কাছে হেরেই শিরোপাবঞ্চিত হয় ইউনাইটেড। অবশ্য পরিসংখ্যান যে সব সময় নিয়ম মেনে চলে তা নয়। প্রথম লেগের ম্যাচ দিয়ে যেমন নকআউট পর্বের টানা ছয় অ্যাওয়ে ম্যাচ জয়হীন থাকার গোরো কাটায় বার্সা। এদিনই ওল্ড ট্রাফোর্ডে প্রথম জয় পায় কাতালান দলটি।
প্রথম লেগের ম্যাচে পিছিয়ে পড়ার পর বার্সাকে উদ্দেশ্য করে একাধীক হুমকি এসেছে ইউনাইটেডের পক্ষ থেকে। দলটির মিডফিল্ডার পল পগবা ও কোচ সুলশার হুশিয়ারী দিয়ে মনে করিয়ে দেন শেষ ষোলোয় দ্বিতীয় লেগের সেই ম্যাচের কথা। প্রথম লেগে ঘরের মাঠে দুই গোলে পিছিয়ে থেকেও যে ম্যাচে পিএসজিকে তাদেরই মাঠে ৩-১ গোলে ধরাশায়ী করে অগ্রযাত্রা অব্যহত রাখে ম্যান ইউ।
রাতের আরেক ম্যাচে সুবিধাজনক অবস্থায় থেকে মাঠে নামবে সেরি আ চ্যাম্পিয়ন জুভেন্টাসও। গত বুধবার আমস্টার্ডামে ১-১ ড্র করলেও ক্রিশ্চিয়ানো রোনালদোর নৈপূন্যে মূল্যবান অ্যাওয়ে গোল পেয়ে যায় জুভরা। ম্যাচ শেষে সেমিফাইনালে ওঠা নিয়ে কোন শঙ্কা দেখছে না বলে জানান কোচ মাসিমিলিয়ানো অ্যালেগ্রি।
জুভেন্টাসের মাঠে অয়াক্সের জয়ের কোনো রেকর্ড নেই বটে, কিন্তু এই দল কি করতে পারে তা ঠিকই দেখিয়ে চলেছে। শেষ ষোলোয় রিয়াল মাদ্রিদকে তাদেরই মাঠে উড়িয়ে দিয়ে শেষ আটে জায়গা করে নেয় ডাচ দলটি। জুভেন্টাসের বিপক্ষেও শেস ম্যাচে আক্রমণ, বলের দখল- সবকিছুতেই এগিয়ে ছিল তারা। ভাগ্যের ফেরে সেদিন জয় পাওয়া হয়নি তাদের। এই ম্যাচের পর ঘরোয়া লিগ ম্যাচে স্পালের কাছে হেরে শিরোপা জয়ের প্রতিক্ষা বাড়ায় জুভেন্টাস, আর প্রতিপক্ষের জালে ছয় গোল করে তুরিনের প্রস্তুতি সেরে রাখে আয়াক্স।
১৯৯৭ সালের পর আর শেষ চারে উঠা হয়নি চারবারের চ্যাম্পিয়ন আয়াক্সের। অন্যদিকে শেষ পাঁচ মৌসুমে তৃতীয়বারের মত সেমির খোঁজে দুইবারের চ্যাম্পিয়ন জুভেন্টাস। ১৯৭৪ সালের পর জুভেন্টাসকে হারাতে পারেনি আয়াক্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন