Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ০৬ কার্তিক ১৪২৬, ২২ সফর ১৪৪১ হিজরী

সাভারে পোশাক কারখানায় শ্রমিক-পুলিশ সংঘর্ষে আহত ১০, মহাসড়ক অবরোধ

সাভার | প্রকাশের সময় : ১৬ এপ্রিল, ২০১৯, ৩:৩৯ পিএম

বকেয়া এক মাসের বেতন-ভাতার দাবীতে আন্দোলন রত শ্রমিকদের সাথে পুলিশের সংঘর্ষ হয়েছে। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রনে আনতে কাঁদানে গ্যাস ও জলকামান ব্যবহার করে। সংঘর্ষে শ্রমিকসহ আহত হয়েছে অন্তত ১০জন। তাদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়েছে।
মঙ্গলবার সাভার পৌর এলাকার দিলখুশাবাগ মহল্লায় অবস্থিত আজিম গ্রুপের ‘জিকে গামের্ন্টস লিমিটেড’ কারখানায় শ্রমিকদের সাথে এ সংঘষের ঘটনা ঘটে।
শ্রমিকদের ছুড়া ইটের আঘাতে পুলিশ কনস্টেবল রিয়াজুল, কাঁদানে গ্যাসে শ্রমিকসহ অন্তত ১০জন আহত হয়েছে।
এদিকে দুপুর পৌনে একটা থেকে সোয়া একটা পর্যন্ত আধা ঘন্টা ঢাকা-আরিচা মহাসড়কের একপাশ অবরোধ করে রাখে বিক্ষুব্ধ শ্রমিকরা। তখন সড়কে শত শত যানবাহন আটকা পরে। তারা মহাসড়কের সাভার বাজার বাসস্ট্যান্ডের কাচা বাজারের সামনে সড়কে ইট, টুকরী ফেলে সড়ক অবরোধ করে। পরে পুলিশ এসে মালিক পক্ষের সাথে আলোচনা করে আগামী দুই দিনের মধ্যে বকেয়া বেতন পরিষোধের আশ্বাস দিলে শ্রমিকরা মহাসড়ক থেকে চলে যায়।
ঢাকা জেলা অতিরিক্ত পুলিশ সুপার সাঈদুর রহমান জানান, মালিক পক্ষের সাথে আলোচনা হয়েছে। আগামী দুই দিনের মধ্যে শ্রমিকদের বকেয়া পাওনাদি পরিষোধ করে দিবে। তিনি বলেন, শ্রমিকরা বকেয়া পরিষোধের আশ্বাস পেয়ে সড়ক থেকে চলে যায়। পরে সড়কে যানচলাচল স্বাভাবিক হয়।
শ্রমিক রহিমা বেগম জানান, আমাদের বেতন বকেয়া রেখে মালিক নিজে বিভিন্ন জায়গায় কোটি কোটি টাকা খরচ করে বাড়ি কিনে, আনন্দ ফুর্তি করে। আর এদিকে আমাদের না খেয়ে কষ্ট করে দিনযাপন করতে হচ্ছে।
আয়রন ম্যান ওয়াসিম, কাটিং সহকারী মাসুদ রানা জানান, মার্চ মাসের বেতন গত ৭তারিখে দেয়ার কথা থাকলেও মালিকপক্ষ নানান অজুহাত দেখিয়ে দেই দিচ্ছি বলে ঘুরাতে থাকে। অবশেষে আজ (মঙ্গলবার) বেতন-ভাতা পরিষোধের কথা থাকলেও মালিকপক্ষ দেয়নি। পরে শ্রমিকরা উত্তেজিত হয়ে কাজ বন্ধ রেখে বিক্ষোভ দেখায়।
তারা আরও জানায়, শ্রমিকদের শান্তিপূর্ন বিক্ষোভে পুলিশ কাঁদানে গ্যাস ছুড়ে ও জলকামান ব্যবহার করলে শ্রমিকরা অরও ক্ষুব্ধ হয়ে উঠে তারা ঢাকা-আরিচা মহাসড়ক অবরোধ করে।
জিকে গামের্ন্ট লিমিটেডের মহাব্যবস্থাপক আলী আকবর জানান, আগামী বৃহস্পতিবার শ্রমিকদের সকল পাওনাদি পরিষোধ করে দেয়া হবে। আজ কারখানায় বিশৃঙ্খলার সৃষ্টি হওয়ায় কারখানাটি একদিনের জন্য সাধারন ছুটি ঘোষনা করা হয়েছে। আগামীকাল (বুধবার) কারখানা খোলা থাকবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সংঘর্ষ

১৫ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ