Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ০৬ কার্তিক ১৪২৬, ২২ সফর ১৪৪১ হিজরী

অপরাজিত থেকেই প্রথম লেগ শেষ বসুন্ধরার

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৮ এপ্রিল, ২০১৯, ৮:৩০ পিএম

ঘরোয়া ফুটবলের মর্যাদাপূর্ণ আসর বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) শিরোপার দিকে দূরন্ত গতিতেই ছুটছে নবাগত বসুন্ধরা কিংস। অপরাজিত থেকেই প্রথম লেগ শেষ করলো তারা। বিপিএলের ১৩তম রাউন্ড পর্যন্ত অপরাজেয় থেকেই তালিকার শীর্ষে রয়েছে দলটি। বৃহস্পতিবার নীলফামারীর শেখ কামাল স্টেডিয়ামে লিগের প্রথম লেগে নিজেদের শেষ ম্যাচে বসুন্ধরা ৩-০ গোলে বিধ্বস্ত করে চট্টগ্রাম আবাহনীকে। বিজয়ী দলের পক্ষে ফরোয়ার্ড বখতিয়ার দুইশবেকভ, কোস্টারিকার ফরোয়ার্ড ড্যানিয়েল কলিন্দ্রেস ও ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড মার্কোস ডি সিলভা একটি করে গোল করেন। এই জয়ে ১২ ম্যাচে ৩৪ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার শীর্ষে থেকেই প্রথম লেগ শেষ হলো বসুন্ধরার। সমান ম্যাচে ১৪ পয়েন্ট পাওয়া চট্টগ্রাম আবাহনীর অবস্থান আটে।

বৃহস্পতিবার নিজেদের ভেন্যু নীলফামারীর শেখ কামাল স্টেডিয়ামে দারুণ ম্যাচ উপহার দিয়ে সমর্থকদের মাত করেছে বসুন্ধরা কিংস। যদিও ম্যাচের শুরু থেকেই চট্টগ্রাম আবাহনী আক্রমণাতœক ফুটবল খেলে বসুন্ধরাকে চাপে রাখার চেষ্টা করে। কিন্তু তাদের সব চেষ্টাই বৃথায় যায়। ধীরে ধীরে ম্যাচ নিয়ন্ত্রণে নেয় নবাগতরা। নিজেদের রক্ষণদূর্গ সামলে পাল্টা আক্রমণে গিয়ে তারা একের পর এক গোল আদায় করে নিয়ে কোনঠাসা করে ফেলে চট্টগ্রামের দলটিকে। ম্যাচের ৩৬ মিনিটে চট্টগ্রাম আবাহনীর সব প্রতিরক্ষা ব্যুহ ভেঙ্গে দেন বসুন্ধরার কিরগিজ ফরোয়ার্ড বখতিয়ার দুইশবেকভ। এসময় প্রতিপক্ষের ডি-বক্সের ভেতর থেকে এই কিরগিজ কোনাকুনি শট নিলে বল জালে জড়ায়, এগিয়ে যায় বসুন্ধরা (১-০)। এগিয়ে থেকেই বিরতিতে যায় তারা। ধারাবাহিক আক্রমণের মুখে দ্বিতীয়ার্ধে আরো দু’গোল আদায় করে নিলে বসুন্ধরার সহজ জয় নিশ্চিত হয়। ম্যাচের ৭৮ মিনিটে দ্বিতীয় গোল পায় এবারের লিগের নবাগত দলটি। এসময় রাশিয়া বিশ্বকাপে খেলা বসুন্ধরার কোস্টারিকার ফরোয়ার্ড ড্যানিয়েল কলিন্দ্রেস দুর্দান্ত এক শটে গোল করে ব্যবধান বাড়ান (২-০)। ম্যাচ শেষ হওয়ার মিনিট পাঁচেক আগে ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড মার্কোস ডি সিলভা চট্টগ্রাম আবাহনীর গোলরক্ষকের মাথার উপর দিয়ে বল জালে জড়িয়ে দিলে তৃতীয় গোল পায় বিজয়ীরা (৩-০)।

একই দিন নোয়াখালীর শহীদ ভুলু স্টেডিয়ামে বিপিএলের আরেক ম্যাচে সাবেক চ্যাম্পিয়ন শেখ জামাল ধানমন্ডি ক্লাবকে রুখে দেয় আরেক নবাগত স্বাগতিক নোফেল স্পোর্টিং ক্লাব। ম্যাচটি গোলশূণ্য ড্র হয়। এবারের লিগে অনেকটাই অনুজ্জ্বল ২০১৫ মৌসুমের লিগ চ্যাম্পিয়ন শেখ জামাল। এই ড্র’তে ১২ ম্যাচে ১৪ পয়েন্ট নিয়ে তালিকার সপ্তমস্থানে জায়গা পেল শেখ জামাল। সমান ম্যাচে ৯ পয়েন্ট পেয়ে দশমস্থানেই রইল নোফেল স্পোর্টিং ক্লাব।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ফুটবল

১৯ অক্টোবর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন