Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ০৬ কার্তিক ১৪২৬, ২২ সফর ১৪৪১ হিজরী

ধর্মীয় বিষয়ে হস্তক্ষেপ নয় রিটের শুনানিতে হাইকোর্ট

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৯ এপ্রিল, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

শাবান মাসের চাঁদ দেখা ও শবে বরাত নিয়ে করা রিটের শুনানিতে হাইকোর্ট বলেছেন, এটা ধর্মীয় বিষয়। এ বিষয়ে আমরা হস্তক্ষেপ করবো না। শাবান মাসের চাঁদ দেখা ও শবে বরাত নিয়ে ‘মজলিসু রুইয়াতিল হিলাল’ নামে একটি সংগঠনের পক্ষে ১০ ব্যক্তির করা রিটের শুনানিতে গতকাল বৃহস্পতিবার হাইকোর্টের বিচারপতি তারিক উল হাকিম ও বিচারপতি মো. সোহরাওয়ারদীর সমন্বয়ে গঠিত বেঞ্চ এমন মন্তব্য করেন।
আদালত বলেন, শবে বরাতের দিন নিয়ে সিন্ধান্ত ইতোমধ্যেই হয়ে গেছে। আমরা এখন আর হস্তক্ষেপ করবো না। আপনারা চাইলে অন্য হাইকোর্ট বেঞ্চে যেতে পারেন। এ সময় রিটকারীদের আইনজীবী অ্যাডভোকেট তৈমুর আলম খোন্দকার আদালতকে বলেন, ‘এ বছরের জন্য নয়, ভবিষ্যতের জন্য চাঁদ দেখার পদ্ধতিগত বিষয় নিয়ে একটা আদেশ দিতে পারেন। এক্ষেত্রে চাঁদ দেখায় বৈজ্ঞানিক পদ্ধতি অবলম্বনের নির্দেশ দিতে পারেন।’ তখন আদালত আইনজীবীকে উদ্দেশ করে বলেন, ‘বিশ্বের বিভিন্ন দেশে চাঁদ দেখার ক্ষেত্রে কী ধরনের পদ্ধতি অনুসরণ করা হয়, সে বিষয়গুলো সংযুক্ত করে আপনারা আদালতে একটি আবেদন করেন। আমরা বিষয়টি পরবর্তীতে শুনবো।’
এর আগে গত বুধবার হাইকোর্টের আরেকটি বেঞ্চে গত ৬ এপ্রিল চাঁদ দেখা নিয়ে এক রিট আবেদনের অনুমতি চাইতে গেলে আদালত বলেছিলেন, এখন একেবারেই লাস্ট স্টেজ। এ অবস্থায় নতুন করে বিভ্রান্তির অবকাশ নেই।
উল্লেখ গত ৬ এপ্রিল জাতীয় চাঁদ দেখা কমিটি সভা করে জানিয়েছিল, ওইদিন দেশের আকাশে কোথাও শাবান মাসের চাঁদ দেখা যায়নি। ফলে ৮ এপ্রিল থেকে শাবান মাস গণনা শুরু হবে এবং ২১ এপ্রিল দিবাগত রাতে পবিত্র লায়লাতুল বরাত পালিত হবে।
কিন্তু ‘মজলিসু রুইয়াতিল হিলাল’ নামে একটি সংগঠনের দাবি সেদিন খাগড়াছড়িতে চাঁদ দেখা গেছে। তাদের দাবি অনুযায়ী ২০ এপ্রিল দিবাগত রাতে পবিত্র লায়লাতুল বরাত পালিত হওয়ার কথা। এ নিয়ে বিতর্ক এড়াতেই জরুরি বৈঠক ডাকে সরকার। এর মধ্যে সাব কমিটি ১৬ এপ্রিল মঙ্গলবার বৈঠক করার পর ২১ এপ্রিলের সিদ্ধান্ত বহাল রাখে সরকার। এরপরও ‘মজলিসু রুইয়াতিল হিলাল’ নামক সংগঠনের ১০ জন হাইকোর্টে রিট করেন। এনিয়ে শুনানিতে বিব্রত প্রকাশ করেন হাইকোর্টেটর অপর একটি বেঞ্চ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: হস্তক্ষেপ


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ