Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার ১৬ জুন ২০১৯, ২ আষাঢ় ১৪২৬, ১২ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

মালিঙ্গার অবসরের ইঙ্গিত

স্পোর্টস ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ১৯ এপ্রিল, ২০১৯, ৫:২৮ পিএম

ইংল্যান্ড বিশ্বকাপের জন্য গতকাল ১৫ সদস্যের দল ঘোষনা করেছে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেট বোর্ড (এসএলসি)। দলের অনেকগুলো চমক। তবে সবচেয়ে বড় চমক অধিনায়কের পদ। গেল চার বছর কোন ওয়ানডেই খেলেননি সেই দিমুথ করুনারত্মকেই বিশ্বকাপের জন্য অধিনায়ক নির্বাচিত করা হয়েছে। যা নিয়ে আলোচনা তুঙ্গে। তবে কিছু খেলোয়াড় খুব ক্ষুব্ধ বোর্ডের এমন সিদ্বান্তে।
তারই রেশ ধরে সদ্য সাবেক হয়ে যাওয়া ওয়ানডে অধিনায়ক লাসিথ মালিঙ্গা বিশ্বকাপের আগেই অবসরের ইঙ্গিত দিয়ে দিলেন। দল ঘোষণার ঘন্টা খানেক পর শ্রীলঙ্কা খেলোয়াড়দের হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে নিজের ভাবনা ব্যক্ত করেন মালিঙ্গা। সেখানে তিনি লেখেন, ‘মাঠে আমাদের আর হয়তো দেখা হবে না। আমার পাশে যারা ছিলেন, ঈশ্বর তাদের মঙ্গল করুন।’
অবশ্য দল ঘোষনার আগে শ্রীলঙ্কা ক্রিকেটের প্রধান নির্বাচক ফোন করেছিলেন মালিঙ্গাকে। তার কাছে প্রধান নির্বাচক জানতে চান- অধিনায়ক না হলে তিনি কি বিশ্বকাপে খেলবেন না। তখন কিছুই বলেননি মালিঙ্গা। কিন্তু পরে ঠিকই নিজের অবসর নিয়ে ইঙ্গিত দিয়েছেন ডানহাতি অভিজ্ঞ পেসার।
মালিঙ্গার অবসরের ইঙ্গিতের ব্যাপারে শ্রীলঙ্কা বোর্ডের এক কর্তা জানান, ‘মালিঙ্গার অবসরের বিষয়টি স্পষ্ট নয়। মনে হচ্ছে, সে নিজে থেকেই সরে যেতে চাচ্ছে। তবে মালিঙ্গার বোঝা উচিত, দেশের হয়ে খেলা নেতৃত্বের থেকেও অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। তার নেতৃত্বে ১৪টি ম্যাচের মধ্যে ১৩টিতেই শ্রীলঙ্কা হেরেছে। এটিও বোধ হয় সে জানে।’
চলতি বছর মালিঙ্গার নেতৃত্বে ওয়ানডেতে নিউজিল্যান্ডের মাটিতে তিন ম্যাচ এবং দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে পাঁচ ম্যাচের সিরিজে হোয়াইটওয়াশ হয় শ্রীলঙ্কা। তবে দক্ষিণ আফ্রিকা সফরে টেস্ট সিরিজে আচমকা অধিনায়কত্ব পেয়েই দলকে বিরাট সাফল্য এনে দেন করুনারতেœ। দুই ম্যাচের সিরিজে এশিয়ার প্রথম দেশ হিসেবে প্রোটিয়াদের তাদেরই মাটিতে হোয়াইটওয়াশ করে শ্রীলঙ্কা।
গত দু’বছরে মালিঙ্গা, অ্যাঞ্জেলো ম্যাথিউস, দীনেশ চান্দিমাল, থিসারা পেরেরার মতো অভিজ্ঞরা শ্রীলঙ্কা দলের অধিনায়কত্বে এসেও সাফল্যের মুখ দেখেনি ৯৬’বিশ্বকাপ চ্যাম্পিয়নরা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন