Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার ২০ মে ২০১৯, ০৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৪ রমজান ১৪৪০ হিজরী।

জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জের মুক্তির দাবিতে ঢাকায় মানববন্ধন

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২০ এপ্রিল, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

উইকিলিকসের প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জের মুক্তির দাবিতে ঢাকায় মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়েছে। গতকাল শুক্রবার সকালে জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনের সড়কে ‘মুক্ত গণমাধ্যম ও তথ্যের অবাধ প্রবাহ নিশ্চিতের দাবিতে আমরা’ ব্যানারে এ মানববন্ধন অনুষ্ঠিত হয়। মানববন্ধনে সাংবাদিকসহ বিভিন্ন শ্রেণি পেশার মানুষ ও প্রতিনিধিরা অংশ নেন।
বক্তরা বলেন, সারাবিশ্বে অবাধ তথ্যপ্রবাহ নিশ্চিতের যে জোর দাবি উঠেছে বর্তমান সময়ে তার কেন্দ্রীয় চরিত্রে অবস্থান করছেন জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জ। অস্ট্রেলিয়ার এ নাগরিক যুক্তরাষ্ট্র ও তার সামরিক জোট ন্যাটোর সামরিক এবং কূটনৈতিক লাখ লাখ গোপন নথি ফাঁস করে দেখিয়ে দিয়েছেন ক্ষমতাধর রাষ্ট্রগুলো কী করে মুষ্টিমেয় গোষ্ঠীর স্বার্থ উদ্ধারে নির্বিচারে মানুষ খুন, ষড়যন্ত্র ও আইন লঙ্ঘন করছে।
বক্তারা আরও বলেন, যুদ্ধবাজ দেশের শাসকরা অ্যাসাঞ্জের এই লড়াইকে স্বাভাবিকভাবে দেখেনি। তাকে গ্রেফতার করে তথ্যের অবাধ প্রবাহে পশ্চিমা বিশ্ব বাধা তৈরি করছে। অ্যাসাঞ্জ কেবল একজন ব্যক্তি নয়, অবাধ তথ্য প্রবাহ নিশ্চিত করার দেশে দেশে যে লড়াই চলছে সে লড়াইয়ের নেতা বনে গেছেন তিনি। মানববন্ধন থেকে উইকিলিকসের প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জকে ‘গণ সাংবাদিক’ আখ্যা দিয়ে তাকে গ্রেফতারের প্রতিবাদ ও দ্রæত মুক্তির দাবি জানানো হয়। তাকে গ্রেফতারের প্রতিবাদে অন্যান্য দেশেও বিক্ষোভ-প্রতিবাদ হয়েছে।
প্রসঙ্গত, গত সাত বছর ধরে লন্ডনে ইকুয়েডর দূতাবাসে বসবাস করছিলেন অ্যাসাঞ্জ। গত ১১ এপ্রিল দূতাবাস থেকে তাকে গ্রেফতার করে ব্রিটিশ পুলিশ। ইকুয়েডর অ্যসাঞ্জকে দেয়া কূটনৈতিক আশ্রয় তুলে নিয়ে তাকে ব্রিটিশ পুলিশের কাছে হস্তান্তর করে। গণমাধ্যম সূত্রে জানা যায়, অস্ট্রেলিয়ার নাগরিক অ্যাসাঞ্জ ২০১০ সালে মার্কিন প্রতিরক্ষা সদর দফতর পেন্টাগন ও যুক্তরাষ্ট্রের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের লাখ লাখ সামরিক ও কূটনৈতিক গোপন নথি ফাঁস করে বিশ্বজুড়ে হৈ চৈ ফেলে দিয়েছিলেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন