Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার ২৬ মে ২০১৯, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২০ রমজান ১৪৪০ হিজরী।

বয়সের তালিকায় বাদ পড়ারাও পদ পেতে মরিয়া

শীর্ঘই ছাত্রলীগের পূর্ণাঙ্গ কমিটি

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২০ এপ্রিল, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

ছাত্রলীগের গঠনতন্ত্র অনুযায়ী কেন্দ্রীয় বা শাখা কোনো পর্যায়ের নেতার বয়স ২৭ বছরের বেশি হতে পারবে না। তবে ২৯ তম জাতীয় সম্মেলনে কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের কমিটিতে পদ পাওয়ার জন্য বয়সসীমা ২৮ বছর নির্ধারণ করে দেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তবে এবার সে বয়সও ডিঙ্গিয়ে পূর্ণাঙ্গ কমিটিতে পদ পেতে জোর লবিং তদবির চালাচ্ছেন বয়সের কারণে কেন্দ্রীয় সম্মেলনের সময় প্রার্থী তালিকা থেকে বাদ পড়া নেতারা।
গত বছরের ১১-১২ মে ছাত্রলীগের ২৯তম জাতীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। ১১মে রাতে সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রীর নির্ধারণ করে দেয়া ২৮ বছর বয়সের ফ্রেমে বাদ পড়াদের তালিকা প্রকাশ করে সংগঠনটির এ সংশ্লিষ্ট গঠিত নির্বাচন কমিশন। পাশাপাশি বৈধ প্রার্থীদের তালিকাও প্রকাশ করা হয়। যার মধ্যে ছিলেন সভাপতি প্রার্থী ৬৬ জন ও সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী ১৬৯ জন। সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক প্রার্থী পদ থেকে বাদ পড়লেও এবার পূর্ণাঙ্গ কমিটির অন্যান্য গুরুত্বপূর্ণ পদে ডুকতে মরিয়া বাদ পড়া নেতাদের একটি বড় অংশ।
তালিকা থেকে বাদ পড়েও গুরুত্বপূর্ণ পদ পেতে কাজ করছেন সংগঠনটির সাবেক কেন্দ্রীয় সাংগঠনিক সম্পাদক তানজিল ভূঁইয়া তানভীর। ছাত্রলীগের নির্বাচন কমিশনের ১১ মে, ২০১৮ তে প্রকাশিত তালিকায় এ নেতার বয়স ২৯ বছর ৬ মাস ১৭ দিন দেখালেও বর্তমান বয়স ৩০ বছর ৫ মাস ১০ দিন। গঠনতন্ত্রের ২৭ বছর বয়সের পর বর্ধিত ২৮ বছর পার করেও গুরুত্বপূর্ণ পাদ পেতে চান তিনি। বয়সের ফ্রেম পার করে আসা গুরুত্বপূর্ণ পদ প্রত্যাশী অন্যান্যদের মধ্যে রয়েছে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় আইন অনুষদ ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি শরিফুল হাসান শুভ। যার বর্তমান ২৮ বছর ১১ মাস ১১দিন। সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক শেখ মুহাম্মদ শওকতুজ্জামান সৈকত। তার বয়স ২৯ বছর ৬ মাস ৫ দিন। জিয়া হলের সাবেক সভাপতি আবু সালমান প্রধান। যার বয়স ২৯ বছর ৮ মাস ২২ দিন। সাবেক উপ স্কুলছাত্র সম্পাদক অসীম কুমার বৈদ্য। বয়স ২৯ বছর ৬ মাস ৫ দিন। ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সার্জেন্ট জহরুল হক হল শাখার সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক আমিনুল ইসলাম বুলবুল। যার বর্তমান বয়স ২৯ বছর ২৬ দিন। আমিনুল ইসলাম বুলবুল এ বিষয়ে বলেন, প্রধানমন্ত্রী ২৮ বছর বয়স নির্ধারণ করে দেয়ার পর সেসময় ২৮ বছর ৩৬৪ দিন হিসেবে শীর্ষ পদ দেয়া হয়েছে। সে হিসেবে কাউন্সেলের সময় আমার বয়স ছিলো ২৮ বছর ১ মাস। বয়সের বিষয়টি আমার পদ পেতে বাধা হবে বলে আমি মনে করছি না।
গত বছরের ১১-১২ মে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। সম্মেলনের প্রায় ১ বছর পূর্ণ হয়ে গেলেও সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন ও সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানীর টালবাহানায় পূর্ণাঙ্গ হয়নি কমিটি। কেন্দ্রীয় কমিটি পূর্ণাঙ্গ না হওয়ায় পূর্ণাঙ্গ করা যায়নি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে, ঢাকা মহানগর উত্তর ও দক্ষিণের মত গুরুত্বপূর্ণ ইউনিটগুলোও। বিভিন্ন সময়ে কয়েকবার কেন্দ্রীয় কমিটি গঠনের আশ্বাস দিয়েও সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক কমিটি না দেওয়ায় তা নিয়ে পদ প্রত্যাশীদের মধ্যে ক্ষোভের সৃষ্টি হয়। যার ফলে সময়ক্ষেপণ বন্ধ করে আগামী ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে পূর্ণাঙ্গ কমিটি দিতে ছাত্রলীগ সভাপতি-সাধারণ সম্পাদককে আলটিমেটাম দেয় আওয়ামী লীগের দায়িত্বপ্রাপ্ত নেতারা। পাশাপাশি বিষয়টি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার কঠোর নির্দেশনা ও ক্ষুব্ধ মনোভাবের কথা স্মরণ করিয়ে দেন তারা।
এমন পরিস্থিতিতে গত বৃহস্পতিবার রাতে প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাৎ শেষে কমিটি গঠনে নতুন সময়ের কথা জানাল ছাত্রলীগ। ২১ এপ্রিল কমিটি প্রস্তুত করে প্রধানমন্ত্রীর কাছে জমা দেবেন বলে গণমাধ্যম কর্মীদের কাছে জানান সংগঠনটির সাধারণ সম্পাদক গোলাম রাব্বানী। কমিটি দিতে কালক্ষেপণ করায় যাদের ইতোমধ্যেই নির্ধারিত বয়স শেষ হয়ে গেছে তারা পদে আসতে পারবে কিনা এ বিষয়ে জানতে ছাত্রলীগ সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভনকে একাধিকবার কল দেয়া হলেও তিনি কল ধরেননি। পরে এ বিষয়ে অন্য মাধ্যমে যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তিনি শারীরিকভাবে একটু অসুস্থ আছেন বলে জানান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ