Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার ২৬ মে ২০১৯, ১২ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ২০ রমজান ১৪৪০ হিজরী।

ভারতের লোকসভা নির্বাচনে কোন তারকা কোন দলে

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২০ এপ্রিল, ২০১৯, ৩:১৮ পিএম

২০১৪ সালে ভারতের লোকসভা নির্বাচনে টলিউড এবং বলিউডের একাধিক জনপ্রিয় তারকা বিজয়ী হয়েছিলেন। বর্তমান ক্ষমতাসীন বিজেপি থেকে নির্বাচন করেছিলেন অনেক তারকা। ২০১৯ সালের নির্বাচন এখন চলছে। এ নির্বাচনেও অনেক নতুন ও পুরাতন তারকারা অংশগ্রহণ করছেন। তাৎপর্যের বিষয়, আগের নির্বাচনের চেয়ে এবারের নির্বাচনে তারকাদের উপস্থিতি উল্লেখযোগ্য হারে বৃদ্ধি পেয়েছে।

নির্বাচনের আগে ভারতীয় বেশ কয়েকটি গণমাধ্যমের খবরে বলা হয়েছিল, ক্ষমতাসীন দল বিজেপি থেকে এবারও বেশ কয়েকজন তারকাকে মনোনয়ন দেয়া হতে পারে। আর পুরো বিষয়টি দেখভাল করছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি নিজেই। তবে কয়েকজন তারকা বিজেপি ছেড়ে চলে যাবারও আভাস পাওয়া গিয়েছিল। ইতিমধ্যে প্রখ্যাত অভিনেতা শক্রঘœ সিনহা বিজেপি ত্যাগ করেছেন।

এবারের নির্বাচনে বলিউডের তারকাদের মধ্যে অক্ষয় কুমার, কঙ্গনা রানাওয়াত, প্রীতি জিনতা, নানা পাটেকর, রবিনা ট্যান্ডন, পল্লবী যোশির নির্বাচনে অংশগ্রহণ করার কথা শোনা গিয়েছিল। শেষ পর্যন্ত তাদের কাউকে নির্বাচনী মাঠে দেখা যায়নি। তারপরও কোনো কোনো তারকাকে বিজেপির হয়ে নির্বাচনী ময়দানে প্রচার-প্রচারণা ও নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে দেখা যাচ্ছে। বেশ কিছু তারকা বিজেপির হয়ে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছেন।

অন্যদিকে বিরোধী দল কংগ্রেস থেকেও প্রকাশ করা হয়েছিল একাধিক তারকার নাম। সে অনুযায়ী নির্বাচনী মাঠে ইতোমধ্যে বেশ কয়েকজন তারকা সরব রয়েছেন। তৃণমূল কংগ্রেসও এক্ষেত্রে পিছিয়ে নেই। নির্বাচনের আগে দলটির কেন্দ্র থেকে তারকাদের প্রার্থী করা নিয়ে যে বার্তা দেয়া হয়েছিল বাস্তবেও মাঠ পর্যায়ে তা দেখা যাচ্ছে।
বিভিন্ন দল থেকে এবার বলিউড ও টলিউড থেকে কোন কোন তারকা নির্বাচনে অংশগ্রহণ করছেন তা এক নজরে দেখে নেয়া যাক। বর্তমানে নির্বাচনী মাঠে আছেন হেমা মালিনী, স্মৃতি ইরানি, উর্মিলা মাতন্ডকর, পরেশ রাওয়াল, রাজ রাব্বর, শক্রঘ্ন সিনহা, জয়া প্রদা, প্রিয় দত্ত, মৌসুমী চ্যাটার্জী, রাজপাল যাদব, বাবুল সুপ্রিয়, মুনমুন সেন, শতাব্দী রায়, লকেট চ্যাটার্জী, দেব, মিমি চক্রবর্তী, নুসরাত জাহানরা।

হেমা মালিনী : হেমা মালিনী বলিউড ছেড়ে কয়েক বছর ধরে রাজনীতিতে সরব রয়েছেন। বিজেপির সাংসদ এ অভিনেত্রী। এবার নিজের আসন উত্তর প্রদেশের মথুরা থেকেই প্রার্থী হয়েছে তিনি। ভোটারদের মন জয় করতে কখনো কাস্তে হাতে গম কাটতে নেমে পড়ছেন তিনি। আবার কখনোবা ট্রাক্টার চালিয়ে ভোট চাইতে দেখা যাচ্ছে তাকে।
উর্মিলা মাতন্ডকর : নির্বাচনের কয়েকদিন আগে কংগ্রেসে যোগ দিয়েছেন এই অভিনেত্রী। তিনি উত্তর মুম্বাইয়ে কংগ্রেসের প্রার্থী হয়েছেন। কয়েকদিন আগে শোনা গিয়েছিল নির্বাচনে জয় লাভ করতে তিনি নাকি ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন। তবে সে খবর উড়িয়ে দিয়েছে উর্মিলার পরিবার। নির্বাচনে জেতার জন্য এ অভিনেত্রীকে নানা সময় নানা ধরনের মন্তব্য করতে দেখা যাচ্ছে। তার এসব মন্তব্যে রাজনীতির মাঠ রীতিমতো গরম হয়ে উঠছে।

স্মৃতি ইরানি : তারকা থেকে সরাসরি যেসব তারকা রাজনীতিক হয়ে উঠেছেন তাদের মধ্যে প্রথম সারিতে রয়েছেন স্মৃতি ইরানি। উত্তরপ্রদেশের আমেথি থেকে বিজেপির হয়ে লড়ছেন তিনি। তার প্রতিদ্বন্দ্বী কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। অভিনেত্রী হলেও রাজনীতির মাঠে তিনি প্রতিপক্ষের প্রতি বেশ কঠোর মনোভাব পোষণ করেন। প্রায়ই চাঁছাছোলো ভাষায় রাহুলকে আক্রমণ করতে দেখা যায় অভিনেত্রীকে। গতবার নির্বাচনে প্রায় এক লাখেরও বেশি ভোটে রাহুলের কাছে হেরে গিয়েছিলেন তিনি। তবে এ অভিনেত্রীর দাবি এ বছর অবশ্যই এই ফল ঘুরে যাবে।

শক্রঘ্ন সিনহা : বিজেপির পুরনো সৈনিক শক্রঘ্ন সিনহা বেশ কিছু দিন ধরেই মোদী-অমিত শাহদের বিরুদ্ধে আওয়াজ তুলেছিলেন। ‘চৌকিদার চোর হ্যায়’ বলেও তাকে স্লোগান দিতে দেখা গেছে। বিজেপি থেকে মনোনয়ন না পেয়ে তিনি যোগ দিয়েছেন কংগ্রেসে। বিহারের রাজধানী পাটনা সাহিব আসন থেকে লড়বেন তিনি। তিনি হুঙ্কার দিয়েছেন, নরেন্দ্র মোদিও যদি পটনা সাহিব থেকে নির্বাচনে অংশ নেন, তার বিরুদ্ধে লড়তে প্রস্তুত তিনি। মোদির বিরুদ্ধে লড়তে তিনি আনন্দিত হবেন বলেও মন্তব্য তার।
পরেশ রাওয়াল : বর্ষীয়ান অভিনেতা পরেশ রাওয়াল গুজরাটের পূর্ব আহমেদাবাদ কেন্দ্রের বিজেপির সাংসদ। এবারও এ আসন থেকে লড়বেন বলে জানা গেছে। কয়েকদিন আগে অভিনেত্রী উর্মিলার কংগ্রেসের যোগ দেয়া নিয়ে এই অভিনেতার ঘুম হারাম হয়ে যায়। উর্মিলাকে নিয়ে বাজে মন্তব্য করতেও দ্বিধা করেননি। এ মন্তব্য করে ফেঁসে যান তিনি। উর্মিলাও তার কড়া জবাব দিয়ে তাকে তুলোধুনা করেছেন। অবশ্য পর্দায় তারা একসঙ্গে বেশ কয়েকটি চলচ্চিত্রে অভিনয় করলেও রাজনীতির ময়দানে দুজন একে অপরের প্রতিপক্ষ হয়ে দাঁড়িয়েছেন।
জয়প্রদা : কয়েকবার দল পরিবর্তন করে কিছুদিন আগে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন এক সময়ের লাস্যময়ী নায়িকা জয়প্রদা। এ নির্বাচনে তিনি উত্তর প্রদেশের রামপুর থেকে নির্বাচন করবেন।

রাজ বাব্বর : উত্তরপ্রদেশের ফতেপুর সিক্রি থেকে নির্বাচনী যুদ্ধে নেমেছেন এই অভিনেতা। তিনি অবশ্য রাজনীতির মাঠে নতুন নয়। এর আগে তিনবার কংগ্রেসের হয়ে নির্বাচনে জয় লাভ করে সংসদে বসেছেন তিনি।
মৌসুমী চ্যাটার্জী : মৌসুমী চ্যাটার্জী কংগ্রেস ছেড়ে এ বছর যোগ দিয়েছেন বিজেপিতে। মুম্বাই অথবা কলকাতার যে কোনো একটি আসন থেকে নির্বাচনে অংশ নেবেন তিনি।
প্রিয়া দত্ত : বলিউড সুপারস্টার সঞ্জয় দত্তের বোন প্রিয়া দত্ত মুম্বাই থেকে কংগ্রেসের প্রার্থী হওয়ার কথা রয়েছে। বাবার পথ ধরেই রাজনীতিতে আগমন তার। প্রিয়ার বাবা দীর্ঘদিন ধরে কংগ্রেসের রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত ছিলেন। তিনি মনমোহন সিং সরকারের ‘যুব ও ক্রীড়া মন্ত্রনালায়’-এর কেবিনেট মন্ত্রী হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন।
রাজপাল যাদব : বলিউড অভিনেতা রাজপাল যাদব কিছুদিন আগে কংগ্রেসে যোগ দিয়েছেন। তিনি নিউ দিল্লির উত্তর-পূর্ব আসন থেকে নির্বাচনে অংশগ্রহণ করতে পারেন। সে ক্ষেত্রে তার প্রতিদ্বন্দ্বী হবেন আরেক হেভিওয়েট প্রার্থী মনোজ তিওয়ারি।

বাবুল সুপ্রিয় : পশ্চিমবঙ্গের আসাম থেকে বিজেপির প্রার্থী হয়েছেন সঙ্গীতশিল্পী বাবুল সুপ্রিয়। তিনি এই আসনের বর্তমান এমপি। একই সঙ্গে কেন্দ্রীয় মন্ত্রীও বটে।
মুনমুন সেন : সূচিত্রা সেনের মেয়ে এবং টালিগঞ্জের অভিনেত্রী মুনমুন সেন আসানসোল থেকে তৃণমূলের হয়ে প্রতিদ্বন্দ্বীতা করবেন।
শতাব্দী রায় : তৃতীয়বারের মতো বীরভূম থেকে তৃণমূলের প্রার্থী হয়েছেন জনপ্রিয় এ অভিনেত্রী। এই আসনে গত ১০ বছর ধরে জয়ী হয়ে আসছেন তিনি।
লকেট চ্যাটার্জী : পশ্চিমবঙ্গের তারকা অভিনেত্রী লকেট চ্যাটার্জী এবার বিজেপির হয়ে লড়ছেন। এক সময়ের এই তৃণমূল নেত্রী হুগলি থেকে বিজেপির হয়ে নির্বাচন করছেন।
দেব : পশ্চিমবঙ্গের নির্বাচনী ময়দানকে এবার তারার মেলা বলা যেতেই পারে। এই রাজ্যে তৃণমূল থেকে লড়ছেন অন্তত পাঁচজন সুপারস্টার। এরমধ্যে অনতম দেব। গতবারের মতো এবারও এই অভিনেতা ঘাটাল থেকে প্রার্থী হয়েছেন। এই আসনটিতে বর্তমান সাংসদও তিনি।

মিমি চক্রবর্তী : পশ্চিমবঙ্গের দিদিমনী মমতার নতুন সেনা হিসেবে কিছুদিন আগে তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন এই অভিনেত্রী। তিনি যাদবপুর থেকে প্রার্থী হয়েছেন। নির্বাচনী প্রচারণা চালাতে সভা-সমাবেশ থেকে মাঠে নেমে ফুটবল খেলতেও দেখা যাচ্ছে এই অভিনেত্রীকে। নিজের আসনে ভোটের দিন রোজা রাখারও ঘোষণা দিয়েছেন তিনি।
নুসরাত জাহান : টলিউডের এ সময়ের জনপ্রিয় নায়িকা নুসরাত জাহান এবারই প্রথমবারের মতো মমতার তৃণমূলের হয়ে নির্বাচনে লড়াই করছেন। তিনি বসিরহাট থেকে নির্বাচন করছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বলিউড


আরও
আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ