Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার ১৯ মে ২০১৯, ০৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৩ রমজান ১৪৪০ হিজরী।

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয় সন্তান চায় বাবাকে এই পৃথিবীতে বাঁচিয়ে রাখতে

কুবি সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২০ এপ্রিল, ২০১৯, ৪:০৫ পিএম

বাবা নজির আহমেদ ভূঁইয়া দীর্ঘদিন ধরে ব্রেইন টিউমারে আক্রান্ত। তার চিকিৎসার জন্য প্রায় পনের লাখ টাকা প্রয়োজন। দ্রুত চিকিৎসা করানো না হলে হয়তো তাকে বাঁচানো যাবে না। বাবার চিকিৎসার জন্য সহযোগিতার চেয়ে হাত বাড়িয়েছেন কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যান বিভাগের ২০১৩-১৪ শিক্ষাবর্ষের মেধাবী শিক্ষার্থী নকিব
আহমেদ ভূঁইয়া ও তার পরিবার। নকিব চায় তার বাবা যেন আরো কিছুদিন এই পৃথিবীতে বেঁচে থাকে।

নকিবের বাবা বর্তমানে বাংলাদেশ স্পেশালাউজড হসপিটালে অধ্যাপক ডা. মোঃ রেজাউল হকের তত্বাবধানে চিকিৎসারত আছেন। কর্তব্যরত চিকিৎসকরা জানিয়েছেন, নকিবের বাবা সংকটাপন্ন অবস্থায় রয়েছেন। ৫-৭ দিনের মধ্যে তার অপারেশন করানো না হলে হয়তো তাকে বাঁচানো যাবে না। আর ভারতে নিয়ে যে উন্নত চিকিৎসা দিবে সেখানে নেওয়ার মতোও হাতে সময় নেই। তারা আরও জানান, তার অপারেশন এবং অপারেশন পরবর্তী সময়ে চিকিৎসার জন্য প্রায় ১৫ লাখ টাকা ব্যয় হবে।
জানা যায়, কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী নকিব আহমেদ ভূঁইয়ার বাড়ি কসবা উপজেলার মনিয়ন্দ গ্রামে। তার বাবা ঢাকা স্টক এক্সেঞ্জ এ চাকরি করতেন। কিন্তু বর্তমানে শারীরিকভাবে অসুস্থ থাকার কারণে চাকরি ছেড়ে দিতে হয়েছে। এমতাবস্থায় তার পরিবারের পক্ষে ১৫ লাখ টাকা সংগ্রহ করা অসম্ভব। তিনি মাস খানেক আগে অসুস্থ হওয়ার পরে ডাক্তার বলে স্ট্রোক করেছে কিন্তু দিন দিন অসুস্থ হয়ে পড়লে এম আর আই করাতে ব্রেইন টিউমার ধরা পড়ে।

নকিব এখনও তার পড়াশুনা শেষ করতে পারেনি। হঠাৎ তার উপরে এতোগুলো টাকার চাপ পড়ায় সেও দিশেহারা। নকিব বলেন, আজ আমার বাবা মরণব্যাধীতে আক্রান্ত। কিন্তু আমি তার ছেলে হয়ে কিছুই করতে পারছিনা। আমি ছেলে হয়ে আমার বাবার চিকিৎসার টাকা না যোগাড় করতে পারলে সন্তান হিসেবে কি দায়িত্ব পালন করতে পারলাম। তিনি সমাজের দানশীল ব্যক্তিদের তার বাবার চিকিৎসার সাহায্যে এগিয়ে আসার অনুরোধ জানান।
সাহায্য পাঠানোর ঠিকানাঃ বিকাশ নাম্বার ০১৫১৬-৭১১৪৫৬ এবং রকেট নাম্বার ০১৫২১-২৩১০১৯০



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: কুবি

২৬ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ