Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৪ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

দুই প্রফেসরের আগ্রায়ন

ঢাবি সাংবাদিকতা বিভাগ

বিশ্ববিদ্যালয় রিপোর্টার : | প্রকাশের সময় : ২১ এপ্রিল, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গণযোগাযোগ ও সাংবাদিকতা বিভাগের প্রফেসর আহাদুজ্জামান মো. আলী ও প্রফেসর আখতার সুলতানার বিদায় উপলক্ষ্যে আগ্রায়নের আয়োজন করে বিভাগটি। গতকাল শনিবার বিশ্ববিদ্যালয়ের টিএসসি মিলনায়তনে এ অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। বিভাগের চেয়ারপার্সন প্রফেসর ড. কাবেরী গায়েনের সভাপতিত্বে এতে প্রো-ভিসি (প্রশাসন) প্রফেসর ড. মুহাম্মদ সামাদ, সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন প্রফেসর ড. সাদেকা হালিম, সাবেক প্রধান তথ্য কমিশনার প্রফেসর ড. গোলাম রহমানসহ বিভাগের সাবেক ও বর্তমান শিক্ষার্থীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন। অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন বিভাগের প্রফেসর ড. রোবায়েত ফেরদৌস। অনুষ্ঠানে কাবেরী গায়েন বলেন, আমাদের বিভাগে সাধারণত ‘বিদায় কথাটি ব্যবহার না করে আমরা ‘অগ্রায়ন’ শব্দ ব্যবহার করি। কারণ একজন শিক্ষক তার বিভাগ থেকে কখনো বিদায় নেয় না। তারা জীবনে সামনের দিকে অগ্রসর হন।
অনুষ্ঠানে সারাবাংলা ডট নেটের সম্পাদক সৈয়দ ইশতিয়াক রেজা বলেন, এ বিভাগের শিক্ষক আহাদ স্যার ও আখতার সুলতানা ম্যাম দুজনই ছিলেন সুন্দর মনের মানুষ। আমরা তাদের থেকে সাংবাদিকতার বিভিন্ন দিক ও ভবিষ্যত সম্পর্কে শিখেছিলাম যা এখন আমাদের বাস্তব জীবনে কাজে দিচ্ছে। আমরা আমাদের এ শিক্ষকদের দীর্ঘায়ু কামনা করছি। সাবেক প্রধান তথ্য কমিশনার প্রফেসর ড. গোলাম রহমান বলেন, বিভাগ থেকে অবসর নেয়ার মাধ্যমে আখতার সুলতানা ও আহাদুজ্জামান খাঁচা থেকে মুক্ত হচ্ছেন। তারা এখন আরো বেশি কিছু দেশকে দিতে পারবেন। আগ্রায়নপ্রাপ্ত শিক্ষক প্রফেসর আহাদুজ্জামান বলেন, আমি নিজেকে শিক্ষক হিসেবে মনে করি না। আজীবন ছাত্রই রয়ে গেছি আমি। শিক্ষার্থীদের শেখাতে গিয়ে আমি অনেক কিছু শিখেছি। আমি কখনোই শিক্ষকসুলভ ছিলাম না। শেখাটা এখনো আমার অব্যাহত আছে।
অনুষ্ঠানের শুরুতে দুই শিক্ষককে উত্তরীয় পরিয়ে দেন কাবেরী গায়েন। আগ্রায়নপ্রাপ্ত শিক্ষকদের বেলীফুল দিয়ে শুভেচ্ছা জানান বিভাগের লেকচারার তাহমিনা হক দিনা ও মো. আসাদুজ্জামান কাজল, সম্মাননা ক্রেস্ট তুলে দেন বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. মফিজুর রহমান ও কাবেরী গায়েন। অনুষ্ঠানে ২৩ টি প্রবন্ধ ও আহাদুজ্জামান মো. আলী ও আখতার সুলতানার দুটি সাক্ষাতকার সমৃদ্ধ ‘আগ্রায়ন জার্নাল’ উন্মোচন করা হয়। অনুষ্ঠান শেষে আয়োজন করা হয় এক মনোজ্ঞ সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: প্রফেসরের আগ্রায়ন

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ