Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার ১৯ মে ২০১৯, ০৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৩ রমজান ১৪৪০ হিজরী।
শিরোনাম

ঢাকার চার নদীকে আগের অবস্থায় ফেরাতে বদ্ধপরিকর সরকার

মতবিনিময়ে খালিদ মাহমুদ চৌধুরী

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২১ এপ্রিল, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

নৌপরিবহন প্রতিমন্ত্রী খালিদ মাহমুদ চৌধুরী বলেছেন, রাজধানীর ঢাকায় বয়ে যাওয়া চার নদীকে আগের অবস্থায় ফেরাতে বদ্ধপরিকর সরকার। এজন্য নদী থেকে দখলদারদের উচ্ছেদ করা হচ্ছে। আবারো এসব নদীর স্বচ্ছ পানি পাবে রাজধানীবাসী।
গতকাল শনিবার জাতীয় প্রেসক্লাবে ধরিত্রী বাংলাদেশের ১৬ বছর পূর্তি উপলক্ষে ‘পৃথিবী আমার, দেশ আমার, সমাজ আমার, কাজ আমার’ শীর্ষক এক মতবিনিময় সভায় তিনি এ কথা বলেন।
প্রতিমন্ত্রী বলেন, আমাদের বোধ জাগ্রত না হলে ধরিত্রীকে বাঁচানো যাবে না। নিজেকে সচেতন হতে হবে, অন্যকে সচেতন করতে হবে। আমরা বহুমাত্রিক সমস্যা মোকাবেলা করে এগিয়ে যাচ্ছি। নদী দখলদাররা এমনভাবে দখল করে রেখেছেন যে ছাড়তে চান না। এ জন্য তারা প্রতিনিয়ত ফোন করে নানা কথা ও আবদার করে বসেন। তবে সরকার পদক্ষেপ নিয়েছে নদীগুলোকে আবারো আগের অবস্থায় নিয়ে যেতে। আগামী ১০ বছর পর রাজধানীর পাশ দিয়ে বয়ে যাওয়া নদী থেকে স্বচ্ছ পানি পাবে রাজধানীবাসী। এ জন্য নদীকে দখলমুক্ত করার পাশাপাশি নানা পদক্ষেপ নেয়া হয়েছে।
খালিদ মাহমুদ বলেন, দেশটা যখন সুন্দর পরিবেশের মধ্য দিয়ে যাচ্ছিল, অর্থনীতি গতি পাচ্ছিল, তখন ঘাতকরা বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করে। জাতির পিতার স্বপ্ন ও আদর্শকে তারা বিকৃতি করে। অনেক পরে আবারো দেশের মানুষ একটা আস্থার জায়গা পেয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার ওপর আস্থা রেখেছেন। এখনই সময় আমাদের এগিয়ে যাওয়ার, দেশকে এগিয়ে নেয়ার। সেভাবেই শেখ হাসিনা বহুমাত্রিক সমস্যা মোকাবেলা করে দেশকে এগিয়ে নিতে কাজ করছেন। সভাপতির বক্তব্যে জাতীয় অধ্যাপক ড. আনিসুজ্জামান বলেন, পরিবেশ সম্পর্কে আমরা মোটেও সচেতন নই। আমাদের সচেতন হতে হবে, অন্যদের সচেতন করতে হবে। সচেতনতার জন্য সবাইকে কাজ করতে হবে।
ধরিত্রী বাংলাদেশ সম্পাদক হারুন-অর-রশিদের পরিচালনায় আয়োজিত অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন- ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়র (ঢাবি) সাবেক উপাচার্য অধ্যাপক ড. আ আ ম স আরেফিন সিদ্দিক, বিশ্ব শিক্ষক ফেডারেশনের সভাপতি মাহফুজা খানম, আশা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ড. ডালেম চন্দ্র বর্মণ, মিডিয়া ব্যক্তিত্ব নওয়াজীশ আলী খান, বরিশাল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য এ এস এম ইনামুল হক, শিক্ষাবিদ অজয় কুমার রায়।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন