Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার ২০ মে ২০১৯, ০৬ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৪ রমজান ১৪৪০ হিজরী।

বার্সায় আসছেন আয়াক্স তারকা!

স্পোর্টস ডেস্ক : | প্রকাশের সময় : ২১ এপ্রিল, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

গুঞ্জন রয়েছে নানা ধরণের। আয়াক্স অধিনায়ক মাতাইস দি লিটকে বার্সেলোনার সঙ্গে পেতে চাইছে জুভেন্টাস, ম্যানচেস্টার সিটি, বায়ার্ন মিউনিখ, রিয়াল মাদ্রিদসহ বেশ কিছু নামীদামী দল। কিন্তু শেষ পর্যন্ত কাতালান ক্লাবেই নাম লেখাচ্ছেন হালের অন্যতম এ সেরা ডিফেন্ডার।
ইএসপিএন সূত্র মতে, দি লিটের সঙ্গে আলোচনা প্রায় সম্পূর্ণ হয়েছে। গ্রীষ্মের দলবদলেই বার্সেলোনাতে যোগ দেবেন তিনি। তবে তবুও দুশ্চিন্তার উড়িয়ে দিতে পারছে না বার্সা সমর্থকরা। কারণ গত মৌসুমেও অ্যাতলেতিকো মাদ্রিদের ফরাসী তারকা আতোঁয়া গ্রিজম্যান অনেকটাই নিশ্চিত ছিলেন। কিন্তু শেষ মুহূর্তে এ চুক্তি থেকে ফিরে আসে কাতালানরা।
দি লিটকে পেতে দৌড়ে বেশ এগিয়ে গিয়েছিল জুভেন্টাস ও বায়ার্ন। নেদারল্যান্ডসের সংবাদ মাধ্যমগুলো এমন সংবাদই প্রকাশ করেছিল। তবে একটি সূত্র জানিয়েছিল নেদারল্যান্ডসের এ তারকা শুধু বার্সেলোনার কথা শুনতে চান। তবে নানা গুঞ্জনে বার্সেলোনাকে শুরু থেকেই সতর্ক করে আসছেন ফ্রাঙ্কি দি ইয়ং। আগামী মৌসুমে তিনি যোগ দিচ্ছেন কাতালান ক্লাবে। সতীর্থ দি লিটকে খুব করেই স্পেনে চাইছেন এ মিডফিল্ডার।
বার্সেলোনার সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছেন দি লিটের এজেন্ট মিনো রাইওলা, যিনি দি ইয়ংয়ের এজেন্ট ছিলেন। আগামী গ্রীষ্মে ৭৫ মিলিয়ন ইউরোর বিনিময়ে কাতালান ক্লাবে নাম লেখাচ্ছেন এ মিডফিল্ডার। তবে সূত্র মতে, দি লিটকে পেতে তার চেয়ে আরও ৫ মিলিয়ন ইউরো বেশি খরচ করতে হবে কাতালানদের। এখন দেখার বিষয় এ অর্থ কীভাবে প্রদান করে ক্লাবটি।
উয়েফার ফিন্যান্সিয়াল ফেয়ার প্লে (এফএফপি) নীতি অনুযায়ী কোন ক্লাব ১০০ মিলিয়ন ইউরোর বেশি ক্ষতিতে থাকতে পারবে না। তাই ঘাটতি পোষাতে বাধ্য হয়েই বেশ কিছু খেলোয়াড় বিক্রি করতে হবে দলটিকে। এ তালিকায় নাম রয়েছে ইভান রাকিতিচ, স্যামুয়েল উমতিতি, থমাস ভারমালেনসহ রয়েছে আরও বেশ কিছু নাম।
এছাড়াও বর্তমান ফুটবল বিশ্বে সবচেয়ে খরুচে ক্লাবটিই বার্সেলোনা। গত দুই মৌসুমে খেলোয়াড় কিনতেই ৫০০ মিলিয়ন ইউরোর বেশি খরচ করেছে তারা। এছাড়া খেলোয়াড়দের বেতন ভাতাতেও শীর্ষে তারা। এক লিওনেল মেসিকেই তারা বেতন দেয় মাসিক ৮.৩ মিলিয়ন ইউরো। সর্বোচ্চ বেতন পাওয়া খেলোয়াড়দের তালিকার সেরা দশে বার্সেলোনারই ১০ জন। লুইস সুয়ারেজ ২.৯ মিলিয়ন ইউরো এবং ফিলিপ কৌতিনহো ২.৩ মিলিয়ন ইউরো বেতন পান।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন