Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ০৬ কার্তিক ১৪২৬, ২২ সফর ১৪৪১ হিজরী

রাজকুমার রাও ও কঙ্গনার বিরুদ্ধে চিকিৎসক সংগঠনের অভিযোগ

বিনোদন ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২১ এপ্রিল, ২০১৯, ১১:৩৩ এএম

দিন কয়েক আগে মুক্তি পেয়েছে রাজকুমার রাও ও কঙ্গনা রানাওত অভিনীত ‘মেন্টাল হ্যায় ক্যায়া' সিনেমার পোস্টার। এই পোস্টারে মানসিক রোগের সমস্যাকে ছোট করে দেখানো হয়েছে এই অভিযোগ তুলে গতকাল ইন্ডিয়ান সাইকিয়াট্রিক সোসাইটি বা আইপিএস সেন্ট্রাল বোর্ড অফ ফিল্ম সার্টিফিকেশন বা সিবিএফসিকে চিঠি পাঠিয়েছে। সিবিএফসি-এর প্রধান প্রসূন জোশীকে সম্বোধন করে লেখা ওই চিঠিতে আইপিএস জানিয়েছে, একাধিক বিষয় নিয়েই তাঁদের আপত্তি রয়েছে। তাঁরা জানাচ্ছেন, কারণ একতা কাপুরের বালাজি মোশন পিকচার্সের নির্মিত এই চলচ্চিত্রটি মানসিক স্বাস্থ্যসেবা আইন, ২০১৭ -এর অনেক বিভাগই লঙ্ঘন করে।

চিঠিটিতে লেখা হয়েছে, “আমরা চলচ্চিত্রের শিরোনামটি নিয়ে গুরুতর আপত্তি জানাচ্ছি, এটি মানসিক ব্যাধি এবং যারা মানসিক অসুস্থতা ভোগ করে, তাঁদের প্রতি অবমাননাকর, অরুচিশীল এবং অমানবিক। আমরা মানসিক স্বাস্থ্য পরিষেবা ব্যবহারকারীদের ব্যঙ্গ ও অবমাননাকর ওই চলচ্চিত্রের নাম অপসারণের দাবি জানাচ্ছি।”

আইপিএস জানায়, দেশের প্রত্যেক নাগরিক মানসিক স্বাস্থ্যসেবা আইন ২০১৭-এর আওতায় পরিচালিত হন এবং এই কারণেই মানসিক স্বাস্থ্য সম্পর্কে সচেতন হওয়া এবং এর সাথে সম্পর্কিত স্টিগমাগুলিকে হ্রাস করার আইনি বাধ্যবাধকতা রয়েছে। চলচ্চিত্রটি এই আইনের লঙ্ঘন করেছে বলে অভিযোগ তুলে সিনেমার দলের থেকে বিভিন্ন বিষয়ও চেয়ে পাঠানো হয়েছে সেন্সর করার জন্য।

ওই চিঠিতে বলা হয়েছে, “সেন্ট্রাল বোর্ড অফ ফিল্ম সার্টিফিকেশন একটি অর্ধ বিচার বিভাগীয় সংস্থা হিসাবে নাগরিকদের জন্য একটি উদাহরণ স্থাপন করতে এবং সমৃদ্ধ ভারতীয় ঐতিহ্য ও সংস্কৃতির অভিভাবক হওয়ার জন্য আইনিভাবে দৃঢ়প্রত্যয়ী। আমরা মানসিক ব্যাধিযুক্ত ব্যক্তিদের অধিকার লঙ্ঘনকারী যে কোনও ঘটনাক্রমকে সেন্সর করারও দাবি রাখি। আমরা এই চিঠিকে বর্তমানে বা ভবিষ্যতে, সিবিএফসি এর আওতায় থাকা কোনও ঘটনা যা মানসিক স্বাস্থ্য সম্পর্কিত তার প্রেক্ষিতে আইনি সতর্কতা হিসাবেই বিবেচনা করি।"

যদিও এই চিঠির উত্তরে কোনও মন্তব্য করেননি বালাজি মোশন পিকচার্সের প্রতিনিধিরা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: বলিউড

২১ অক্টোবর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন