Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ২৬ আগস্ট ২০১৯, ১১ ভাদ্র ১৪২৬, ২৪ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।

লক্ষ্মীপুরে স্ত্রী’র স্বীকৃতি চাওয়ায় মারাত্মক অগ্নিদগ্ধ নারীকে ঢাকায় প্রেরণ

লক্ষ্মীপুর জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২২ এপ্রিল, ২০১৯, ১২:৪০ পিএম

লক্ষ্মীপুরে শাহিনুর আক্তার (২৪) নামে মারাত্মক অগ্নিদগ্ধ নারীকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ঢাকায় প্রেরণ করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় পুলিশ জিজ্ঞাসাবাদের জন্য দুইজনকে আটক করেছে।

রবিবার রাতে ঐ নারীকে অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
অগ্নিদগ্ধ ওই নারীর অভিযোগ, স্ত্রীর স্বীকৃতি না দিয়ে সালাহ উদ্দিন (ভিকটিমের দাবীকৃত স্বামী) তার শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়।
জানা গেছে, অগ্নিদগ্ধ শাহিনুর চট্রগামের রাউজানের নতুন হাট এলাকার সোনাগাজী গ্রামের জাফর আলমের মেয়ে। রবিবার সন্ধায় জেলার কমলনগর উপজেলার চর ফলকন ইউনিয়নের আইয়ুবনগর গ্রামের একটি সয়াবিন ক্ষেত থেকে তাকে অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় উদ্ধার করে সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।
খবর পেয়ে হাসপাতালে ছুটে যান লক্ষ্মীপুর পুলিশ সুপার আ স ম মাহাতাব উদ্দিন, অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক (সার্বিক) মোহাম্মদ সফিউজ্জামান ভূঁইয়া ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট রকিবুজ্জামান।

জানা গেছে, শাহিনুর আক্তার স্ত্রীর দাবী নিয়ে চট্টগ্রাম থেকে লক্ষ্মীপুরের কমলনগর উপজেলার চরফলকন আইয়ুব নগরের মহর আলীর ছেলে রিক্সাচালক সালাহ উদ্দিনের কাছে আসেন। শুক্রবার (১৯ এপ্রিল) বিকাল থেকে ওই এলাকার গণ্যমান্য ব্যক্তিদের দ্বারে দ্বারে ঘুরে বিষয়টি জানিয়ে সমাধানের আশ্বাস চান। কিন্তু কেউই তার অভিযোগ আমলে নেননি।
শাহিনুরের দাবী মুঠোফোনে সম্পর্ক ও পরে তাদের বিয়ে হয়। দেড় বছর আগে চট্টগ্রামে বিয়ে হয় তাদের। পরে শাহিনুর জানতে পারেন সালাহ উদ্দিন বিবাহিত এবং তার স্ত্রী ও দুই সন্তান রয়েছে।

রবিবার (২১ এপ্রিল) বিকালে ওই নারী রিক্সা চালক সালাহ উদ্দিনের বাড়িতে গেলে বাক বিতন্ডা হয়। এক পর্যায়ে সে ওই বাড়ি থেকে বের হয়ে যান।
বিচারদাবীতে শাহিনুর বেগম স্থানীয় ইউপি সদস্যর কাছে গেলে তিনি শাহিনুরকে বিয়ের কাগজপত্র নিয়ে আসতে বলেন।
এর কিছুক্ষণ পরেই সালাহ উদ্দিনের বাড়ির পার্শ¦বর্তী একটি সয়াবিন ক্ষেতে শাহিনুরকে অগ্নিদগ্ধ অবস্থায় পাওয়া যায়। পরে স্থানীয়রা তাকে উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় একটি ক্লিনিকে এবং পরে রাতে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন।

সদর হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার ডা. আনোয়ার হোসেন বলেন, শাহিনুরের শরীরের ৪০ শতাংশ পুড়ে গেছে। তার অবস্থা আশঙ্কাজনক হওয়ায় ঢাকা মেডিকেলে প্রেরণ করা হয়েছে।

চিকিৎসাধীন অবস্থায় শাহিনুর অভিযোগ করে জানিয়েছিলেন, স্ত্রীর স্বীকৃতি দিবে না বলে কেরোসিন দিয়ে তার শরীরে আগুন ধরিয়ে দেয় সালাহ উদ্দিন।
তবে এ বিষয়ে বক্তব্য জানতে বিভিন্নভাবে চেষ্টা করেও অভিযুক্ত সালাহ উদ্দিনকে পাওয়া যায় নি।

লক্ষ্মীপুর পুলিশ সুপার আ স ম মাহাতাব উদ্দিন বলেন, দগ্ধ ওই নারীকে পুলিশের তত্ত্বাবধানে ঢাকা মেডিকেলে প্রেরণ করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত চলছে। জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ইতোমধ্যে ২ জনকে আটক করা হয়েছে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন