Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার ২১ মে ২০১৯, ০৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৫ রমজান ১৪৪০ হিজরী।

মহেশপুরে ৭ম শ্রেণীর ছাত্রী ধর্ষণের অভিযোগে গ্রাম্য ডাক্তার আটক

মহেশপুর(ঝিনাইদহ) উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২২ এপ্রিল, ২০১৯, ১:১৯ পিএম

মহেশপুর উপজেলার সেজিয়া মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের ৭ম শ্রেণীর এক ছাত্রী কে ধর্ষণের ঘটনায় এক গ্রাম্য ডাক্তার কে আটক করা হয়েছে।ধর্ষিতা স্কুল ছাত্রীকে চিকিৎসার জন্য চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ধর্ষিতার পিতা সেজিয়া খোদাবন্দি পাড়ার আব্দুল আজিজ জানান, ২১এপ্রিল রোববার সকালের তার মেয়ের পেটে ব্যথা শুরু হলে সেজিয়া বাজারে হাতুড়ে ডাক্তার সাইফুল ইসলামের ফামেসীতে ্ঐষধ ক্রয় করতে যান।ডাক্তার তাকে একা পেয়ে ঘুমের ওষুধ দিলে সে ডাক্তারের চেম্বারেই ঘুমিয়ে পড়ে। তার মেয়ের জ্ঞান ফিরলে সে দেখতে পায় তার সারা শরীরে রক্ত ও যৌনঙ্গ দিয়ে রক্ত বের হচ্ছে।
আব্দুল আজিজ আরো জানান, মেয়ের নিকট বিস্তারিত শুনে তাকে দ্রুত চিকিৎসার জন্য চুয়াডাঙ্গা সদর হাসপাতালে ভর্তি করেন। ধর্ষিতার পিতা আব্দুল আজিজ বাদী হয়ে রাতেই মহেশপুর থানায় একটি ধর্ষণ মামলা দায়ের করেন।

মামলার তদন্ত কারী কর্মকর্তা এস আই শাহিন জানান, রাতেই ধর্ষণের অভিযোগে নেপা ইউনিয়নের সেজিয়া খোদাবন্দি পাড়ার নুর মোাম্মদের ছেলে গ্রাম্য ডাক্তার সাইফুল ইসলাম কে আটক করা হয়েছে। উল্লেখ্য ধর্ষিতা ছাত্রীটি ধর্ষক সাইফুল ইসলামের চাচাত বোন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ধর্ষণ


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ