Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার ১৯ মে ২০১৯, ০৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৩ রমজান ১৪৪০ হিজরী।
শিরোনাম

শৈলকুপায় মায়ের চড়ে শিশুর মৃত্যু

ঝিনাইদহ জেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২২ এপ্রিল, ২০১৯, ৩:২০ পিএম

ঝিনাইদহের শৈলকুপা পৌর এলাকার হাজামপাড়া গ্রামে রোববার সকালে মায়ের চড় থাপ্পড়ে জান্নাতি খাতুন (৫) নামে এক শিশুর মৃত্যু হয়েছে। ভাত না খাওয়ায় মা চড় মারলে জান্নাতি মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। জান্নাতি খাতুন ওই গ্রামের বকুল হোসেনের মেয়ে। পুলিশ তাকে গ্রেফতার করেছে। ঝিনাইদহের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (শৈলকুপা সার্কেল) তারেক আল মেহেদি জানান, সকালে মা আলেয়া বেগম মেয়েটিকে ভাত খাওয়াচ্ছিল। মেয়েটি ভাত না খাওয়ায় তাকে মারধর করে মা আলেয়া বেগম। এতে গুরুতর অসুস্থ হয়ে গেলে তাকে শৈলকুপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে এলে চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষনা করেন। শিশুটির মুখমন্ডলে আঘাতের চিহ্ন রয়েছে। এ ঘটনায় শিশুটির মা আলেয়া বেগমকে আটক করেছে পুলিশ। এই হৃদয় বিদারক ঘটনায় হাজামপাড়া গ্রামে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। মৃত শিশুটিকে নিয়ে যখন পরিবারের শোকের ছায়া বিরাজ করছে, তখন সন্তান হত্যার দায়ে মমতাময়ী মা উঠেছে শ্রীঘরে।
মেম্বর পদে ভোট করতে চাওয়ায়
কি খুন হয় জামিরুল ?
ঝিনাইদহ জেলা সংবাদদাতাঃ
ঝিনাইদহে হার্ডওয়ার ব্যবসায়ী জামিরুল ইসলাম হত্যার মোটিভ উদ্ধার হতে চলেছে। এই মামলায় মিলন হোসেন নামে একজনকে গ্রেফতার করার পর পুলিশ ক্লু উদ্ধারের চেষ্টা করছে। একাধিক সুত্রে জানা গেছে, আগামী নির্বাচনে ওয়ার্ড মেম্বর পদে ভোট করার ইচ্ছা পাষেন করেন নিহত জামিরুল। এ ঘটনায় ক্ষুদ্ধ হয় বর্তমান মেম্বর গোলাপ ও তার ছেলে উজ্জল। তাদের চক্রান্তে জামিরুল খুন হতে পারে এমনটি মনে করছে জামিরুলের পরিবার। পুলিশ গোলাপ এবং তার ছেলে উজ্জলকে গ্রেফতারের জন্য তার বাড়িতে অভিযান চালিয়েছে। কিন্তু তাদের গ্রেফতার করতে পারেনি। এ তথ্য জানান ঝিনাইদহ সদর থানার ওসি মিজানুর রহমান খান। জামিরুলের স্বজনরা অভিযোগ করেছেন, এর আগেও গোলাপ ও তার ছেলে ইট নিক্ষেপ করে জামিরুলকে আঘাত করার চেষ্টা চালায়। এ নিয়ে গ্রামে বিচার শালিসও হয়। এদিকে শনিবার রাত সাড়ে ৮ টার দিকে সদর উপজেলার জিয়ানগর এলাকা থেকে মিলন নামে একজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। মিলন হোসেন কুবিরখালী গ্রামের বাবুল হোসেনের ছেলে। ঘটনার দিন একই মটরসাইকেলে মিলন ও জামিরুল বাড়ি ফিরছিলেন। উল্লেখ্য, শুক্রবার রাতে বাড়ি ফেরার পথে দুর্বৃত্তরা জামিরুলের মাঠায় ও বুকে গুলি চালিয়ে হত্যা করে। হত্যাকান্ডে সে জড়িত সন্দেহে নিহতের পরিবার থানায় মামলা দিলে পুলিশ তাকে গ্রেফতার করে বলে ওসি মিজানুর রহমান জানান।

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: শিশুর মৃত্যু

৮ ফেব্রুয়ারি, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ