Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ০৬ কার্তিক ১৪২৬, ২২ সফর ১৪৪১ হিজরী

চৌকিদার চোর হ্যায়

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৩ এপ্রিল, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

‘চৌকিদার চোর হ্যায়’ রাফাল চুক্তিতে দুর্নীতির অভিযোগ তুলে প্রায় প্রতিটি জনসভায় এই ভাষাতেই মোদীকে আক্রমণ করছেন রাহুল গান্ধী। কিন্তু সেই স্লোগান নিয়েই এ বার বিপাকে কংগ্রেস সভাপতি। নিজের বক্তব্য সুপ্রিম কোর্টের রায়ের সঙ্গে জুড়ে দেওয়ার অভিযোগে সোমবার শীর্ষ আদালতে দুঃখপ্রকাশ করতে হল তাকে। বিজেপির দায়ের করা আদালত অবমাননার জেরে লিখিত বিবৃতিতে রাহুল আদালতে জানিয়েছেন, ‘রাজনৈতিক প্রচারের উত্তেজনা’তেই এই ভুল করে ফেলেছেন।
গতকাল সোমবার এক টুইটবার্তায় রাহুল গান্ধী লিখেছেন, ২৩ মে জনতার আদালতেই বিচার হয়ে যাবে পদ্মের ছাপধারী চৌকিদারই আসলে চোর। ন্যায়বিচার হবেই। ওই টুইটবার্তায় তিনি লেখেন, গরিবদের টাকা লুট করে নিজের ধনী বন্ধুদের লাভবান করেন যিনি সেই চৌকিদার শাস্তি পাবেন।
রাহুল জানিয়েছেন, নির্বাচন, প্রচার ও সর্বোপরি রাজনৈতিক উত্তেজনার বশেই রাফাল চুক্তি প্রসঙ্গে ‘গলি গলি মে শোর হ্যায়, হিন্দুস্থানকা চৌকিদার চোর হ্যায়’ এই কথা বলেছিলেন তিনি। একইসাথে তিনি জানান, তার ওই মন্তব্যের ভুল ব্যখ্যা করা হয়েছে।
ঘটনার সূত্রপাত গত ১০ এপ্রিল। রাফাল চুক্তির আগের রায় পুনর্বিবেচনার আর্জি জানায় বিরোধীরা। রাফাল চুক্তির ফাঁস হওয়া নথিপত্রও জমা দেওয়া হয়। আদালত সেই সব নথি খতিয়ে দেখে সেগুলি পুনর্বিবেচনার সিদ্ধান্ত নেয় প্রধান বিচারপতির বেঞ্চ। রাহুল সে দিন অমেঠীতে ছিলেন। সেখানেই সাংবাদিকদের তিনি বলেন, ‘এ বার সুপ্রিম কোর্টও কার্যত মেনে নিল, চৌকিদার চুরি করেছেন।’ এই নিয়েই বিজেপি নেত্রী মীনাক্ষী লেখি সুপ্রিম কোর্টে একটি আদালত অবমাননার মামলা করেন। তার অভিযোগ ছিল, আদালতের রায়কে বিকৃত করেছেন এবং নিজের স্বার্থে ব্যবহার করেছেন রাহুল।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন