Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২৩ মে ২০১৯, ০৯ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৭ রমজান ১৪৪০ হিজরী।

বিশ্ব নেতৃবৃন্দের শোক

সর্বোচ্চ শাস্তি চান মুসলিম নেতারা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৩ এপ্রিল, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

শ্রীলঙ্কার শীর্ষ মুসলিম নেতারা আত্মঘাতী বোমা হামলার সাথে জড়িতদের সর্বোচ্চ শাস্তি দাবি করেছেন। পুলিশ ২৪ জনকে আটক করলেও তাদের সম্পর্কে বিস্তারিত কোনো তথ্য প্রকাশ করা হয়নি। মুসলিম তাত্তি¡কদের কাউন্সিল বা অল সেইলন জামিয়াতুল উলামা বলছে, ‘সব ধর্মীয় সাইটগুলোতে নিরাপত্তা নিশ্চিত এবং ভয়াবহ ঘটনার সাথে জড়িতদের সর্বোচ্চ শাস্তি দেয়ার জন্য আমরা সরকারকে অনুরোধ করছি’।
শ্রীলঙ্কার পুলিশ বলছে তাদের বিশ্বাস, সানডেতে ভয়াবহ বিস্ফোরণের ঘটনাগুলো ঘটিয়েছে যারা তাদের বড় অংশই একটি উগ্রগোষ্ঠীর সাথে জড়িত। বিশ্বব্যাপী ওয়াহাবি নামে পরিচিত এই গোষ্ঠীটি স্থানীয়ভাবেই তাদের তৎপরতা চালায় বলে বলা হচ্ছে।
এদিকে খ্রিস্টাদের ৩টি গির্জাসহ আট স্থানে হামলায় মর্মান্তিক প্রাণহানি ও আহতের ঘটনায় শোক প্রকাশ করেছেন পোপ ফ্রান্সিস, জাতিসঙ্ঘ মহাসচিব অ্যান্থনিও গুতেরেজসহ বিশ্ব নেতৃবৃন্দ। তারা নৃশংস হামলার নিন্দা এবং শোকসন্তপ্ত পরিবার সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জানিয়েছেন। শোক প্রকাশকারীদের মধ্যে আরো রয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প, সাবেক প্রেসিডেন্ট বারাক ওবামা, তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান, ব্রিটিশ প্রধানমন্ত্রী থেরেসা মে প্রমুখ।
তুরস্কের প্রেসিডেন্ট রজব তাইয়েব এরদোগান এ হামলাকে মানবতার ওপর আঘাত হিসেবে আখ্যায়িত করেন। গত রোববার হামলার পর এক টুইটার পোস্টে হতাহতদের পরিবারের শোক ও সমবেদনা প্রকাশ করেছেন এরদোগান। পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানও এই ঘৃণ্য হামলার নিন্দা জানিয়েছেন। শোকগ্রস্ত পরিবারগুলোর প্রতিও তিনি সমবেদনা জানিয়েছেন। রোববার স্থানীয় সময় দুপুর ১২টা ৫৬ মিনিটে তার অফিসিয়াল টুইটার পেজে এক বিবৃতিতে এ নিন্দা জানান। টুইট বার্তায় বিবৃতিতে ইমরান খান বলেন, ‘ইস্টার সানডেতে সন্ত্রাসী হামলায় শ্রীলঙ্কায় যে পৈশাচিক হামলা হয়েছে আমি এর তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি।
পোপ ফ্রান্সিস দ্বিতীয় দিনের মতো গতকাল শ্রীলঙ্কায় রোববারের হামলার ঘটনার তীব্র নিন্দা জানিয়েছেন। সেন্ট পিটারস স্কোয়ারে হাজার হাজার মানুষের সামনে তিনি বলেন, নিহত ও আহত সবার জন্য তিনি প্রার্থনা করেছেন।
‘আমি সবাইকে বলবো এই দারুণ জাতিটিকে সহায়তায় কেউ যেনো দ্বিধা না করে। আশা করি প্রত্যেকে এসব সন্ত্রাসী হামলার প্রতিবাদ করবে,’ -তিনি বলছিলেন ঘটনার শিকার ব্যক্তিদের জন্য প্রার্থনার আগে। সূত্র : বিবিসি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ