Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার ২১ মে ২০১৯, ০৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৫ রমজান ১৪৪০ হিজরী।

সিরিয়ায় বোমা হামলার জন্য তুরস্ক সউদি ও কাতার দায়ী : দামেস্ক

প্রকাশের সময় : ২৫ মে, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : সিরিয়ার দুটি শহরে রক্তক্ষয়ী বোমা হামলার জন্য তুরস্ক, কাতার ও সউদি আরবকে দোষারোপ করেছে দামেস্ক। গতকাল মঙ্গলবার বিবিসি অনলাইনের প্রতিবেদনে এই তথ্য জানানো হয়। সিরিয়ার রাষ্ট্রীয় গণমাধ্যমে বলা হয়েছে, জাবলেহ ও তারতুস শহরে গত সোমবার ওই বোমা হামলায় অন্তত ১২০ জন নিহত হয়। শহর দুটিতে অল্প সময়ের ব্যবধানে একাধিক বোমা হামলায় ১৬৫ জনের বেশি মানুষ নিহত হয়েছে বলে একটি পর্যবেক্ষণ সংস্থার ভাষ্য। ইয়েমেনের এডেন শহরে আর্মি নিয়োগ কেন্দ্রে দাঁড়ানো যুবকদের উপরে এবং ঘাঁটির ভেতরে বোমা বিষ্ফোরণে ৪৫জন নিহত হয়। হামলার দায় স্বীকার করেছে ইসলামিক স্টেট (আইএস)। সাধারণত শান্ত শহর হিসেবেই তারতুস ও জাবলাহ শহরের পরিচিতি রয়েছে কিন্তু সোমবারের সাত দফা বোমা হামলায় শহর দুটি কেঁপে ওঠে।
খবরে বলা হচ্ছে, বোমায় আক্রান্ত জাবলেহ ও তারতুস শহর দুটি সিরিয়ায় প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদের নিয়ন্ত্রণে আছে। সংবাদ সংস্থা সানা জানায়, হামলা নিন্দা জানিয়ে জাতিসংঘে চিঠি পাঠিয়েছে সিরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। ওই চিঠিতে হামলার জন্য আঙ্কারা, দোহা ও রিয়াদকে দায়ী করা হয়েছে। দামেস্কের দাবি, ওই দেশগুলো শান্তি আলোচনা নস্যাৎ করতে চায়। যুদ্ধবিরতি ভন্ডুল করতে চায়। সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে সিরীয় বাহিনীর অর্জন থেকে তারা মনোযোগ অন্যদিকে নিতে চায়। দামেস্কের অভিযোগের বিষয়ে তুরস্ক, কাতার ও সউদি আরবের কাছ থেকে তাৎক্ষণিক কোনো প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি। সিরিয়ায় সক্রিয় বিভিন্ন বিদ্রোহী গোষ্ঠীকে সমর্থন করছে তুরস্ক, কাতার ও সউদি আরব। দেশ তিনটি আইএসবিরোধী আন্তর্জাতিক জোটেরও অংশ। হামলার নিন্দা জানিয়েছেন জাতিসংঘের মহাসচিব বান কি মুন। হামলায় উদ্বেগ জানিয়েছে রাশিয়া। তারতুসে রাশিয়ার একটি নৌঘাঁটি আছে। আর জাবলেহর কাছে আছে বিমানঘাঁটি। সেখান থেকে তারা আইএসবিরোধী অভিযান চালায়।
এদিকে, সিরিয়ার উপকূলীয় তারতুস এবং জাবলাহ শহরে ভয়াবহ বোমা হামলায় ১৬৫ জনের বেশি বেসামরিক মানুষ নিহত হওয়ার পর রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভøাদিমির পুতিন প্রেসিডেন্ট বাশার আল-আসাদের সরকারকে সমর্থনের অঙ্গীকার ব্যক্ত করেছেন। বিবিসি, আল-জাজিরা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন