Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার ২১ মে ২০১৯, ০৭ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৫ রমজান ১৪৪০ হিজরী।

ওয়াসার ‘সুপেয় পানি’ : জুরাইনবাসীর অভিনব প্রতিবাদ, নেটিজেনদের ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া

শাহেদ নুর | প্রকাশের সময় : ২৩ এপ্রিল, ২০১৯, ৩:৩০ পিএম

‘ঢাকা ওয়াসার পানি শতভাগ সুপেয়’ বলে দাবি করেছেন সংস্থাটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক (এমডি) তাকসিম এ খান। এই দাবির প্রেক্ষিতে আজ মঙ্গলবার রাজধানীর জুরাইন এলাকার কয়েকজন বাসিন্দা এমডিকে ওই পানি পান করানোর জন্য আসেন। সকাল এগারোটা থেকে তারা কাচের জগ ও বোতলে ওয়াসার পানি, গ্লাস, লেবু এবং চিনির প্যাকেট নিয়ে ওয়াসা ভবনের সামনে অপেক্ষা করেন। এমডির ‘সুপেয় পানি’ দাবির জবাবে জুরাইনবাসীর এই অভিনব প্রতিবাদের সাথে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন নেটিজেনরা।

তারা এমডির এই দাবির তিব্র সমালোচনা করলেও প্রশংসা করছেন প্রতিবাদকারীদের অভিনব পদক্ষেপের। টেলিভিশন সাংবাদিক নিশাত শাহরিয়ার এই পদক্ষেপকে ‘একটি মহৎ উদ্যোগ’ হিসেবে আখ্যায়িত করে ফেইসবুকে স্টাট্যাস দেন।

সাংবাদিক ও কলামিস্ট মেহেদী হাসান পলাশ তাঁর ফেইসবুকে লিখেন, ‘এরকম একটা অভিনব ও সৃজনশীল কর্মসূচী নেয়ার জন্য জুরাইনবাসীকে ধন্যবাদ। তবে পানিটা অবশ্যই জুরাইন থেকে নিয়ে যেতে হবে।’

‘সাথে ডাইরিয়া ট্যাবলেট ও নিয়ে গেলে ভালো হতো’ বলে মন্তব্য করেন এমডি জামিল এইচ রানা।

‘স্বার্থক জনম আমার জন্মেছি এই দেশে..’- নিউজটি শেয়ার করে সাংবাদিক সাইমুম সাদ এভাবেই তার আক্ষেপ প্রকাশ করেন।

মো. জিয়াউল ইসলাম মন্তব্য করেন, ‘ভালো লাগার ব্যাপার হলো মানুষ অহিংস প্রক্রিয়ায় প্রতিবাদ করছে। প্রতিবাদ করছে ব্যতিক্রমী ভাবে।’

প্রতিবাদকারীদের নেতৃত্ব দিচ্ছেন মিজানুর রহমান। তিনি গণমাধ্যমকে বলেন, আমাদের এলাকায় ওয়াসার পানি ড্রেনের পানির মতো অপরিষ্কার। এটা তো খাওয়া দূরের কথা গন্ধে হাতে নেওয়াই যায় না। এ অবস্থায় ওয়াসার এমডি কীভাবে বলেন, ওয়াসার পানি শতভাগ সুপেয়, বিশুদ্ধ! তাই আমরা এই পানি দিয়ে শরবত বানিয়ে খাওয়াতে এসেছি।

এদিকে দুপুরে কারওয়ান বাজারে ওয়াসা ভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে ওয়াসার প্রকৌশলী ও কে এম সহিদ উদ্দিন জানান, ‘আজকে শবরত খাবো না, লাইন ঠিক করে শরবত খাবো। দ্রুতই পাইপ লাইন ঠিক করা হবে জুরাইন এলাকার।’ এসময় তিনিও ওয়াসার পানি সুপেয় বলে দাবি করেন।

ওয়াসার এই প্রকৌশলী বলেন, পাইপ লাইনের ত্রুটির কারণে ওয়াসার পানি দূষিত হয়ে থাকতে পারে, তবে ওয়াসার পানি সুপেয়।

এই নিউজটি শেয়ার করে টেলিভিশন উপস্থাপক ওয়াহিদ ফারুকী লিখেন, জনগণের বলা উচিত, ‘শুধু আপনি না আপনারে যে ওই চেয়ারে বসতে দিয়েছে তারেও খাইতে হবে।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ওয়াসা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ