Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ১৯ এপ্রিল ২০১৯, ৬ বৈশাখ ১৪২৬, ১২ শাবান ১৪৪০ হিজরী।

৫০ কোটি মার্কিন ডলার ব্যয়ে ইরানে সমুদ্রবন্দর তৈরি করবে ভারত

প্রকাশের সময় : ২৫ মে, ২০১৬, ১২:০০ এএম

ইনকিলাব ডেস্ক : ইরানের গুরুত্বপূর্ণ এক সমুদ্রবন্দরের অবকাঠামো তৈরি এবং নিয়ন্ত্রণের কাজ করবে ভারত। চাবাহার নামক এই সমুদ্রবন্দরের ভারত ৫০ কোটি মার্কিন ডলার বিনিয়োগ করবে। গত সোমবার ইরানের প্রেসেডেন্ট হাসান রুহানির সঙ্গে বৈঠকের পর ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি এ কথা জানিয়েছেন। বিবিসি জানায়, পাকিস্তান সীমান্তবর্তী ইরানের চাবাহার সমুদ্রবন্দর কৌশলগতভাবে গুরুত্বপূর্ণ। এই বন্দরের নিয়ন্ত্রণ পেলে পাকিস্তানের ভূমি ব্যবহার ছাড়াই ভারত নিজেদের পণ্য আফগানিস্তান এবং মধ্য এশিয়ার দেশগুলোতে পৌঁছে দিতে পারবে। আর দিল্লি চায় মধ্য এশিয়া থেকে চাবাহার বন্দর পর্যন্ত গ্যাস নিয়ে যেতে। পরে এই গ্যাস সমুদ্র পথে ভারতে নেয়া যাবে। গত রোববার থেকে ইরান সফরে গেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী। দেশটির প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানির সঙ্গে বৈঠক শেষে মোদি বলেন, চাবাহার বন্দরের অবকাঠামো তৈরি, ৫০ কোটি মার্কিন ডলার বিনিয়োগ এবং বন্দর নিয়ন্ত্রণ বিষয়ে দুই পক্ষের সমঝোতা একটি বড় মাইলফলক। এর ফলে এই অঞ্চলের অর্থনীতিতে গতি সঞ্চার হবে। ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি ভারতীয় বিনিয়োগকে স্বাগত জানিয়েছেন। তিনি বলেন, ভারতের চাহাবার বন্দরে বিনিয়োগ দুই দেশের সহাযোগিতার এক বড় নিদর্শন। ইরানের সংবাদমাধ্যমে নরেন্দ্র মোদির সফরের অর্থনৈতিক ও কৌশলগত বিষয়ের ওপরই আলোকপাত করা হয়েছে। চাবাহার বন্দরের বিনিয়োগ ও নিয়ন্ত্রণের মধ্য দিয়ে মধ্য ও দক্ষিণ এশিয়ায় চীনের ক্ষমতা খর্ব করবে ভারত। বিভিন্ন পত্রিকার প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, পাকিস্তানের গাদার বন্দরের মাধ্যমে মধ্য ও দক্ষিণ এশিয়ার বাণিজ্যে একচ্ছত্র আধিপত্য চীনের। আর ভারতের জ্বালানি চাহিদা মেটানোর যথেষ্ট সক্ষমতা আছে ইরানের। ইরানের ইতেমাদ পত্রিকা জানিয়েছে, দেশটিতে নরেন্দ্র মোদির সফর এবং বিভিন্ন চুক্তি স্বাক্ষরের খবরে ইসলামাবাদ, বেইজিং ও রিয়াদের বিপদের ঘণ্টা বেজে গেছে। বিবিসি, রয়টার্স।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন