Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার, ১৬ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ১ আশ্বিন ১৪২৬, ১৬ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

শেখ সেলিমের জামাতার লিভারে পাওয়া গেছে বোমার স্প্লিন্টার

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ২৩ এপ্রিল, ২০১৯, ৬:১১ পিএম

শ্রীলংকায় ইস্টার সানডেতে রেস্তোরাঁয় বোমা হামলায় গুরুতর আহত আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিমের জামাতা মশিউল হক চৌধুরীর অস্ত্রোপচার করা হয়েছে। তার লিভারে পাওয়া গেছে বোমার স্পিল্টার।

বোমা হামলায় নিহত নাতি জায়ান চৌধুরীর জানাজাস্থল বনানীর চেয়ারম্যানবাড়ি মাঠ দেখতে এসে মঙ্গলবার সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে এ তথ্য জানিয়েছেন শেখ সেলিম।

প্রধানমন্ত্রীর ফুফাতো ভাই শেখ সেলিম জানান, তার জামাতা মশিউল হক চৌধুরী এখনও শঙ্কামুক্ত নন। তবে আগের চেয়ে শারীরিক অবস্থার কিছুটা উন্নতি হয়েছে। ৭২ ঘণ্টা না গেলে কিছুই বলা যাবে না। মশিউল এখন শ্রীলংকার আনশ্রী সেন্ট্রাল হাসপাতালে নিবিড় পরিচর্যাকেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন।

জামাতার শারীরিক অবস্থার কথা তুলে ধরে শেখ সেলিম বলেন, মশিউলের শরীর থেকে তিন লিটার রক্ত বের হয়ে গেছে। অস্ত্রোপচার করা হয়েছে। লিভারে বোমার স্প্লিন্টার পাওয়া গেছে। পাকস্থলীও কিছুটা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। এখন আইসিইউতে আছে। ৭২ ঘণ্টা পার না হলে কিছু বলা যাবে না। তার পায়ের যে অবস্থা তাতে এখন হাসপাতাল থেকে সরানো সম্ভব নয়।

এদিকে বোমায় নিহত মশিউলের ছেলে জায়ান চৌধুরীর লাশ আগামীকাল দেশে আসছে। এ তথ্য জানিয়ে শেখ সেলিমের ছোট ভাই শেখ ফজলুর রহমান মারুফ এ সময় বলেন, বুধবার দুপুর ১টা ১০ মিনিটে শ্রীলংকা এয়ারলাইনসের একটি ফ্লাইটে জায়ানের লাশ আসবে। বাদ আসর বনানী চেয়ারম্যানবাড়ি মাঠে জানাজা শেষে বনানী কবরস্থানে দাফন করা হবে।

এ সময় আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও সাবেক বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ বলেন, ‘এ ঘটনায় আমরা মর্মাহত, ক্ষতিগ্রস্ত। শেখ সেলিম আমার অত্যন্ত কাছের মানুষ। তার নাতির এ ঘটনা একটি পরিবারের ওপর নির্মম আঘাত। আপনারা জানেন কাল লাশ আসবে, বনানী মাঠে জানাজা হবে, আপনারা সবাই দোয়া করবেন।’

প্রসঙ্গত শ্রীলংকায় গির্জা ও রেস্তোরাঁয় রোববারের ভয়াবহ সিরিজ বোমা হামলায় অন্তত ৩১০ জন নিহত হয়েছেন। আহত হয়েছেন ৫০০ জনের বেশি মানুষ। বোমা হামলার ঘটনায় এ পর্যন্ত ৪০ জনকে আটক করা হয়েছে। তবে কারা হামলা চালিয়েছে তা এখনও চিহ্নিত করতে পারেনি দেশটির সরকার।

সকালে দ্বীপরাষ্ট্রটির রাজধানী কলম্বো এবং শহরতলির তিনটি গির্জা ও দেশের বড় তিনটি হোটেলে এ হামলা হয়। পর আরও দুটি স্থানে হামলা হয়। গতকাল ছিল খ্রিস্টান সম্প্রদায়ের অন্যতম বড় উৎসব ইস্টার সানডে। হামলার সময় তিন গির্জায় ইস্টার সানডের প্রার্থনা চলছিল।

নিহতদের মধ্যে রয়েছে আওয়ামী লীগ নেতা শেখ ফজলুল করিম সেলিমের ৮ বছর বয়সী নাতি জায়ান চৌধুরী। আহত শেখ সেলিমের জামাতা মশিউল হক চৌধুরী প্রিন্স কলম্বোর একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন।

কলম্বোর একটি পাঁচতারকা হোটেলে দুই ছেলে ও স্বামীকে নিয়ে ছিলেন শেখ সেলিম এমপির মেয়ে শেখ আমেনা সুলতানা সোনিয়া। সেখানেই এই নৃশংস ঘটনা ঘটে।



 

Show all comments
  • ম নাছিরউদ্দীন শাহ ২৩ এপ্রিল, ২০১৯, ৭:৩৯ পিএম says : 0
    বাংলাদেশের মানুষ গভীর ভাবে শোকহত। নিন্দা ও ঘৃণা জানানোর ভাষা আমাদের জানানেই। অবুঝ শিশু জায়ান চোধুরী কে নির্মমভাবে ভাবে হত্যাকান্ড তারপিতা জীবন মৃত্যুর মাঝে। এই ভয়ংকর জঙ্গিদের কাছে ইসলাম ও মানবতার কোন আদশ্য নেই। এরা ইসলামের কেও না। জায়ান চোধুরীর নির্মমভাবে হত্যার মাঝেই এই দেশের আইন শৃংখলা বাহিনীর দায়িত্ব আরো বাড়িয়ে দিলো। আমরা কেও নিরাপদ নয়। সাথে রাষ্ট্রের নাগরিকদের দায়িত্ব চোখ কান খুলা রাখা। আল্লাহ আমাদের সবাই কে হেফাজত করুক।
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: শ্রীলঙ্কায় বোমা হামলা


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ