Inqilab Logo

ঢাকা, বুধবার, ২৩ অক্টোবর ২০১৯, ০৭ কার্তিক ১৪২৬, ২৩ সফর ১৪৪১ হিজরী

কুমিল্লায় বিনা খরচে মামলা নিষ্পত্তিতে স্বস্তিতে অসচ্ছল বিচারপ্রার্থীরা

কুমিল্লা থেকে সাদিক মামুন | প্রকাশের সময় : ২৪ এপ্রিল, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

গর্ভে পাঁচ মাসের সন্তান। দুই বছর বয়সী পুত্র মাহিনকে কোলে নিয়ে সিনিয়র সহকারি জজ ফারহানা লোকমানের কাছে স্বামীর নির্যাতনসহ ভরণপোষন না দেয়ার বর্ণনা দিচ্ছেন অসহায় গৃহবধূ শারমিন আক্তার। কুমিল্লার মুরাদনগরের নবীপুর গ্রামের এ নারীর বিয়ে হয়েছিল ২০১৫ সালে। প্রথম সন্তান হওয়ার পর থেকেই যৌতুকের জন্য নির্যাতন চলে তাঁর ওপর। আর্থিক অস্বচ্ছলতার কারণে থানায় মামলা করাও সম্ভব হয়নি। অবশেষে বিনাখরচে বিচার প্রাপ্তির ঠিকানা খুঁজে পেয়ে সে তার মা ও শিশু সন্তানকে নিয়ে ছুটে আসেন কুমিল্লা জেলা চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালত ভবনে অবস্থিত জাতীয় আইনগত সহায়তা প্রদান সংস্থা-লিগ্যাল এইড অফিসে। 

এমনি করে প্রতিদিন শারমিনদের মতো অসহায়, অস্বচ্ছল বিচারপ্রার্থী লোকজন ফৌজদারি মামলার মধ্যে নারী নির্যাতন, মারামারি, যৌতুক, বাচ্চা উদ্ধার (শিশু কার জিম্মায় থাকবে) এবং দেওয়ানি মামলার মধ্যে বাড়িঘর, জমি সংক্রান্ত ও পারিবারিক মামলার মধ্যে ভরণপোষন, দেনমোহর সংক্রান্ত বিষয়ে এবং বিকল্প বিরোধ নিস্পত্তির সেবা পেতে ভিড় করেন কুমিল্লা লিগ্যাল এইড অফিসে। এখানে সরাসরি আবেদন করা ছাড়াও কারাগার, আদালত এবং এনজিও থেকে প্রাপ্ত গরিব অসহায় বিচারপ্রার্থীদের মামলার ব্যয়ভার সরকারিভাবে বহন করা হয়ে থাকে। ২০১৮ সাল থেকে এবছরের মার্চ পর্যন্ত কুমিল্লা লিগ্যাল এইড অফিসে ৭৪৮জন নারী এবং ৩৩৮জন পুরুষ আইনি পরামর্শ গ্রহণ করেছেন। একই সময়ে কুমিল্লা কেন্দ্রিয় কারাগারে আটক গরিব অসহায় বন্দিদের মধ্যে ২৮৭জন আইনগত সহায়তা পেয়েছেন। আবার পারিবারিক, ফৌজদারি, দেওয়ানি মামলা সংক্রান্ত বিষয়ে বিনা খরচে আইনি সহায়তা নিয়েছেন ৩৩২জন নারী এবং ৯১০জন পুরুষ। পারিবারিক, ফৌজদারি ও দেওয়ানি ঘটনার বিষয়ে বিকল্প বিরোধ নিস্পত্তিতে সফলতা আসে ১১৭টিতে। বিকল্প বিরোধ নিস্পত্তির মাধ্যমে প্রায় পৌনে ৫৪ লাখ টাকা অর্থ আদায় করা হয়েছে। গত দুই বছরে প্রান্তিক অঞ্চলে লিগ্যাল এইডের আইনি সেবার প্রচারণা বৃদ্ধি পাওয়ায় গরিব সাধারণ মানুষ বিকল্প বিরোধ নিষ্পত্তিতে উৎসাহি হয়ে ওঠেছেন।
জানতে চাইলে কুমিল্লা লিগ্যাল এইড অফিসের কর্মকর্তা সিনিয়র সহকারি জজ ফারহানা লোকমান বলেন, দেশের লিগ্যাল অফিসগুলোতে লিগ্যাল এইড অফিসার হিসেবে একজন বিচারক সম্পৃক্ত থাকায় সাধারণ মানুষ ও বিচারপ্রার্থীদের এ সংস্থার কার্যক্রমের প্রতি আস্থা, শ্রদ্ধা ও আন্তরিকতা তৈরি হয়েছে। কুমিল্লা অঞ্চলে তৃণমূল পর্যায়ে লিগ্যাল এইড কার্যক্রমের ব্যাপক প্রচারণা হচ্ছে এবং মানুষ এসংস্থাটির মাধ্যমে যথাযথ আইনি সহায়তার মাধ্যমে সুফল পাচ্ছেন। আমাদের বিশ্বাস, আগামী ২৮ এপ্রিল জাতীয় আইনগত সহায়তা দিবসে সব শ্রেণি-পেশা জনগণের ব্যাপক অংশগ্রহণ লিগ্যাল এইড কার্যক্রম সম্পর্কে সচেতনতা সৃষ্টি করবে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন