Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬, ১৫ সফর ১৪৪১ হিজরী

জবানবন্দি ও তথ্য পর্যালোচনা করছেন কর্মকর্তারা

মাদরাসাছাত্রী নুসরাত হত্যাকান্ড

বিশেষ সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৪ এপ্রিল, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

মাদরাসাছাত্রী নুসরাত হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত পলাতকদের গ্রেফতার এবং টাকা লেনদেনের বিষয়ে জোর তদন্ত করতে পিবিআইয়ের পাশাপাশি বিভিন্ন সংস্থার কর্মকর্তারা কাজ করছেন। গ্রেফতারকৃত আসামিদের স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি ও তদন্তের প্রাপ্ত তথ্য পর্যালোচনা করছেন তদন্তের সাথে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতি আন্তরিক কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেছেন নুসরাতের বাবা মাওলানা একেএম মুসা মানিক। এছাড়া ফেনী-৩ আসনের সংসদ সদস্য লে. জেনারেল (অব.) মাসুদ উদ্দিন চৌধুরী বলেছেন, নুসরাত হত্যা মামলায় জড়িত কেউ রেহাই পাবে না। গতকাল মঙ্গলবার সকালে সদর উপজেলার কালিদহ এস সি উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনের সড়কে জড়িতদের গ্রেফতার ও শাস্তির দাবিতে মানববন্ধন করেছেন শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা।
মঙ্গলবার দুপুরে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের বিভাগীয় প্রধান সহযোগী অধ্যাপক ডা. সোহেল মাহমুদ জানান, নুসরাত জাহান রাফির ময়নাতদন্তের রিপোর্ট এ সপ্তাহের মধ্যেই দেওয়া হবে।
ফেনীর সর্বাধিক পঠিত ও প্রাচীন সাপ্তাহিক পত্রিকা ‘হকার্সে’র সম্পাদনা পরিষদ ও সংবাদকর্মীরা নুসরাতের পরিবারের প্রতি সমবেদনা প্রকাশ করতে গেলে মাওলানা একেএম মুসা মানিক বলেন, মাদরাসা প্রিন্সিপালের দেয়া আগুনে পুড়ে ঢাকা মেডিকেল কলেজের বার্ন ইউনিটে ভর্তি হওয়ার পর থেকেই প্রধানমন্ত্রী নুসরাতের খোঁজ-খবর নিয়েছেন এবং উন্নত চিকিৎসার জন্য সিঙ্গাপুর নিতেও বলেছেন। প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশেই বাংলাদেশ এবং সিঙ্গাপুরে খ্যাতনামা চিকিৎসকরা আমার মেয়ের চিকিৎসার জন্য কাজ করে গেছেন। কিন্তু ভাগ্যের নির্মমতায় মেয়েকে বাঁচানো যায়নি। আমার মেয়ের মৃত্যর পরে এ ঘটনায় জড়িত সবাইকে গ্রেফতার করার জন্য দেশের আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি নির্দেশনা ছিলো প্রধানমন্ত্রীর। আর তার ফলশ্রুতিতেই খুব দ্রুততম সময়ের মধ্যে গ্রেফতার হয়েছে প্রায় আসামি।
মামলা তদন্তের সাথে সম্পৃক্ত পিবিআইয়ের একজন কর্মকর্তা জানান, নুসরাত হত্যাকান্ডের সাথে জড়িত কয়েকজন এখনও পলাতক রয়েছে। তাদের গ্রেফতারে কাজ করছে কর্মকর্তারা। তবে মূল আসামিদের প্রায় সকলে এরই মধ্যে গ্রেফতার করা হয়েছে বলে ওই কর্মকর্তা মন্তব্য করেন।
তিনি আরো বলেন, আসামিদের গ্রেফতারের পাশাপাশি টাকা লেনদেনের বিষয়টিও তদন্ত হচ্ছে। এখনই সাথে বিভিন্ন সংস্থার যারা তদন্তের সাথে সম্পৃক্ত তাদের সাথে সমন্বয় করা হচ্ছে।
ফেনী সোনাগাজী উপজেলা সংবাদদাতা জানান, মঙ্গলবার সোনাগাজী পৌর শহরের উত্তর চরচান্দিয়ায় নুসরাতের বাড়িতে স্বজনদের সমবেদনা জানাতে গিয়ে ফেনী-৩ আসনের সংসদ সদস্য লে. জেনারেল (অব.) মাসুদ উদ্দিন চৌধুরী বলেছেন, সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদরাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি হত্যা মামলায় জড়িত কেউ রেহাই পাবে না। কারোর যদি কোনো রাজনৈতিক ও প্রশাসনিক পরিচয়ও থাকে, তদন্তে অপরাধ প্রমাণ হলে ছাড় পাওয়ার কোনো সুযোগ নেই। এ ঘটনাটা ধামাচাপা হয়ে যাবে কিংবা রাজনৈতিক কারণে অন্যখাতে প্রবাহিত হয়ে যাবে, এটা আমি বিশ্বাস করি না। মঙ্গলবার সকালে সদর উপজেলার কালিদহ এস সি উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনের সড়কে মানববন্ধন করেছেন শিক্ষক-শিক্ষার্থীরা। এসময় মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন-বিদ্যালয় পরিচালনা পর্ষদ সভাপতি বিশিষ্ট ব্যবসায়ী এম এ হান্নান, প্রধান শিক্ষক রুহুল আমিন, স্থানীয় কালিদহ ইউনিয়ন পরিষদ (ইউপি) চেয়ারম্যান দিদারুল আলম, প্রমুখ। মানববন্ধনে শিক্ষার্থীরা নুসরাত হত্যার পরিকল্পনাকারী সিরাজ উদ দৌলাসহ সব আসামির দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি দাবি জানায়।

 



 

Show all comments
  • আব্দুল মান্নান ২৪ এপ্রিল, ২০১৯, ১২:৩৩ এএম says : 0
    প্রথমে শুরু হয়ে ছিল রাজাকার জামাত বি এন পি, আগুনে পুড়িয়ে মানুষ মারে কাউকে ছাড়া হবে না।এখন ২০ জন হত্যাকারি সবাই জয় বাংলার সোনার ছেলেরা।বিচার কাজ শেষ না হওয়া পর্যন্ত কোন মন্তব্য করা আমাদের ঠিক হবে কি ?
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ