Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২৭ জুন ২০১৯, ১৩ আষাঢ় ১৪২৬, ২৩ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

গাজার ৭৫ ভাগ মসজিদ ধ্বংস করেছে ইসরাইল

চোখ ও হাত বেঁধে দুই পায়ে গুলি করে ইসরাইলি সেনারা

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ২৫ এপ্রিল, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

ফিলিস্তিনের গাজার প্রায় ৭৫ ভাগ মসজিদই ধ্বংস করে দিয়েছে ইহুদিবাদী ইসরাইল। সম্প্রতি এমন খবর প্রকাশ করেছে মিডল ইস্ট মিরর। প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, ইসরাইল গত গত ৫১ দিনে ৭৩টি মসজিদ পুরোপুরি ধ্বংস করে দিয়েছে। সেইসঙ্গে ২০৫টি মসজিদ আংশিকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত করেছে ইহুদিবাদী ইসরাইল। ফিলিস্তিন ইকোনোমিক কাউন্সিল ফর ডেভেলপমেন্ট অ্যান্ড কন্সট্রাকশন (পিইসিডিসি ) কর্তৃক গঠিত কমিটি এক বিবৃতে জানায় ইসরাইলের হামলায় কবরস্তান, দাতব্য সংস্থা থেকে শুরু করে তাদের পবিত্র স্থান মসজিদ অনেক। পিইসিডিসি’র ভাষ্য এসব ধ্বংসপ্রাপ্ত বস্তুর ক্ষতির পরিমাণ ৪০.৪ মিলিয়ন ডলার। এছাড়া ইসরাইলের হামলায় গাজায় অবস্থিত দুটি গির্জাও সম্পূর্ণ ধ্বংস হয়ে গেছে। পিইসিডিসি জানায়, ফিলিস্তিনের জাবালায় অবস্থিত বিখ্যাত মসজিদ আল-ওমরি ধ্বংস করে ইসরাইল। এছাড়াও ১৩৬৫ বছর আগে হজরত আমর ইবনুল আসের সময়কার একটি প্রাচীন মসজিদ ধ্বংস করা হয়েছে।মসজিদটির নাম ছিল মানারাত আল-জাহের। এটিতে একসঙ্গে অন্তন্ত ২ হাজার মুসল্লি একসঙ্গে নামাজ আদায় করতে পারতো। সিএনএন’র খবরে বলা হয়, বিশৃঙ্খলার অভিযোগে গ্রেফতার হওয়ার পর তার চোখ বেঁধে ফেলা হয়। হাতও বাঁধা হয় পিছমোড়া করে। এর পর নির্মমভাবে গুলি করা হয়েছে ফিলিস্তিনি কিশোর আল বাদানকে। গত বৃহস্পতিবার অধিকৃত পশ্চিমতীরের বেথেলহেমের তুকু গ্রামে একটি দাফন অনুষ্ঠানের পর ইসরাইলি সেনারা এই নির্মমতা চালান। ফটো ও ভিডিওতে দেখা যায়, ১৫ বছর বয়সী ওসামা আল বাদানের হাত পিছমোড়া করে বাঁধা। তার কাছে দাঁড়িয়ে থাকা অন্তত চার ইসরাইলি সেনার কাছ থেকে সে পালাতে চেষ্টা করছিল। তার বাবা আলী আল বাদান বলেন, বাদানের প্রতিটি পায়ে একটি করে গুলি করা হয়েছে। ‘তার কোনো অপরাধ ছিল না। তবু তাকে গ্রেফতার করা হয়। ইহুদি সেনারা তার বিরুদ্ধে পাথর নিক্ষেপের অভিযোগ করেন। মিডল ইস্ট মিরর, সিএনএন।



 

Show all comments
  • কাদের ২৫ এপ্রিল, ২০১৯, ৫:০৮ পিএম says : 0
    ফিলিস্তিনের গাজার প্রায় ৭৫ ভাগ মসজিদই ধ্বংস করে দিয়েছে ইহুদিবাদী ইসরাইল। কেননা তারা জানে ইসরাইলের বিরুদ্ধে এবং ফিলিস্তিনের পক্ষে আরব দেশ মুখ খুলতে সাহস পাবেনা। অনেক আরব দেশের বন্ধু দেশ হোল এই ইহুদিবাদী ইসরাইল।তাই আরব দেশের দুর্বলতায়, ইসরাইল এই সুযোগ গুলো কাজে লাগিয়ে ফিলিস্তিনের সব কিছুই ধ্বংস করে দিচ্ছে।
    Total Reply(0) Reply
  • Jonayed Ahmed ২৫ এপ্রিল, ২০১৯, ৯:৩২ এএম says : 0
    নিন্দা জানাই
    Total Reply(0) Reply
  • Mohammad Hasan ২৫ এপ্রিল, ২০১৯, ৯:৩২ এএম says : 0
    Allah tomer ghor tumi hafajot koro..amin....
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ফিলিস্তিন


আরও
আরও পড়ুন