Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪ আশ্বিন ১৪২৭, ০১ সফর ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

এই দলেই আস্থা দ্রাবিড়ের

স্পোর্টস ডেস্ক : | প্রকাশের সময় : ২৫ এপ্রিল, ২০১৯, ১২:০৩ এএম

 ইংল্যান্ড ও ওয়েলসে অনুষ্ঠিতব্য বিশ্বকাপের জন্য ঘোষিত ভারতীয় দলটি যথেষ্ঠ ভারসাম্যপূর্ণ বলে মনে করছেন দেশটির সাবেক অধিনায়ক রাহুল দ্রাবিড়।

গত মাসে নিজ মাঠে প্রথম দুই ম্যাচ জয়ের পরও সফরকারী অস্ট্রেলিয়ার কাছে শেষ পর্যন্ত ২-৩ ব্যাবধানে পাঁচ ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ হারে ভারত। তবে এ পরাজয়কে বিশ্বকাপের আগে টিম ইন্ডিয়ার জন্য সাময়িক পথভ্রম হিসেবে দেখছেন রাহুল। তার মতে গত কয়েক বছর ওয়ানডে ক্রিকেটে ধারাবাহিক পারফরমেন্স করে আইসিসি র‌্যাংকিংয়ের দ্বিতীয় স্থানে থাকা ভারত আসন্ন বিশ্বকাপের অন্যতম ফেবারিট।

টাইমস অব ইন্ডিয়া পত্রিকাকে দলটির ব্যাটিং পরামর্শক রাহুল বলেন, ‘গত ত্রিশ মাস ভারতীয় দলটি সত্যিকার অর্থেই ভাল ক্রিকেট খেলেছে এবং এ পরাজয়ের (অস্ট্রেলিয়া সিরিজ) জন্য অবশ্যই অস্ট্রেলিয়া দলকে কৃতিত্ব দিতে হবে।’ তিনি আরো বলেন, ‘বিশ্বকাপের জন্য আমাদের সঠিক কম্বিনেশন আছে। ভারত বিশ্বকাপ শিরোপা জিতলে তখন আর ৩-২ না ২-৩ ব্যবধানে সিরিজ হারলো না জিতলো তা নিয়ে দুঃশ্চিন্তা করব না। একটা সিরিজ খারাপ হতে পারে- যেখানে ভারত হেরেছে। তবে আইসিসি র‌্যাংকিংই প্রমাণ করে ভারত কোন অবস্থানে আছে এবং বিশ্বকাপ শিরোপা জিতে তাদের শীর্ষ দল হওয়া উচিত।’

ভারতের ১৫ সদস্যের বিশ্বকাপ দল নিয়ে এবং আম্বাতি রাইডু ও ঋষভ পন্থকে বাদ দেয়ার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ভারতীয় দল খুবই ভারসাম্যপূর্ণ এবং শেষ পর্যন্ত এটা কোন বিষয় হবে না বলে আমার বিশ্বাস। তিনি বলেন, ‘এই বিশ্বকাপের জন্য ভারতীয় দলটি খুবই ভাল এবং ভারসাম্যপূর্ণ।’

‘দ্য ওয়াল’ খ্যাত দ্রাবিড় আরো বলেন, ‘ভারতের হাতে অনেক কম্বিনেশন, বিকল্প আছে। প্রশ্ন হচ্ছে টুর্নামেন্টে তাদের পারফরমেন্স করা নিয়ে। আপনি সব সময় এক বা দু’টি ক্ষেত্রে কিংবা এক অথবা দু’টি নাম নিয়ে যুক্তি দেখাতে পারেন। দল ঘোষণা করা হয়েছে। এখন এটাকে সমর্থন দিন এবং আশা করছি সত্যিই তারা ভাল করবে।’

ইংল্যান্ড সর্বশেষ ১৯৯৯ বিশ্বকাপ আয়োজন করেছিল। দু’টি সেঞ্চুরিসহ ৬৫.৮৫ গড়ে সে আসরের সর্বোচ্চ ৪৬১ রান করা দ্রবিড় বলেন, ‘আমি আশা করছি ১৯৯৯ আসরের তুলনায় এবার সম্পূর্ণ ভিন্ন একটি টুর্নামেন্ট হবে। সে সময় ম্যাচগুলো ছিল কিছুটা লো-স্কোরিং। সম্ভবত এবারের বিশ্বকাপ হবে হাই স্কোরিং এবং ভারত তার জন্য ভালভাবে প্রস্তুত। ইংলিশ কন্ডিশন অনেক পরিবর্তন হয়েছে, বিশেষ করে ওয়ানেড ক্রিকেটে। আমরা গত বছর একটি ‘এ’ সিরিজ খেলেছি এবং সত্যিই সেগুলো ছিল হাই স্কোরিং। প্রতি ম্যাচই ছিল তিনশ’ রানের ওপরে এবং প্রতি ম্যাচই ধারাবাহিকভাবে চেজ হয়েছিল।’

ক্রিকেট ইতিহাসের অনতম সেরা এই ব্যাটিং কিংবদন্তি আরো যোগ করেন, ‘ইংল্যান্ডে ওয়ানডে ক্রিকেটে পরিবর্তন এসেছে এবং পুরনো কন্ডিশনের কথা চিন্তা করে সেখানে যাওয়া চলবে না। উইকেটগুলো হয়েছে ফ্লাট এবং সেগুলো হাই স্কোরিংকে উৎসাহিত করছে।’



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: আস্থা দ্রাবিড়
আরও পড়ুন