Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৫ অক্টোবর ২০১৯, ৩০ আশ্বিন ১৪২৬, ১৫ সফর ১৪৪১ হিজরী
শিরোনাম

বিমান বাহিনীর যুদ্ধ বিমান

ওভারহলিং ইউনিটকে চীনের স্বীকৃতি সনদপত্র প্রদান

আইএসপিআর | প্রকাশের সময় : ২৬ এপ্রিল, ২০১৯, ১২:০৮ এএম

বিমান বাহিনীর ২১৪ মেইন্টেন্যান্স, রিপেয়ারিং ও ওভারহলিং ইউনিটের সফল কার্যক্রমের স্বীকৃতি স্বরচপ এই ইউনিটকে চীনের জিলিন এয়ারক্রাফট মেইন্টেন্যান্স কোম্পানী লিঃ স্বীকৃতিপ্রাপ্ত ওভারহল ইউনিট হিসেবে সনদপত্র প্রদান অনুষ্ঠান মঙ্গলবার বিমান বাহিনী ঘাঁটি বঙ্গববন্ধুতে অনুষ্ঠিত হয়। প্রধানমন্ত্রীর নিরাপত্তা উপদেষ্টা মেজর জেনারেল (অবঃ) তারিক আহমেদ সিদ্দিক অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। আইএসপিআরের এক বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়েছে।
বিজ্ঞপ্তিতে আরো বলা হয়, পূর্বে বাংলাদেশ বিমান বাহিনীতে যুদ্ধ বিমান ওভারহল এর কোন ফ্যাক্টরী ছিলনা যার জন্য নির্দিষ্ট সময় অন্তর চীনের তৈরী বিমানগুলোকে ওভারহলিংয়ের জন্য চীনে পাঠাতে হতো। এতে করে একদিকে যেমন অনেক সময়ের প্রয়োজন হতো তেমনিভাবে প্রয়োজন হতো প্রচুর অর্থের। এখন দেশে ওভারহলিং এর মাধ্যমে সময় ক্ষেপন রোধের পাশাপাশি প্রচুর পরিমান বৈদেশিক মুদ্রা সাশ্রয় করা সম্ভব হচ্ছে। অপারেশনাল সক্ষমতার ক্ষেত্রেও এক ধাপ এগিয়ে গেল বাংলাদেশ বিমান বাহিনী। বর্তমানে আরো ০৩ টি বিমান, বিমান বাহিনীর নিজস্ব টেকনিশিয়ান কর্তৃৃক ওভারহল কার্যক্রমের আওতায় রয়েছে। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি তার ভাষণে ২১৪ এমআরও ইউনিটকে সনদপত্র অর্জনের জন্য অভিনন্দন জানান। সহযোগিতার জন্য তিনি চীন সরকারকে ধন্যবাদ জ্ঞাপন করেন এবং চীনের সাথে বাংলাদেশের সম্পর্ক আরও সুদৃঢ় হবে বলে দৃঢ় প্রত্যয় ব্যক্ত করেন। এছাড়াও তিনি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার স্বপ্নপূরণে এই ২১৪ এমআরও ইউনিট ভবিষ্যতে বিমান প্রস্তুত করতে সক্ষম হবে বলে আশা ব্যক্ত করেন।
অনুষ্ঠানে বাংলাদেশ বিমান বাহিনী প্রধান এয়ার চীফ মার্শাল মাসিহুজ্জামান সেরনিয়াবাত ২১৪ এমআরওইউ ওভারহলিং ইউনিট হিসেবে সনদপত্র পাওয়ায় সন্তোষ প্রকাশ করেন এবং সেই সাথে ভবিষ্যতে বিমান বাহিনীর অপারেশনাল কার্যক্রম আরও ত্বরান্বিত হবে বলে আশা প্রকাশ করেন। অনুষ্ঠানে ভারপ্রাপ্ত সেনা ও নৌবাহিনী প্রধান, সাবেক বিমান বাহিনী প্রধানগণ, বিমান বাহিনীর উর্দ্ধতন কর্মকর্তা, চীনা দূতাবাসের প্রতিনিধিগণ এবং অন্যান্য সামরিক ও বেসামরিক ব্যক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন।-আইএসপিআর



 

Show all comments
  • ash ২৫ এপ্রিল, ২০১৯, ৬:৪৬ এএম says : 0
    SHADHINOTAR POR THEKEI CHINA ONEK VABE BANGLADESH KE HELP KORE ASHCHE, SHAMORIK, ROAD, BRIDGE, BINIOG ARO ONNANO DIK THEKE ! KINTU AMADER KUDUM PORSHI SHEI SHADHINOTAR POR THEKE A BANGLADESHER SHATHE DADA GIRI KORE JACHE , JOR KORE FARAKKA BAD DIE PANI DAKATI THEKE SHURU KORE BORDAR E NIRIO BANGLADESHI DER PAKHIR MOTO GULI KORE MARA, TADER RUBBISH PONNO JOR KORE BANGLADESH E DUMPP KORA THEKE AMON KISU BAKI NAI TARA KORCHE NA, KINTU ONNO DIKE BANGLADESHR PONNO TARA DUKTE DAY NA, ER PORE O OI JE ONARA BANGLADESHER KUDUM !! ONARA KISU CHABAR AGE E AMADER ... SOB KISU MELE DAY KUDUM DER, TAR WPORE OI KUDUM DER SHATHE SECURITY DEAL KORE CHINAKE KHEPIE DIESE, ER PORINOTITE CHINAR WSKANITE BURMAR SHOB ROHOGGADER THELE BANGLADESHE PATHIESE( THICK INDIA R SHATHE SECURITY DEAL KORAR KISUDINER MODDDY E) KINTU ER AGE BANGLADESHER SHATHE CHINAR SHOMPORKO ONEK GOVIR SILO, ( JETA AKHON NAI ) TAI TO CHINA BURMA KEI SUPPORT KORCHE & VITORE VITORE BURMAKE ARO WSKANI DICHE !! KINTU AMADER SHORKAR VAROT KUDUM DER NIE KUDUM KUDUM KORE JIKIR KORE E JACHE
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন