Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার ১৯ মে ২০১৯, ০৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৬, ১৩ রমজান ১৪৪০ হিজরী।
শিরোনাম

তাপদাহে পুড়ছে দেশ দুর্বিষহ জীবনযাত্রা

শফিউল আলম | প্রকাশের সময় : ২৬ এপ্রিল, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

তাপদাহে পুড়ছে সারাদেশ। দুর্বিষহ হয়ে উঠেছে মানুষের স্বাভাবিক জীবনযাত্রা। অসহ্য ভ্যাপসা গরমে আর ঘামে নেয়ে একাকার অবস্থা। বাতাসে যেন মরুর আগুন। গাছের ছায়াতলে কিংবা পুকুর-দীঘিতেও গা শীতল করার উপায় নেই। এমনকি বঙ্গোপসাগর বেষ্টিত কক্সবাজার, কুয়াকাটা, পতেঙ্গায় ৩৬ থেকে ৩৭.৫ ডিগ্রি রোদের খরতাপ। সৈকত প্রায় পর্যটকশূণ্য। গত তিন দিনের চলমান তাপপ্রবাহ গতকাল (বৃহস্পতিবার) সারাদেশে ছড়িয়ে পড়ে।
এবারের গ্রীষ্মে এ যাবত সবচেয়ে তপ্ত দিন পার হলো গতকাল। উত্তরের জনপদ রাজশাহীতে পারদ উঠে গেছে ৩৮ ডিগ্রি সেলসিয়াসে। যা চলতি গ্রীষ্ম মৌসুমে সর্বোচ্চ তাপমাত্রার রেকর্ড। ঢাকার তাপমাত্রার পারদ ৩৭.১, চট্টগ্রামের সীতাকুÐে ৩৭.৩ ডিগ্রি অতিক্রম করেছে। দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রার সঙ্গে পাল্লা দিয়ে বেড়েই চলেছে রাতের সর্বনি¤œ তাপমাত্রার পারদও। ছিটেফোঁটা বৃষ্টির দেখা মেলেনি কোথাও। ছিল না মেঘের আনাগোনা। প্রচÐ গরমে সবচেয়ে বেশি বিপাকে পড়েছেন দিনে এনে দিনে খাওয়া নি¤œআয়ের মানুষজন। বয়োবৃদ্ধ ও শিশুরা ভুগছে বিভিন্ন ধরনের মৌসুমী রোগব্যাধিতে। আবহাওয়া বিভাগ পূর্বাভাসে জানায়, আগামীকাল (শনিবার) দেশের বিভিন্ন এলাকায় বিক্ষিপ্ত বৃষ্টিপাত ও বজ্রবৃষ্টির সম্ভাবনা রয়েছে। এরফলে আগামী ২৪ ঘণ্টা পর কমতে পারে গরমের দাপট।
এদিকে নিরক্ষীয় ভারত মহাসাগর ও সংলগ্ন দক্ষিণ বঙ্গোপসাগরে গতকাল সৃষ্ট একটি লঘুচাপ কিছুটা শক্তি সঞ্চয় করে গত সন্ধ্যায় সুস্পষ্ট লঘুচাপে পরিণত হয়। এটি ক্রমেই ঘনীভূত হয়ে আজকের (শুক্রবার) মধ্যে নি¤œচাপে পরিণত হতে পারে। প্রসঙ্গত চলতি এপ্রিল ও মে মাসের দীর্ঘমেয়াদি পূর্বাভাসে জানানো হয়, বঙ্গোপসাগরে এ সময়ে একাধিক নি¤œচাপ থেকে সামুদ্রিক ঘূর্ণিঝড় উপকূলভাগে ছোবল হানার আশঙ্কা রয়েছে। এরই পরিপ্রেক্ষিতে আবহাওয়া দপ্তর সাগরে সৃষ্ট সুস্পষ্ট লঘুচাপের মতিগতির দিকে সতর্ক পর্যবেক্ষণ রেখেছে।
আজ শুক্রবার সন্ধ্যা পর্যন্ত ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে জানা গেছে, অস্থায়ীভাবে আংশিক মেঘলা আবহাওয়াসহ সারাদেশের আবহাওয়া প্রধানত শুষ্ক থাকতে পারে। ঢাকা, ময়মনসিংহ, রাজশাহী, রংপুর, খুলনা, বরিশাল, চট্টগ্রাম ও সিলেট বিভাগ তথা সমগ্র দেশের ওপর দিয়েই মৃদু ধরনের তাপপ্রবাহ বয়ে যাচ্ছে এবং তা অব্যাহত থাকতে পারে। সারাদেশে দিন রাতের তাপমাত্রা অপরিবর্তিত থাকতে পারে। আগামী ৪৮ ঘণ্টায় বৃষ্টি ও বজ্রসহ বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। এরফলে তাপমাত্রা হ্রাস পেতে পারে। এর পরের ৫ দিনে আবহাওয়ার উল্লেখযোগ্য পরিবর্তনের সম্ভাবনা নেই।
ট্রপিক্যাল মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডা. মোঃ আবুল কালাম বলেছেন, এহেন প্রচÐ গরমে অসুস্থতা বিশেষত হিটস্ট্রোক থেকে সুরক্ষা পেতে ঘন ঘন বিশুদ্ধ পানি, লেবু ও তাজা ফলের শরবত পান, রোদ পরিহার, ছায়াতে আশ্রয় নেয়ার পরামর্শ দিয়েছেন।
গতকাল দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা রাজশাহীতে (৩৮ ডিগ্রি সে.) ছাড়াও ঢাকায় ৩৭দশমিক১, চট্টগ্রামে ৩৭দশমিক৩ (সীতাকুÐ), ময়মনসিংহে ৩৬, চাঁদপুরে ৩৭, নোয়াখালীতে ৩৬দশমিক৮, সিলেটে৩৬দশমিক৭, রংপুরে ৩৫দশমিক৫, খুলনায় ৩৭, পটুয়াখালীতে ৩৭দশমিক৩ ডিগ্রি সে.। দেশের প্রায় সর্বত্র দিনের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৬ ডিগ্রির ঊর্ধ্বে এবং রাতের সর্বনি¤œ তাপমত্রাও ২৪ ডিগ্রির ওপরে অবস্থান করে।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: তাপদাহ

১৯ আগস্ট, ২০১৮

আরও
আরও পড়ুন