Inqilab Logo

ঢাকা, সোমবার ২৪ জুন ২০১৯, ১০ আষাঢ় ১৪২৬, ২০ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রীদের অবস্থান ধর্মঘট কর্মসূচী

জাবি সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ২৯ এপ্রিল, ২০১৯, ৭:৫৫ পিএম

ভর্তি হওয়ার পর দেড় বছর পার হলেও সিট না পেয়ে অবস্থান ধর্মঘট পালন করেছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ১৪জন ছাত্রী। সোমবার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের পুরাতন রেজিষ্ট্রার ভবনের সামনে এই কর্মসূচী শুরু করে ছাত্রীরা। পরে প্রশাসন হলে সিট দেওয়ার আশ‌্বাস দিলে ছাত্রীরা অবস্থান কর্মসূচী প্রত্যাহার করে।
জানা যায়, গত ২৩ জানুয়ারি নওয়াব ফয়জুন্নেসা হল প্রশাসন এক নোটিশে হলের ১১৪ ও ১১৫ নং রুম সংস্কারের সিদ্ধান্তের কথা জানায়। ওই দুটি গণরুমে অবস্থান করা ৪৭তম ব্যাচের৫৪ জন ছাত্রীকে অন্য তিনটি হলে স্থানান্তরিত করা হয়। এর মধ্যে শেখ হাসিনা হলে ২৯ জন, জাহানারা ইমাম হলে ২০ জন এবং বেগম সুফিয়া কামাল হলে ৪জন শিক্ষার্থীকে স্থানান্তর করা হয়।
তবে সম্প্রতি হল প্রশাসনের অনুষ্ঠিত এক সভায় স্থানান্তরিত ছাত্রীদের ফিরিয়ে আনতে খাট ও পড়ার টেবিল তৈরীর সিদ্ধান্ত নেয়া হয়। যেখানে ঈদের পর স্থায়ী সিটে ফিরিয়ে আনা হবে বলে জানানো হয়েছিল। কিন্তু পর্যাপ্ত বাজেট না থাকার অজুহাতে আসবাবপত্র তৈরী না করেই নওয়াব ফয়জুন্নেসা হল প্রশাসন ছাত্রীদের হলে আসতে চাপ সৃষ্টি করে। ফলে জানানারা ইমাম ও সুফিয়া কামাল হলে স্থানান্তরিত হওয়া ছাত্রীরা ঐসব হল প্রসাশনের নির্দেশে নওয়াব ফয়জুন্নেসা হলের গণরুমে ফিরে আসে। কিন্তু শেখ হাসিনা হলের ২৯জন শিক্ষার্থী গণরুমে ফিরে আসতে অস্বীকৃতি জানায়। এদের মধ্য থেকে ১৪ ছাত্রী সিটের দাবিতে আন্দোলনে নেমেছেন।
এই বিষয়ে আন্দোলনকারী ছাত্রীরা বলেন, ‘আবাসিক বিশ্ববিদ্যালয়ে আমাদের সিট নেই। দেড় বছর পরও গণরুমে থাকতে হচ্ছে। প্রশাসন নয় মাস যাবৎ আশ^াস দিয়ে এলেও কোন ফলাফল পাইনি। সমঅধিকারের দোহাই দিয়ে এমন অবিচার মানা সম্ভব না। তাই আজকে রাস্তায় নেমে এসেছি।’
তারা আরো বলেন, ‘আমাদের একটি নির্দিষ্ট হলের ছাত্রী না ভেবে বিশ‌্ববিদ্যালয়ের ছাত্রী ভাবা হোক। উদ্বাস্তুর মতো জীবন আমরা চাই না। আমরা সুষ্ঠু সমাধান চাই। পড়াশুনা ও বসবাসের জন্য একটা পরিবেশ চাই।’
এ দাবী মেনে নিয়ে বিশ^বিদ্যালয় উপাচার্য অধ্যাপক ড. ফারজানা ইসলাম ছাত্রীদের ডেকে নিয়ে বলেন, আজকে অবস্থানরত ১৪ জন ছাত্রী স্থায়ীভাবে শেখ হাসিনা হলে অবস্থান করতে পারবে। তাদের নওয়াব ফয়জুন্নেসা হলে ফিরে যেতে হবেনা।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ