Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ২ আশ্বিন ১৪২৬, ১৭ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জে গৃহবধূর লাশ উদ্ধার, স্বামী পলাতক

নোয়াখালী ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ২৯ এপ্রিল, ২০১৯, ৮:০৫ পিএম

বেগমগঞ্জ উপজেলার একলাশপুর ইউনিয়নে যৌতুকের জন্য তানজিনা আক্তার সাথী (২০) নামে এক গৃহবধূকে পিটিয়ে ও মুখে বিষ ঢেলে হত্যার অভিযোগ পাওয়া গেছে। ঘটনার পর থেকে নিহতের স্বামী সাজ্জাদুর রহমান সাজু পলাতক রয়েছে।

সোমবার সকালে জয়কৃষ্ণপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত তানজিলা আক্তার ওই গ্রামের আবুল হোসেনের মেয়ে।
জানা গেছে, ২০১৬ সালের নভেম্বর মাসে জয়কৃঞ্চপুর গ্রামের তানজিনা আক্তার সাথীর সাথে একই গ্রামের জসিম উদ্দিন রতনের ছেলে সাজ্জাদুর রহমান সাজুর বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই স্বামী তাকে যৌতুকের জন্য শারিরীক ও মানসিক নির্যাতন করতো।

নিহতের চাচা মিন্টু মিয়ার অভিযোগ, বিয়ের সময় সাথীর বাবা মেয়েকে ৬ভরি স্বর্ণালংকার দেয়। বিয়ের কিছু দিন পর থেকে সাজু যৌতুক দাবী করে আসছিল। মেয়ের সুখের কথা চিন্তা করে সাজুকে ৩ লাখ টাকা দেওয়া হয়। কিন্তু কয়েকদিন আগ থেকে পুনঃরায় টাকার দাবী করে সাজু। আর দাবীকৃত টাকা না পেয়ে সোমবার সকালে সাজু সাথীকে এলোপাথাড়ি মারধর করে ও পরে তার মুখে বিষ ঢেলে দেয়। পরে তাকে মুমূর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে নেওয়ার পর সে মারা যায়। এখন তারা ঘটনাকে আত্মহত্যা বলে প্রচার করছে।

বেগমগঞ্জ থানার ওসি ফিরোজ আলম মোল্লা জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছে। তবে লাশ হাসপাতাল থেকে সুধারাম থানা উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য মর্গে পাঠিয়েছে। তবে নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে কোন অভিযোগ আসেনি।
# # #

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: লাশ উদ্ধার


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ