Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার ২৩ এপ্রিল ২০১৯, ১০ বৈশাখ ১৪২৬, ১৬ শাবান ১৪৪০ হিজরী।

নতুন আফগান তালিবান নেতা মোল্লা আখুনজাদা

প্রকাশের সময় : ২৬ মে, ২০১৬, ১২:০০ এএম

মোল্লা ওমরের ছেলে মোল্লা মোহাম্মদ ইয়াকুব এবং সিরাজুদ্দিন হাক্কানিকে তালিবান উপ-প্রধান করা হয়েছে
ইনকিলাব ডেস্ক : আফগানিস্তানের তালিবান বাহিনীর প্রধান হিসেবে মোল্লা হায়বাতুল্লাহ আখুনজাদার নাম ঘোষণা করা হয়েছে। তিনি তালিবান বাহিনীর শীর্ষ পর্যায়ের নেতা। গতকাল বুধবার সংগঠনটির এক বিবৃতির বরাত দিয়ে এ তথ্য জানিয়েছে আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমগুলো। বিবৃতিতে আরো বলা হয়, দুজনকে তালিবান উপপ্রধান করা হয়েছে। তাদের একজন মোল্লা ওমরের ছেলে মোল্লা মোহাম্মদ ইয়াকুব, অন্যজন সিরাজুদ্দিন হাক্কানি। বিবৃতিতে সাবেক আফগান তালিবান প্রধান মোল্লা আখতার মনসুর নিহত হওয়ার বিষয়টিও স্বীকার করা হয়েছে। এর আগে গত শনিবার আফগানিস্তান-পাকিস্তান সীমান্তের প্রত্যন্ত এলাকা আহমেদ ওয়াল শহরে তালিবান বাহিনীর ওপর যুক্তরাষ্ট্রের ড্রোন হামলায় নিহত হন মনসুর। হামলায় মনসুর নিহত হওয়ার বিষয়ে ধোঁয়াশা থাকলেও ওই বিবৃতির মাধ্যমে ধোঁয়াশার অবসান ঘটালো তারা। এর আগে আফগানিস্তানের শীর্ষ তালিবান নেতা মোল্লা মোহাম্মদ ওমর ২০১৩ সালে মারা গেলেও তার দুই বছর পর নিশ্চিত করে সংগঠনটি। খবরে বলা হয়, ২০১৫ সালের জুলাই মাসে তালিবান নেতা মোল্লা মোহাম্মদ ওমর নিহত হলে মনসুর নতুন নেতা নির্বাচিত হন। মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জন কেরি বলেন, মনসুর মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে হামলার জন্য প্রায়ই হুমকি দিতেন মনসুর। এদিকে এ ড্রোন হামলার নিন্দা জানিয়ে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী নওয়াজ শরীফ বলেন, এই ধরনের হামলার মাধ্যমে পাকিস্তানের সার্বভৌমত্বের ওপর স্পষ্ট আঘাত করা হয়েছে। বিবিসির খবরে বলা হয়, গত শনিবার পাকিস্তানের বেলুচিস্তান প্রদেশে মোল্লা আখতার মনসুরের গাড়িতে হামলা চালায় যুক্তরাষ্ট্রের ড্রোন। এতে তার মৃত্যু হয়। তালিবানের প্রতিষ্ঠাতা ও আধ্যাত্মিক নেতা মোল্লা মোহাম্মদ ওমরের মৃত্যুর পর ২০১৫ সালের জুলাইয়ে সংগঠনটির দায়িত্ব নেন মোল্লা আখতার মনসুর। তার মৃত্যুর পর ধর্মীয় নেতা ও তালিবানের নিজস্ব আদালতের বিচারক হয়বতুল্লাহ আখুনজাদাকে স্থলাভিষিক্ত করা হলো। আখুনজাদাকে নির্বাচিত করার বিষয়ে দেওয়া বিবৃতিতে তালিবানের পক্ষ থেকে বলা হয়, শূরার (সর্বোচ্চ পর্ষদ) সদস্যদের সর্বসম্মতিতে ইসলামী আমিরাতের (তালিবান) নতুন নেতা হিসেবে হাবিবুল্লাহ আখুনজাদাকে নির্বাচিত করা হয়েছে। শূরার সব সদস্য তার প্রতি আনুগত্য প্রদর্শন করেছেন। ১৯৯৬ সালে আফগানিস্তানের ক্ষমতা দখল করেছিল তালিবানরা। পরে নাইন ইলেভেনের পর যুক্তরাষ্ট্র আফগানিস্তান দখল করলে তারা ক্ষমতা থেকে উৎখাত হয়। সিনহুয়া, বিবিসি, এএফপি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ