Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ১৩ আগস্ট ২০২০, ২৯ শ্রাবণ ১৪২৭, ২২ যিলহজ ১৪৪১ হিজরী

নারী নির্যাতন প্রতিরোধে আইন, অ্যাপস সম্পর্কে ধারণা নেই অধিকাংশের

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৩০ এপ্রিল, ২০১৯, ১০:০১ পিএম

বাল্য বিবাহ রোধসহ নারী নির্যাতন প্রতিরোধে দেশে বিভিন্ন আইন, অ্যাপস থাকলেও সেগুলো সম্পর্কে ধারণা নেই অধিকাংশের। কীভাবে এবং কোথায় গেলে সমস্যার সমাধান পাওয়া যায় সেই বিষয়টিও জানা নেই অনেকের। দেশে মেয়েদের ১৮ এবং ছেলেদের ২১ বছরের কম বয়সে বিয়ে করা নিষিদ্ধ এবং তা শাস্তিযোগ্য অপরাধ এই বিষয়ে অনেকে জানলেও বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন-২০১৭’র বিশেষ বিধানের কথা জানেন না বেশিরভাগ মানুষ। মঙ্গলবার (৩০ এপ্রিল) ‘বাল্য বিবাহ নিরোধ আইন ২০১৭ : প্রমাণিত তথ্য ও দৃষ্টিকোণ’ শীর্ষক এক গোল টেবিল আলোচনায় উপস্থাপিত প্রবন্ধে এবং অতিথিদের বক্তব্যে এমন তথ্যই উঠে এসেছে।

প্রসঙ্গত, দেশে ১৮ বছরের নীচে বিয়ে নিষিদ্ধ এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ। কিন্তু বাল্যবিবাহ নিরোধ আইন-২০১৭ অনুযায়ী, ১৮ বছরের নীচে বিয়ে নিষিদ্ধ করা হলেও, ঐ একই আইনের বিশেষ বিধানে তার আবার সুযোগও রাখা হয়েছে। বিশেষ বিধানের ১৯ ধারায় বলা হয়, ‘এই আইনের অন্যান্য বিধানে যা কিছুই থাকুক না কেন, বিধি দ্বারা নির্ধারিত কোনো বিশেষ প্রেক্ষাপটে অপ্রাপ্তবয়স্কদের সর্বোত্তম স্বার্থে, আদালতের নির্দেশ ও পিতা-মাতা বা প্রযোজ্য ক্ষেত্রে অভিভাবকের সম্মতিক্রমে, বিধি দ্বারা নির্ধারিত প্রক্রিয়া অনুসরণক্রমে বিয়ে সম্পাদিত হলে, তা এই আইনের অধীন অপরাধ বলে গণ্য হবে না। ডেইলি স্টারের মিলনায়তনে এই গোল টেবিল আলোচনার আয়োজন করে ব্লাস্ট, পপুলেশন কাউন্সিল, ইউনিভার্সিটি অব কেন্ট ও ইউনিভার্সিটি অব মালায়া। আলোচনায় সভাপতিত্ব করেন সাবেক তত্ত্বাবধায়ক সরকারের উপদেষ্টা রাশেদা কে চৌধুরী। প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ইউনিভার্সিটি অব কেন্টের অর্থনীতি বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক জাকি ওয়াহাজ, ইউনিভার্সিটি অব মালায়া’র অর্থনীতি বিভাগের অধ্যাপক মো. নিয়াজ আসাদুল্লাহ, পপুলেশন কাউন্সিলের সিনিয়র সহযোগী ড. সাজেদা আমিন। বক্তব্য রাখেন ব্লাস্টের নির্বাহী পরিচালক সারা হোসাইন। বিশেষ অতিথি ছিলেন মহিলা ও শিশু বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ড. আবুল হোসেন, জাতীয় মানবাধিকার কমিশনের সদস্য নূরুন নাহার ওসমানি।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ