Inqilab Logo

ঢাকা সোমবার, ৩০ নভেম্বর ২০২০, ১৫ অগ্রহায়ণ ১৪২৭, ১৪ রবিউস সানি ১৪৪২ হিজরী

ধর্ষণের চিত্র ফেসবুকে যুবক গ্রেফতার

পটিয়া (চট্টগ্রাম) উপজেলা সংবাদদাতা : | প্রকাশের সময় : ৪ মে, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

 ধর্ষণের ভিডিও ফেসবুকে ছেড়ে দেওয়ার অভিযোগে পুলিশ ধর্ষক আরিফকে গ্রেফতার করেছে। সে পটিয়া উপজেলার শোভনদন্ডী গ্রামের আজিজুর রহমানের পুত্র। চট্টগ্রামের পটিয়া পৌরসভার মুন্সেফ বাজার মহিউদ্দিন বিল্ডিং এর আবাসিক এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। গতকাল এ ব্যাপারে পটিয়া থানায় আরিফের বিরুদ্ধে দুইটি মামলা হয়েছে।
জানা যায়, রাঙ্গুনিয়া উপজেলার সরফ ভাটা এলাকার নাজিম উদ্দিন নামের ব্যক্তি পটিয়া পৌরসভার মুন্সেফ বাজার এলাকায় ভাড়া বাসায় থাকত। তার সাথে তার স্ত্রীও থাকতেন। নাজিম উদ্দিন একটি প্রাইভেট কোম্পানীতে চাকরি করতেন। সে সুবাদে ধর্ষক আরিফের সাথে নাজিমের যোগাযোগ ছিল। নাজিমের বাসায় আরিফ প্রায় সময় যাওয়া আসা করত। এর মধ্যে নাজিমের স্ত্রীর সাথে আরিফের পরকীয়া সম্পর্ক গড়ে উঠে। এ সুযোগে প্রায় সময় আরিফ নাজিমের স্ত্রীকে মুন্সেফ বাজার মহিউদ্দিন বিল্ডিং এর ভাড়াটিয়া বাসায় ধর্ষণ করতেন। কিছুদিন আগে নাজিমসহ তার স্ত্রী তাদের রাঙ্গুনিয়া নিজ বাড়ি এলাকায় চলে যায়।
গত কয়েকদিন আগে নাজিমের স্ত্রীকে আরিফ ফোনে জানায়, তোমার ভিডিও চিত্র আমার কাছে আছে। তুমি পটিয়া এসে আমার সাথে যোগাযোগ না করলে তা প্রচার করে দেব। কিন্তু নাজিমের স্ত্রী না আসায় ধর্ষণের ভিডিও চিত্র ফেসবুকে প্রচার করে দেয় আরিফ। গত ২ মে পটিয়া থানার ওসি বোরহান উদ্দিনকে জানালে তিনি আরিফকে তার শোভনদন্ডী গ্রামের বাড়ি থেকে গ্রেফতার করেন।
এ ব্যাপারে পটিয়া থানার ওসি বোরহান উদ্দিন জানান, গ্রেফতারের পর গতকাল শুক্রবার পটিয়া থানায় নারী নির্যাতন ও ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে আরিফের বিরুদ্ধে পৃথক দুইটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন