Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২০ জুন ২০১৯, ৬ আষাঢ় ১৪২৬, ১৬ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

গৌরনদী ও আড়াইহাজারে ২ শিশুকে ধর্ষণের অভিযোগ

অভ্যন্তরীণ ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৫ মে, ২০১৯, ১২:০৯ এএম

বরিশালের গৌরনদীতে জিলাপি খাওয়ানোর প্রলোভন দেখিয়ে ও আড়াইহাজারে দোকানদার একা পেয়ে জোরপূর্বক তার দোকানের ভেতরে নিয়ে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ বিয়য়ে আমাদের সংবাদদাতাদের পাঠনো প্রতিবেদন-
বরিশাল ব্যুরো জানায়, বরিশালের গৌরনদী উপজেলার কটকস্থল গ্রামে জিলাপি খাওয়ানোর প্রলোভন দেখিয়ে নয় বছর বয়সী প্রথম শ্রেনীর এক স্কুল ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগে তার মা গৌরনদী থানায় মামলা দায়ের করেছেন। তবে এর আগেই আত্মগোপন করেছে অভিযুক্ত আলী বেপারী (৪৫)।
স্থানীয়রা জানান, ওই স্কুল ছাত্রীর বাবা কিছুদিন আগে দ্বিতীয় বিয়ে করে। এরপর থেকে তিনি প্রথম স্ত্রী এবং ১ ছেলে ও দুই মেয়ে সন্তানের খোঁজ নিচ্ছে না। বাধ্য হয়ে গৃহবধূ গৃহকর্মীর কাজ করে ছেলে মেয়ে নিয়ে সংসার চালান এবং সন্তানদের পড়াশুনার ব্যবস্থা করেন। গৃহকর্মীর কাজের জন্য দিনের বেশীরভাগ সময় ছাত্রীর মাকে বাড়ির বাইরে থাকতে হয়। এ সুযোগে প্রতিবেশী দুই সন্তানের জনক গাছ ব্যবসায়ী আলী বেপারী শিশুটিকে ধর্ষণ করেছে।
ঘটনার দিন গত ২৫ এপ্রিল শিশুটিকে নিজ বাসায় একা পেয়ে জিলাপি খাওয়ানোর প্রলোভন দেখিয়ে তাকে ধর্ষণ করা হয়। এ ঘটনা কাউকে না জানানোর জন্য শিশুটিকে হুমকি দেয় ধর্ষক আলী বেপারী। পরদিন জামা-কাপড়ে রক্তের দাগ দেখে শিশুটির কাছে তার চাচী এর কারন জানতে চান। আলী বেপারীর ভয়ে শিশুটি বিষয়টি চেপে যাওয়ার চেষ্টা করে। এক পর্যায়ে চাচীর জিজ্ঞাসাবাদের মুুখে সব কিছু খুলে বলে। চাচী শিশুটির মাকে বিষয়টি জানান। তবে লোকলজ্জার ভয়ে তার মা বেশ কিছুদিন ঘটনা গোপন করে রাখেন। তবে এরই মধ্যে বিষয়টি প্রতিবেশীদের মধ্যে জানাজানি হয়।
স্থানীয়রা জানান, শিশুটির মা কয়েকজন স্বজন সঙ্গে নিয়ে বিচার চাইতে আলী বেপারীর বাড়িতে যান। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে আলী বেপারী ঘটনা সাজানো দাবি করে উল্টো শিশুটির মাকে নানা হুমকি দেয়। বিষয়টি নিয়ে বুধবার সকালে এলাকার গণ্যমান্য লোকজনের শালিস বসার কথা থাকলেও রাতেই আলী বেপারী এলাকা ছেড়ে আত্মগোপন করেন।
গৌরনদী থানার ওসি গোলাম সরোয়ার জানান, বুধবার বিকেলে শিশুটির মায়ের অভিযোগ এজাহার হিসাবে গ্রহণ করা হয়েছে। অভিযুক্ত আলী বেপারীকে গ্রেফতারে প্রচেষ্টা চলছে।
আড়াইহাজার (নারায়ণগঞ্জ) উপজেলা সংবাদদাতা জানান, আড়াইহাজারে ৫ম শ্রেনীর এক স্কুলছাত্রী ধর্ষণের শিকার হয়েছে। গণ শুক্রবার সন্ধ্যায় উপজেলার কালাপাহাড়িয়া ইউনিয়নের হাজীরটেক গ্রামে এই ঘটনা ঘটে। পুলিশ জানান, স্থানীয় স্কুলের ৫ম শ্রেনীর ছাত্রী ঘটনার সময় তার দোকান থেকে ডিম আনতে যায়। এ সময় দোকানদার আলাউদ্দিন (৩২) জোরপূর্বক তার দোকানের ভেতরে নিয়ে ধর্ষণ করে। এক পর্যায়ে শিশুটি চিৎকার শুরু করলে লম্পট আলাউদ্দিন দোকান রেখে পালিয়ে যায়। পরে মেয়েটিকে উদ্ধার করে আড়াইহাজার হাসপাতালে নিয়ে আসলে ডাক্তার তাকে নারায়ণগঞ্জ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। আলাউদ্দিন হাজীরটেক গ্রামের সিরাজুল ইসলামে ছেলে। এই ব্যাপারে ধর্ষিতার বাবা বাদী হয়ে আড়াইহাজার থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ধর্ষণের অভিযোগ


আরও
আরও পড়ুন