Inqilab Logo

ঢাকা, রোববার, ১৫ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৩১ ভাদ্র ১৪২৬, ১৫ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী।

ফোনালাপে ট্রাম্পকে সতর্ক পুতিনের

ভেনিজুয়েলার ভবিষ্যৎ নির্ধারণ করবে জনগণ, অন্য কেউ নয়

ইনকিলাব ডেস্ক : | প্রকাশের সময় : ৫ মে, ২০১৯, ১২:০৮ এএম

রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পকে বলেছেন, একমাত্র ভেনিজুয়েলার জনগণ সেদেশের ভবিষ্যত নির্ধারণ করবে অন্য কেউ নয়। তিনি শুক্রবার রাতে এক টেলিফোনালাপে ট্রাম্পকে আরো বলেন, বাইরে থেকে হস্তক্ষেপ করে ভেনিজুয়েলার সরকার পরিবর্তনের চেষ্টা করা হলে রাজনৈতিক উপায়ে দেশটির সংকট সমাধানের প্রক্রিয়া মারাত্মক ক্ষতিগ্রস্ত হবে। গত কয়েক সপ্তাহ ধরে ভেনিজুয়েলার বিরোধী পক্ষকে দিয়ে প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোর নির্বাচিত সরকার উৎখাতের চেষ্টা চালিয়ে আসছে আমেরিকা। গত সপ্তাহে মুষ্টিমেয় কিছু সেনা সদস্যকে সঙ্গে নিয়ে বিরোধীদলীয় নেতা হুয়ান গুয়াইদো সামরিক অভ্যুত্থানের যে চেষ্টা করেন মূল সেনা কমান্ডের সহযোগিতায় তা ব্যর্থ করে দিয়েছে মাদুরো সরকার। মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও সম্প্রতি ভেনিজুয়েলায় প্রয়োজনে সামরিক হস্তক্ষেপ করারও হুমকি দিয়েছেন। টেলিফোনালাপে রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিন মূলত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে পরোক্ষভাবে এ ধরনের কোনো হস্তক্ষেপের ব্যাপারে সতর্ক করে দিলেন। ভেনিজুয়েলার সেনাবাহিনী প্রেসিডেন্ট নিকোলাস মাদুরোর প্রতি পূর্ণ আনুগত্য প্রকাশ করেছে। ট্রাম্প প্রশাসন মাদুরো সরকারকে উৎখাতের চেষ্টা করলেও রাশিয়া এবং চীন মাদুরো সরকারের প্রতি প্রকাশ্য সমর্থন ঘোষণা করেছে। এদিকে পুতিন ও ট্রাম্প তাদের ফোনালাপে রাশিয়া, চীন ও আমেরিকার মধ্যে ত্রিপক্ষীয় পরমাণু চুক্তির সম্ভাব্যতা নিয়ে আলোচনা করেন। টেলিফোনালাপ শেষে এক টুইটার বার্তায় ট্রাম্প এই সংলাপকে ‘দীর্ঘ ও অত্যন্ত চমৎকার’ বলে অভিহিত করেছেন। তিনি দাবি করেছেন, রাশিয়া ও চীনের সঙ্গে সম্পর্কের উন্নতি আমেরিকার স্বার্থ রক্ষা করবে। মার্কিন পররাষ্ট্রমন্ত্রী মাইক পম্পেও সম্পতি ভেনেজুয়েলায় প্রয়োজনে সামরিক হস্তক্ষেপ করারও হুমকি দিয়েছেন। টেলিফোনালাপে রুশ প্রেসিডেন্ট পুতিন মূলত মার্কিন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পকে পরোক্ষভাবে এ ধরনের কোনও হস্তক্ষেপের ব্যাপারে সতর্ক করে দিলেন। ট্রাম্প প্রশাসন মাদুরো সরকারকে উৎখাতের চেষ্টা করলেও রাশিয়া এবং চীন মাদুরো সরকারের প্রতি প্রকাশ্য সমর্থন ঘোষণা করেছে। এদিকে পুতিন ও ট্রাম্প তাদের ফোনালাপে রাশিয়া, চীন ও যুক্তরাষ্ট্রের মধ্যে ত্রিপক্ষীয় পরমাণু চুক্তির সম্ভাব্যতা নিয়ে আলোচনা করেন। টেলিফোনালাপ শেষে এক টুইটার বার্তায় ট্রাম্প এই সংলাপকে ‘দীর্ঘ ও অত্যন্ত চমৎকার’ বলে অভিহিত করেছেন। তিনি দাবি করেছেন, রাশিয়া ও চীনের সঙ্গে সম্পর্কের উন্নতি যুক্তরাষ্ট্রের স্বার্থ রক্ষা করবে।পার্সটুডে, রয়টার্স।



 

Show all comments
  • মিরাজ মাহাদী ৫ মে, ২০১৯, ১:২৯ এএম says : 0
    সারা বিশ্বে অশান্তির মূলে এই দুই পরাশক্তি। সব জায়গায় তাদের বিপরীতমুখি মোড়লিপানা রক্তাক্ত করে তুলছে।
    Total Reply(0) Reply
  • তারেক ৫ মে, ২০১৯, ১:৩০ এএম says : 0
    যাক, ট্রাম্প একজন পাগল হওয়ায় রাশিয়া সকাল বিকাল হুমকি ধামকির ওপর রাখতে পারে। ওবামা থাকলে এত সহজ ছিল না।
    Total Reply(0) Reply
  • হাসিবুল ইসলাম ৫ মে, ২০১৯, ১:৩১ এএম says : 0
    ভেনুজুয়েলায় অস্থিরতার মূলে উম্মাদ ট্রাম্প। একটা শান্ত সুষ্ঠু দেশকে অস্থিতীশীল করে ফায়দা লুটতে চেয়েছিল, কিন্তু পুতিন কাকু হতে দেননি।
    Total Reply(0) Reply
  • চরমপন্থী বয়কট কর ৫ মে, ২০১৯, ১:৩২ এএম says : 0
    সাবাস পুতিন। এভাবেই ট্রাম্পকে হুমকির ওপর রাখতে হবে। আমেরিকার কর্তৃত্ববাদী মনোভাবে সারা বিশ্বে আজ রক্ত ঝরছে।
    Total Reply(0) Reply
  • আবির ৫ মে, ২০১৯, ৯:৪৩ এএম says : 0
    ট্রাম্পকে সতর্ক হতে হবে। না হলে নিজেদের ক্ষতি বেশি হবে।
    Total Reply(0) Reply
  • আমার প্রিয় নেতা, মুসলিম দের বন্দু পুতিন
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ