Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ০৬ কার্তিক ১৪২৬, ২২ সফর ১৪৪১ হিজরী

জাতীয় জুনিয়র দাবা শুরু ১৫ মে

স্পোর্টস রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৫ মে, ২০১৯, ৯:০৫ পিএম

দেশের শীর্ষস্থানী শিল্প প্রতিষ্ঠান ওয়ালটন গ্রুপের পৃষ্ঠপোষকতায় ৩৯তম জাতীয় জুনিয়র অনুর্ধ্ব-২০ দাবা চ্যাম্পিয়নশিপের খেলা শুরু হচ্ছে ১৫ মে থেকে। চলবে ২১ মে পর্যন্ত। এ আসরে ১৫০ জন দাবাড়– অংশ নিচ্ছেন। প্রতিযোগিতার উন্মুক্ত ও বালিকা বিভাগের দু’টি ইভেন্টই সুইস লিগ পদ্ধতিতে অনুষ্ঠিত হবে। এবারের জাতীয় জুনিয়র দাবায় খেলছেন ফাহাদ, সুব্রত, নাঈম, মনন, অনন্ত, শাদাবের মতো রেটিংধারি দাবাড়–রা।

২০১২ সাল পর্যন্ত বাংলাদেশে রেটিংধারি দাবাড়– ছিলেন প্রায় ৪০০ জন। বর্তমানে এর সংখ্যা বেড়ে দাড়িয়েছে ১৩৩০ জনে। এ বছরই ১৪০০ জন দাবাড়– রেটিংভুক্ত হবেন বলে আশা করছে বাংলাদেশ দাবা ফেডারেশনের কর্তারা।

জাতীয় চ্যাম্পিয়নশিপ থেকে রেটেড খেলোয়াড়রা তাদের রেটিং বৃদ্ধি করতে পারবেন। আর নতুন খেলোয়াড়রা রেটিং লাভ করার সুযোগ পাবেন। দু’টি বিভাগেরই চ্যাম্পিয়নরা খেলার সুযোগ পাবেন ৩০ জুন থেকে ৮ জুলাই পর্যন্ত ইন্দোনেশিয়ায় হতে যাওয়া এশিয়ান জুনিয়র চ্যাম্পিয়নশিপে এবং অক্টোবরে দিল্লী’র ওয়ার্ল্ড জুনিয়র চ্যাম্পিয়নশিপে। রোববার জাতীয় ক্রীড়া পরিষদের পুরাতন ভবনের সভাকক্ষে এক সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান দাবা ফেডারেশনের সাধারণ সম্পাদক সৈয়দ শাহাব উদ্দিন শামীম। এসময় উপস্থিত ছিলেন পৃষ্ঠপোষক ওয়ালটনের প্রতিনিধি ইকবাল বিন আনোয়ার ডন, এটিএন বাংলার মীর মোতাহার হোসেন, দাবা ফেডারেশনের সহ-সভাপতি কেএম শহীদুল্লাহ।

আন্তর্জাতিক অরবিটর হারুন অর রশিদ বলেন, ওই দু’টি আন্তর্জাতিক টুর্নামেন্টে চ্যাম্পিয়নদের জন্য আয়োজকরা লজিস্টিক সাপোর্ট দিবে। তবে তালিকায় থাকা অন্য শীর্ষরাও নিজ খরচে যেতে পারবেন। দিল্লীতে যে ওয়ার্ল্ড জুনিয়র চ্যাম্পিয়নশিপ হবে সেখানে গ্র্যান্ডমাস্টার নর্মের জন্য অংশ নেয়াটা জরুরী।’ জুনিয়র চ্যাম্পিয়নশিপে ওপেন বিভাগের ছয়টি ও বালিকা বিভাগের চারটি খেলা ইন্টারনেটের মাধ্যমে সরাসরি প্রচার করবে দাবা ফেডারেশন।

 

 



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: জুনিয়র দাবা
আরও পড়ুন