Inqilab Logo

বুধবার, ২৯ জুন ২০২২, ১৫ আষাঢ় ১৪২৯, ২৮ যিলক্বদ ১৪৪৩ হিজরী
শিরোনাম

ফুরফুরে মেজাজে বিএনপি ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরা

আ.লীগে বিদ্রোহী

প্রকাশের সময় : ২৭ মে, ২০১৬, ১২:০০ এএম

জীবননগর (চুয়াডাঙ্গা) উপজেলা সংবাদদাতা
চুয়াডাঙ্গার জীবননগর উপজেলার সীমান্ত ও আন্দুলবাড়িয়ার ইউপি নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থীদের দাপটে ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের প্রার্থীরা বিড়ম্বনায় পড়েছে। আগামীকাল এই দুটি ইউনিয়নে ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। ক্ষমতাসীন দলের প্রার্থীদের বিরুদ্ধে বিদ্রোহী প্রার্থী থাকায় ফুরফুরে মেজাজে রয়েছে বিএনপি ও স্বতন্ত্রপ্রার্থীরা। জীবননগর সীমান্ত  ইউনিয়নে আওয়ামী লীগ মনোনীত জাকির হোসেন নৌকা প্রতীকে নির্বাচনী মাঠে রয়েছে। এই ইউনিয়নে বিদ্রোহী আব্দুল মালেক মোল্লা (আনারস) প্রতীকে প্রচার প্রচারণা চালিয়ে যাচ্ছেন। ক্ষমতাসীন দলে বিদ্রোহী প্রার্থী থাকায় নেতাকর্মীরা রয়েছে দ্বিধা দ্বন্দ্বে। এছাড়াও স্বতন্ত্র বর্তমান চেয়ারম্যান আব্দুল হান্নান (মোটরসাইকেল) বিএনপি মনোনীত মঈন উদ্দীন ময়েন (ধানের শীষ) ও ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের ইজাজুল হক বিশ্বাস (হাতপাখা) প্রতীকে নির্বাচনী মাঠে ভোটযুদ্ধে নেমেছে। অপর দিকে ৯টি ওয়ার্ডে সাধারণ সদস্য পদে ৪৩ জন ও সংরক্ষিত মহিলা আসনে ১১ জন প্রার্থী নির্বাচনে ভোটযুদ্ধ চালিয়ে যাচ্ছে। আন্দুলবাড়ীয়া ইউনিয়নে ছয় জন  চেয়ারম্যান প্রার্থী নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। আওয়ামী লীগ মনোনীত মির্জা হাকিবুর রহমান লিটন (নৌকা), বিদ্রোহী শেখ শফিকুল ইসলাম মোক্তার (আনারস), বর্তমান চেয়ারম্যান স্বতন্ত্র সাখাওয়াত হোসেন (মোটরসাইকেল), বিএনপি মনোনীত আতিয়ার রহমান (ধানের শীষ), বিদ্রোহী সাব্দার রহমান (ঘোড়া) ও ওয়ার্কাস পার্টির নজরুল ইসলাম (হাতুড়ী) প্রতীক নিয়ে নির্বাচনী প্রচারণা চালাচ্ছেন। এছাড়াও ৯টি ওয়ার্ডে সাধারণ সদস্য পদে ৪৫ জন ও সংরক্ষিত মহিলা আসনে ৯ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ফুরফুরে মেজাজে বিএনপি ও স্বতন্ত্র প্রার্থীরা
আরও পড়ুন