Inqilab Logo

ঢাকা শনিবার, ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০, ০৪ আশ্বিন ১৪২৭, ০১ সফর ১৪৪২ হিজরী
শিরোনাম

ধর্ম প্রতিমন্ত্রীর নেতৃত্বে মাহে রমজানের র‌্যালী আজ

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৭ মে, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

মাহে রমজানের পবিত্রতা রক্ষার আহ্বান জানিয়ে আজ সোমবার সকাল ১০টায় জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমের দক্ষিণ গেটে ইফার উদ্যোগে স্বাগত র‌্যালী ও সমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকবেন ধর্ম প্রতিমন্ত্রী আলহাজ এডভোকেট শেখ মো. আব্দুল্লাহ।
জুলাইয়ের মধ্যে সারাদেশে ই-মিউটেশন শেষ হবে
সেমিনারে ভূমিমন্ত্রী
স্টাফ রিপোর্টার : আগামী জুলাই মাসের মধ্যে সারাদেশে জমির ই-মিউটেশন (নামজারি) সম্পন্ন হবে বলে জানিয়েছেন ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী। গতকাল রোববার রাজধানীর সোনারগাঁও হোটেলে নগরায়ন ও বিকেন্দ্রীকরণে আবাসন খাতের চ্যালেঞ্জ› শীর্ষক সেমিনারে তিনি একথা বলেন। সেমিনারটির আয়োজন করে ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (ডিসিসিআই)।
মন্ত্রী বলেন, সরকার অটোমেশনের মাধ্যমে ই-মিউটেশনের ডেডলাইন দিয়েছ জুন ও জুলাই মাস। এই সময়ের মধ্যে বাংলাদেশকে ই-মিউটেশনের আওতায় আনা হবে। আমরা ঢাকা শহরকে সিস্টেমেটিক টাউন হিসেবে দেখতে চাই। বর্তমান সরকার ক্ষমতায় আসার পর থেকে অবকাঠামোগত উন্নয়ন করে চলেছে। প্রমোশনালি উন্নয়ন হচ্ছে। আওয়ামী লীগের নির্বাচনী ইশতেহারেই ছিল গ্রাম হবে শহর, সে অনুযায়ী আমরা কাজ করে যাচ্ছি। জমির দাম বেড়ে যাওয়ার জন্য রিয়েল স্টেট কোম্পানিকে দায়ী করেন তিনি।
মন্ত্রী বলেন, জমির দাম সরকার নয়, আপনারা বাড়াচ্ছেন। ল্যান্ড ওনারদের জমি নিয়ে ফ্ল্যাট তৈরি করে ৫০ শতাংশ বা অনেক স্থানে ৬০ শতাংশ ফ্ল্যাট দিচ্ছেন। শুধু তাই নয়, এর সঙ্গে নগদ ক্যাশও আপনারা দিচ্ছেন। এভাবে আপনারাই জায়গার দাম বাড়িয়ে দিয়েছেন। নগরায়ন বিকেন্দ্রীকরণ করতে প্রাইভেট সেক্টরকে রোল প্লে করতে হবে। ইন্টারেস্ট রেট কমিয়ে আনতে হবে এবং দামি নয়, সাশ্রয়ী মূল্যে ফ্ল্যাট তৈরি করতে হবে।
সেমিনারে ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মেয়র আতিকুল ইসলাম বলেন, গার্মেন্টস সেক্টরকে আমরা যেভাবে নিরাপদে নিয়ে গেছি ঢাকা শহরকে সেভাবেই নিরাপদ করবো। প্ল্যান অনুযায়ী ঢাকা শহরে বিল্ডিং উঠলেও মনিটরিং সিস্টেম নেই।
তিনি বলেন, রানা প্লাজা থেকে আমরা ঘুরে দাঁড়িয়েছি। অনেকেই বলেছিলো আমাদের দেশে কোনো গার্মেন্টস ফিরবে না। আমরা ঘুরে দায়িয়েছি। ঠিক তেমনিভাবেই ঢাকা শহরকে নিরাপদ বাসযোগ্য করতে আমরা একসঙ্গে কাজ করবো। ২৭টি মাঠ খেলাধুলার জন্য ফিরিয়ে আনতে আমরা কাজ করে যাচ্ছি। মানুষ রাতে হাঁটাহাঁটি করতে পারবে এই মাঠে। এছাড়াও অটোমেশনের কাজ চলছে। ঢাকা শহরের নাগরিকরা আগামীতে অটোমেশনের মাধ্যমে তাদের ট্যাক্স দিতে পারবেন।
সেমিনারে রিহ্যাবের সভাপতি আলমগীর শামসুল আলামিন বলেন, আমাদের সদস্যরা নিজস্ব সম্পদ, নিজস্ব অর্থায়নে কাজ করে যাচ্ছে। ইতোমধ্যে আমরা দুই লাখ ফ্ল্যাট এবং ৭০ হাজার প্লট হস্তান্তর করেছি। ডিসিসিআই সভাপতি ওসামা বিন তাসির বলেন, আবাসনখাতে একটি স্বাধীন স্ট্যান্ডার্ড রেটিং পদ্ধতি চালু করা প্রয়োজন। আর্থিক স্বচ্ছলতা, নির্মাণের গুণগত মান, জনবলের অভিজ্ঞতা, ভোক্তা সেবার মান, ডিজাইন, স্বচ্ছতা প্রভৃতির উপর ভিত্তি করে এই রেটিং পদ্ধতি চালু করা যেতে পারে।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন