Inqilab Logo

ঢাকা, বৃহস্পতিবার ২৭ জুন ২০১৯, ১৩ আষাঢ় ১৪২৬, ২৩ শাওয়াল ১৪৪০ হিজরী।

ইমামদের জন্য ভিসা কঠোর করছে শ্রীলঙ্কা

নেগম্বোতে মুলমান-খ্রীষ্টান সংঘর্ষ, কারফিউ জারি

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ৯ মে, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

ভিসা ব্যবস্থা আরো কঠোর করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে শ্রীলঙ্কা সরকার। সোমবার দেশটির স্বরাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী ওয়াজিরা আবেবর্ধনে এই তথ্য জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন, ‘বর্তমান পরিস্থিতি বিবেচনা করে আমরা ভিসা সিস্টেম পর্যালোচনা করেছি এবং ইমামদের জন্য ভিসা বিধিনিষেধ কঠোর করার সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’ এদিকে, নেগোম্বো শহরে সোমবার মুসলমান-খ্রীষ্টান সংঘর্ষের পর সেখানে কারফিউ জারি করে কর্তৃপক্ষ। খবর নিউজ রিপাবলিক।
বার্তা সংস্থা এএফপি’কে দেয়া এক সাক্ষাতকারে আবেবর্ধনে জানান, ২০০ মুসলিম ইমামকে আটক করা হয়েছিল ভিসার মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ার পরেও সেখানে অবস্থানের কারনে। পরে তাদেরকে জরিমানা করে সে দেশ থেকে বহিষ্কার করা হয়।
এদিকে, কলম্বোর উত্তরাঞ্চলের নেগোম্বো শহরে সোমবার মুসলিমদের বাড়িঘর, দোকানপাট ও যানবাহনে হামলা করে দেশটির উগ্রপন্থী খ্রিষ্টানরা। ওই হামলার পর শহরটিতে কারফিউ জারি করেছে কর্তৃপক্ষ। হামলার পর দেশটির রোমান ক্যাথলিক চার্চের যাজক উভয় সম্প্রদায়কে শান্ত থাকার ও মদ নিষিদ্ধের আহ্বান জানিয়েছেন। গত ২১ এপ্রিল ইস্টার সানডের সকালে নেগোম্বো শহরেও আত্মঘাতী হামলা হয়। ওই হামলার পর অনেক মুসলিম তাদের বাড়িঘর ছেড়ে অন্যত্র পালিয়ে গেছেন। এর মাঝেই সোমবার মুসলিমদের দোকানপাট, বাড়িঘর ও যানবাহনে হামলার ঘটনা ঘটেছে। মুসলিমদের কয়েক ডজন বাড়িঘর, দোকান ও যানবাহন আক্রান্ত হওয়ার কারফিউ কার্যকর করার জন্য শহরটিতে নিরাপত্তাবাহিনীর শত শত সদস্য প্রবেশ করেছেন।
গত ২১ এপ্রিল দেশটির যে তিনটি গির্জা ও তিনটি বিলাসবহুল হোটেলে আত্মঘাতী হামলা হয়েছিল; রাজধানী কলম্বো থেকে ৪০ কিলোমিটার উত্তরাঞ্চলের সেন্ট সেবাস্তিয়ান গির্জাও সেগুলোর একটি। ইস্টার সানডের ওই হামলায় অন্তত ২৫৭ জনের প্রাণহানি ঘটেছে।
দেশটির পুলিশের শীর্ষ এক কর্মকর্তা বলেছেন, সোমবারের সংঘর্ষের পর নেগোম্বো থেকে অন্তত দু’জনকে গ্রেফতার এবং আরো কয়েকজন সন্দেহভাজন হামলাকারীকে ভিডিওফুটেজ দেখে শনাক্ত করা হয়েছে। ইস্টার সানডের পর দেশটির পার্লামেন্টে পাস হওয়া জরুরি আইনে এই হামলাকারীদের বিচার হবে বেলে জানিয়েছেন তিনি।
লঙ্কান এই পুলিশ কর্মকর্তা বলেন, খ্রিষ্টান-মুসলিমদের সংঘর্ষে অন্তত তিনজন আহত হয়েছেন। যদিও আমরা এ মুহূর্তে মাত্র দু’জনকে গ্রেফতার করেছি। আরো বেশ কয়েকজনকে শনাক্ত করা হয়েছে; শিগগিরই তাদের গ্রেফতার করা হবে।
সোমবার রাতের হামলায় যারা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছেন তাদের ক্ষতিপূরণ দেয়া হবে বলে দেশটির প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংহে এক বিবৃতিতে জানিয়েছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: শ্রীলঙ্কা


আরও
আরও পড়ুন