Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২৩ আগস্ট ২০১৯, ০৮ ভাদ্র ১৪২৬, ২১ যিলহজ ১৪৪০ হিজরী।
শিরোনাম

‘শতাব্দীর সেরা চুক্তি’ ফাঁস

ফিলিস্তিন নামে কোন দেশ থাকবে না

ইনকিলাব ডেস্ক | প্রকাশের সময় : ৯ মে, ২০১৯, ১২:০৪ এএম

ফিলিস্তিন ইস্যুতে মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ইসরাইল ঘেঁষা শান্তি পরিকল্পনার বিভিন্ন দিক নানা সময়ে সংবাদমাধ্যমের শিরোনাম হয়েছে। যুক্তরাষ্ট্র কর্তৃক রমজানের পর এটি আনুষ্ঠানিকভাবে ঘোষণা করার কথা রয়েছে। তবে তার আগেই মঙ্গলবার ইসরাইলের একটি সরকারপন্থী সংবাদমাধ্যমে ওই পরিকল্পনা প্রকাশিত হয়েছে। মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প এবং ইসরাইলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু ওই চুক্তিটি স্বাক্ষর করেছেন। দুই দেশের পক্ষ থেকে এর নাম দেওয়া হয়েছে ডিল অব দ্য সেঞ্চুরি বা শতাব্দীর সেরা চুক্তি। চুক্তিটি এখনও পর্যন্ত আনুষ্ঠানিকভাবে প্রকাশ করা না হলেও ইসরাইলের পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের কাছে চুক্তিটি সরবরাহ করা হয়েছে। তবে যুক্তরাষ্ট্র, ইসরাইল বা ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের তরফে সংবাদমাধ্যমে প্রকাশিত চুক্তিটির সত্যতা নিশ্চিত করা হয়নি। নিচে ট্রাম্পের কথিত ওই শান্তি পরিকল্পনার কয়েকটি মৌলিক বিষয় তুলে ধরা হ’লঃ
ইসরাইল, পিএলও এবং হামাসের মধ্যে একটি ত্রিপাক্ষিক চুক্তি স্বাক্ষরিত হবে। ফিলিস্তিন নামে কোনও দেশ থাকবে না। চুক্তি অনুযায়ী, নতুন ফিলিস্তিনি রাষ্ট্রের নাম হবে নিউ প্যালেস্টাইন। গাজা উপত্যকা, যিহূদিয়া পার্বত্য এলাকা এবং পশ্চিম তীরের সামারিয়া এলাকা নিয়ে গঠিত হবে নিউ প্যালেস্টাইন। তবে পশ্চিম তীরের ইসরাইলি বসতিগুলোর ওপর তার কোনও সার্বভৌমত্ব থাকবে না। এসব বসতির সার্বভৌমত্ব থাকবে ইসরাইলের হাতে। জেরুজালেম নগরী নিয়ে কোনও ভাগাভাগি হবে না। বরং এটি হবে নিউ প্যালেস্টাইন ও ইসরাইল উভয় দেশের রাজধানী।
নগরীর আরব বাসিন্দারা নিউ প্যালেস্টাইনের নাগরিক হিসেবে বিবেচিত হবেন। আর ইহুদিরা ইসরাইলি নাগরিক হিসেবে সেখানে বসবাস করবেন। ইহুদিরা আরবদের ঘরবাড়ি কিনতে পারবে না। আরবরাও ইহুদিদের বাড়িঘর কিনতে পারবে না। জেরুজালেমে নতুন আর কোনও এলাকা দখল করা হবে না। পবিত্র স্থানগুলোর বিদ্যমান অবস্থা বজায় থাকবে। উভয় দেশের অখন্ড রাজধানী জেরুজালেমের নিয়ন্ত্রণ থাকবে ইসরাইলের জেরুজালেম পৌরসভার হাতে। তবে সেখানকার শিক্ষা ব্যবস্থার নিয়ন্ত্রণ থাকবে ফিলিস্তিনি কর্তৃপক্ষের হাতে। ইসরাইলের জেরুজালেম পৌরসভার কাছে ট্যাক্স ও পানির বিল সরবরাহ করবে নিউ প্যালেস্টাইন।
ফিলিস্তিনে একটি বিমানবন্দর নির্মাণের জন্য মিসর নতুন জমি দেবে। কলকারখানা নির্মাণ, বাণিজ্যিক ও কৃষি খাতে ব্যবহারের জন্যও নতুন ভূখন্ড দেবে মিসর। তবে ফিলিস্তিনিরা এখানে বসবাসের সুযোগ পাবে না। লিজ বাবদ মিসরকে মূল্য পরিশোধ করবে নিউ ফিলিস্তিন। লিজ বাবদ ঠিক কী পরিমাণ অর্থ পরিশোধ করা হবে তা নির্ধারণ করে দেবে মধ্যস্থতাকারী ও সহযোগী দেশগুলো।
ঐতিহাসিকভাবেই মধ্যপ্রাচ্যের শান্তি প্রশ্নে যুক্তরাষ্ট্রের অবস্থান ইসরাইল-ঘেঁষা। তবে ওবামা প্রশাসন পর্যন্ত তারা দ্বি-রাষ্ট্রভিত্তিক সমাধান প্রক্রিয়ার পক্ষে ছিল। বিগত মার্কিন প্রশাসনগুলো চাইতো, দুই দেশের মধ্যকার সমস্যার দ্বিরাষ্ট্রভিত্তিক সমাধান হোক। অধিকৃত ফিলিস্তিনি ভূখন্ডে ইসরাইলি বসতি স্থাপন বন্ধের পাশাপাশি ১৯৬৭ সালের প্রস্তাবিত সীমানা অনুযায়ী স্বাধীন ফিলিস্তিন রাষ্ট্র গঠনের পক্ষেই অবস্থান ছিল তাদের। তবে ট্রাম্প সমগ্র জেরুজালেমকে ইসরাইলের রাজধানী স্বীকৃতি দিয়ে সেই দ্বিরাষ্ট্রভিত্তিক সমাধানের কফিনে শেষ পেরেক পুঁতে দেন। নির্বাচনী প্রচারণার সময় থেকেই দ্বিরাষ্ট্রভিত্তিক সমাধান নীতির সমালোচনা করে আসা ট্রাম্প ক্ষমতায় আসার পরপরই নতুন শান্তি প্রস্তাব তৈরির কথা জানান। সূত্র : আনাদোলু এজেন্সি, মিডল ইস্ট মনিটর।



 

Show all comments
  • Abdul Mukit ৯ মে, ২০১৯, ১:২০ এএম says : 0
    আর বেশী দেরী না ইসরাইল মুছে যাবে
    Total Reply(0) Reply
  • L D A Masum ৯ মে, ২০১৯, ১:২০ এএম says : 0
    ঈসরাঈল জাতিকে ঘুড়িয়ে দিতে হবে।
    Total Reply(0) Reply
  • M A Kashem Majumder ৯ মে, ২০১৯, ১:১৯ এএম says : 0
    একবিংশ শতাব্দী দিচ্ছে ডাক, ইসরাইল নিপাত যাক।।
    Total Reply(0) Reply
  • Mejanur Rahaman ৯ মে, ২০১৯, ১:২০ এএম says : 0
    ফিলিস্তান কি ডোনাল্ড ট্রাম্প আর নেতিইয়াহুর বাপের সম্পত্তি নয় এটা মুসলমানদের ভূখন্ড যারা শেষ করতে আসবে তারা নিজেরাই শেষ হয়ে যাবে,,
    Total Reply(0) Reply
  • James Madison ৯ মে, ২০১৯, ১:২০ এএম says : 1
    বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু আর ডোনাল্ড ট্রাম্প সমকামী স্বামী-স্ত্রী। এ ব্যাপারটাও বিশ্ববাসীর কাছে অচিরেই ফাঁস হয়ে যাবে।
    Total Reply(0) Reply
  • Mehedi Reza ৯ মে, ২০১৯, ১:২১ এএম says : 0
    প্রয়োজনে যুদ্ধ হবে তারপরেতারপরেও আলআকসার ব্যাপারে কোন ছাড় না হওয়ায় উওম।
    Total Reply(0) Reply
  • Saddat Mollik Shyamol ৯ মে, ২০১৯, ১:২১ এএম says : 0
    This impact will not be success because others super powers will protest against it.
    Total Reply(0) Reply
  • Sahadat Hossain ৯ মে, ২০১৯, ১:২২ এএম says : 0
    হায়রে মুসলিম জাতী আজ কোথায় গিয়ে দাঁড়ালো??? একজনের রক্ত আরেক জন ঝরাচ্ছে।আরব বিশ্ব আজ বিভক্ত হয়ে ইহুদি খ্রিষ্টানের দালালিতে ব্যাস্ত।আরব বিশ্বের নেতারা আজ বিশ্ব দালালে পরিনত হয়েছে।মদ, নারী, লোভ লালসা এবং হিংসা বিদ্বেষ আজ তাদের ধ্বংশের দ্বার প্রান্তে নিয়ে গেছে।বিভক্ত আরব মুসলিমদের রক্ত শকুনে কুরে কুরে খাচ্ছে।আর তাদের সম্পদ ইহুদি খ্রিষ্টান লুটে নিয়ে আজ তারা সমৃদ্ধ হচ্ছে।ধিক্কার জানানো উচিৎ এ সকল বিশ্ব দালালদের।যে আরব বিশ্ব দালালি করে ফিলিস্থিন দখলের পায়তারা করতেছে।সে ফিলিস্থিনের জেরু জালেম থেকে এক দিন ইসলামের ঝান্ডা সারা দুনিয়ায় ছড়ানো হবে।আর সেই দিন কিয়ামত হবে।
    Total Reply(0) Reply
  • Md Ibrahim Khan ৯ মে, ২০১৯, ১:২২ এএম says : 0
    আল্লাহ আমাদেরকে তুমি এমন একটা নেতা দাও যে আমাদের জন্য লডবে আর এসব নেতাদের তুমি ধংস করে দাও যারা নিজেদের খমতার জন্য নিজ লোকদের সাথে বেঈমানি করে এবং ধর্মকে ব্যবহার করে
    Total Reply(0) Reply
  • mdbulbulkhan ৯ মে, ২০১৯, ১:৫৬ এএম says : 0
    এই চুকতিটি কোনোভাব মেনেনেয়োয়া জাইনা
    Total Reply(0) Reply
  • mdbulbulkhan ৯ মে, ২০১৯, ১:৫৬ এএম says : 0
    এই চুকতিটি কোনোভাব মেনেনেয়োয়া জাইনা
    Total Reply(0) Reply
  • mdbulbulkhan ৯ মে, ২০১৯, ১:৫৯ এএম says : 0
    এই চুকতিটি কোনোভাব মেনেনেয়োয়া জাইনা
    Total Reply(0) Reply
  • Abdur Razzak Biswas ৯ মে, ২০১৯, ১০:৫২ এএম says : 0
    বিচার মানি তবে তালগাছটা আমার। .....................
    Total Reply(0) Reply
  • Saleh Ahmed Nayeem ৯ মে, ২০১৯, ৩:৫৪ এএম says : 0
    আজ বিশ্ব মুসলিমএক হওয়ার সময় এসেছে। আরব দেশগুলোর স্বার্থপরতার ফল বিশ্ব মুসলিমরা সমাধান আনতে এক হতে হবে। I would like to ask American people that are you not human? If you're then will will desire to be landles, homeles???? If your answeris not then don'tyou see what your president doing?? In Sha Allah according to holy Quran and prediction given by our prophet Muhammad (SM), The day is coming muslim will win the world and every non-muslim will be punished. The day is not far away.
    Total Reply(0) Reply
  • Afzalur ৯ মে, ২০১৯, ৭:১০ এএম says : 0
    Tell them from me ........ you both of them
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ফিলিস্তিন


আরও
আরও পড়ুন
এ বিভাগের অন্যান্য সংবাদ