Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ০৬ কার্তিক ১৪২৬, ২২ সফর ১৪৪১ হিজরী

বরিশালের গৌরনদীতে মাদ্রাসা ছাত্রীকে অপহরণ ও ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার দুই ১১দিন পর অপহৃতাকে উদ্ধার

বরিশাল ব্যুরো | প্রকাশের সময় : ১৩ মে, ২০১৯, ৪:১৫ পিএম

বরিশালের গৌরনদীতে দশম শ্রেনীর এক মাদাসার ছাত্রীকে ফুসলিয়ে অপহরণ ও ধর্ষনের অভিযোগে ২ জনকে গ্রেফতার অপহৃতাকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। অপহৃতার স্বজন ও পুলিশ সূত্রে জানা গেছে, উপজেলার শাওড়া গ্রামের বাসিন্ধা ও গৌরনদী আল হেলাল দাখিল মাদ্রাসার ১০ শ্রেনীর ছাত্রীকে তার সহপাঠী পার্শ্ববর্তি বাড়ির মোঃ জুলহাস সরদারের মেয়ে মুনিয়া আক্তার (১৫) গত ২মে বিকেলে স্কুলের পড়া দেখিয়ে দেয়ার কথা বলে বাড়ি থেকে ডেকে নেয়। এরপর ওই বাড়ির উত্তর পার্শ্বের সড়কের ওপর আগে থেকেই থ্রীÑহুইলার নিয়ে অপেক্ষমান অপহরণকারীদের হাতে জোর পূর্বক ছাত্রীটিকে তুলে দেয়। অপহরনকারী রাসেল হাওলাদার ও সহযোগী জুলহাস ছাত্রীটিকে নিয়ে বরিশাল-ঢাকা মহাসড়ক ধরে দক্ষিন দিকে পালিয়ে যায়। অপহরনকারীরা অপহৃতাকে নিয়ে উপজেলার নাঠৈ গ্রামের জনৈক আমিনুল ইসলাম হাওলাদারের বখাটে ছেলে রাসেল হাওলাদার জোর পূর্বক বিয়ে করে। 

ঘটনার ১০দিনের মাথায় রোববার গভীর রাতে অপহৃতা মাদ্রাসা ছাত্রী একটি সেল ফোন থেকে তাকে জোর পূর্বক অপহরণ করে তুলে এনে এক বখাটের সাথে বিয়ে দেয়া হয়েছে বলে বাবাকে জানানয়। ওই বখাটে তাকে একাধিকবার ধর্ষণ করেছে বলেও জানায় ছাত্রীটি। একই সময় সে তার অবস্থান জানিয়ে সেখান থেকে তাকে উদ্ধার করার জন্য বাবার কাছে আকুতি জানায় ছাত্রীটি। ছাত্রীটির বাবা সোমবার সকালে এ ঘটনা গৌরনদী মডেল থানাকে অবহিত করলে পুলিশ তাৎক্ষনিক অভিযান চালিয়ে উপজেলার নাঠৈ গ্রামের আমিনুল ইসলাম হাওলাদারের বসত ঘর থেকে ভিকটীম ছাত্রীটিকে উদ্ধার ও বখাটে রাসেল হাওলাদার (২০), এবং তার সহযোগী জুলহাস সরদার(৩৫)কে গ্রেফতার করেছে।
ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে গৌরনদী মডেল থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই মোঃ তৌহিদুজ্জামান সাংবাদিকদের জানান, মাদ্রাসার ছাত্রীকে অপহরণ ও ধর্ষনের ঘটনায় অপহৃতার বাবা বাদি হয়ে সহপাঠি মুনিয়া আক্তারসহ ৬জনকে আসামী করে সোমবার দুপুরে থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। পুলিশ গ্রেফতারকৃত বখাটে রাসেল হাওলাদার ও তার সহযোগী জুলহাস সরদারকে সোমবার দুপুরে বরিশাল আদালতে সোপর্দ করার পরে তাদেরকে জেল হাজতে প্রেরণ করা হয়েছে। অপহৃতা মাদ্রাসা ছাত্রীকে বরিশাল ‘ভিকটীম সাপোর্ট সেন্টার’এ রাখা হয়েছে। মঙ্গলবার বরিশাল শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তার মেডিকেল পরীক্ষা সম্পন্ন হবে বলেও জানিয়েছে পুলিশ।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ধর্ষণ

২৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন