Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২২ অক্টোবর ২০১৯, ০৬ কার্তিক ১৪২৬, ২২ সফর ১৪৪১ হিজরী

গোবিন্দগঞ্জে স্কুল ছাত্রী ও শিশু ধর্ষণের পৃথক ঘটনায় থানায় মামলা, আটক-১

গোবিন্দগঞ্জ (গাইবান্ধা)উপজেলা সংবাদদাতা | প্রকাশের সময় : ১৩ মে, ২০১৯, ৪:৩৬ পিএম

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ পৃথক দুইটি অপহরণ ও ধর্ষণের ঘটনায় গোবিন্দগঞ্জ থানায় পৃথক দুটি মামলা দায়ের হয়েছে। স্কুল ছাত্রী অপহরণের সাথে জড়িত এক যুবককে আটক করেছে পুলিশ। গত তিন মাস আগে এক এসএসসি পরীক্ষার্থিনী পরীক্ষাকেন্দ্রে যাওয়ার পথে অপহরণ করে দীর্ঘদিন গাজীপুরে আটকে রেখে ধর্ষণ করার অভিযোগে পুলিশ রোববার অভিযান চালিয়ে গাজীপুর থেকে সিরাজুল ইসলাম (৩০) নামের ঐ যুবককে আটক করে।
জানাগেছে, গত ২০ ফেব্রুয়ারি গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার নাকাইহাট পরীক্ষাকেন্দ্রে যাওয়ার পথে ঐ পরীক্ষার্থিনীকে জোরপূর্বক অপহরণ করে সিরাজুল ও তার সহযোগীরা। এরপর গোপন সংবাদের ভিত্তিতে দীর্ঘ ৩মাস পর পুলিশ গাজীপুর থেকে অপহৃত এসএসসি পরীক্ষার্থিনীকে উদ্ধার সহ অপহরণকারী ও ধর্ষণের ঘটনার মূল আসামী সিরাজুল ইসলামকে আটক করেছে। ধর্ষক সিরাজুল পলাশবাড়ী উপজেলার আমলাগাছি গ্রামের ভোলা মিয়ার পুত্র।
এদিকে ১২মে রোববার সন্ধ্যায় উপজেলার ফাঁসিতলা বাজারে দাদার সাথে চিকিৎসার জন্য গেলে অজ্ঞাতনামা এক যুবক কৌশলে অপহরণ করে ৫ম শ্রেণি পড়ুয়া এক স্কুল ছাত্রীকে। এসময় পার্শ্ববর্তী আখক্ষেতে নিয়ে গিয়ে শিশুটিকে জোরপূর্বক ধর্ষণের চেষ্টা করে সে। এ সময় শিশুটির চিৎকারে পাশ^বর্তী মানুষজন এগিয়ে এসে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে।
অতিরিক্ত পুলিশ সুপার রাহাত গাওহারী সহ পুলিশ কর্মকর্তারা ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছেন। এ ঘটনায় এখনও ঐ লম্পট যুবককে সনাক্ত করতে পারেনি পুলিশ। এসব ঘটনায় গোবিন্দগঞ্জ থানায় পৃথক দুটি মামলা দায়ের করা হয়েছে।
গোবিন্দগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ একেএম মেহেদি হাসান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: ধর্ষণ

২৭ সেপ্টেম্বর, ২০১৯

আরও
আরও পড়ুন