Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৯ আশ্বিন ১৪২৬, ২৪ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

কৃষক মুখ ফিরিয়ে নিলে অবস্থা ভয়ংকর হবে

প্রেসক্লাবের সামনে ধান ছিটিয়ে প্রতিবাদে ডাকসু ভিপি

স্টাফ রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৪ মে, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহবায়ক ও ডাকসুর ভিপি নুরুল হক নুর বলেন, এই দেশের অর্থনীতি যে কৃষির ওপর দাঁড়িয়ে আছে, সেই দেশের কৃষকেরা ধানের ন্যায্যমূল্য পাচ্ছে না। কৃষকরা যদি কৃষি থেকে মুখ ফিরিয়ে নেয় সেটি রাষ্ট্রের জন্য ভয়ংকর হবে। গতকাল জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে এক মানববন্ধন কর্মসূচিতে তিনি একথা বলেন।
সারা দেশে ধানের ন্যায্যমূল্য নিশ্চিত করা ও দ্রব্যমূল্যের ন্যায্য দামের দাবিতে এই মানববন্ধনের আয়োজন করে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ। জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে পরিষদের ব্যানারে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা এতে অংশ নেন। এতে প্রেসক্লাবের সামনের সড়কে ধান ছিটিয়ে এক অভিনব প্রতিবাদী দৃশ্য উপস্থাপন করে ছাত্ররা।
মানববন্ধনে অংশ নিয়ে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদের (ডাকসু) ভিপি ও পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক নুরুল হক নুর বলেন, মানুষের মনে চাপা ক্ষোভ জমা হচ্ছে। উন্নয়নের ফাঁকা বুলি আওড়ানো হচ্ছে। রাস্তা-ঘাট দুই-চারটি ফ্লাইওভার করলেই উন্নয়ন হবে না, দেশের মানুষের ভাগ্য পরিবর্তন করতে হবে। জিডিপি বাড়ছে, মানুষের জীবনমান উন্নত হচ্ছে এই সমস্ত ফাঁকা বুলি দিলে হবে না। বাস্তবতা কিন্তু ভিন্ন। মানুষের চাপা ক্ষোভ বিস্ফোরণ হওয়ার আগেই ব্যবস্থা নিন। কৃষকদের ধানের ন্যায্য দাম দেওয়ার জন্য একটি তদারকি সেল গঠন করার দাবি জানান তিনি।
গত রোববার টাঙ্গাইলের কালিহাতী উপজেলার কৃষক আবদুল মালেক সিকদার ধানের দাম না পেয়ে তাঁর ধানিজমিতে আগুন ধরিয়ে দেন। গণমাধ্যমে এই খবর ও ছবি প্রকাশের পর তা সামাজিক যোগাযোগমাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ে। এই প্রসঙ্গটি তুলে ধরে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদের যুগ্ম আহ্বায়ক রাশেদ খান বলেন, টাঙ্গাইলে কৃষকেরা ধান পুড়িয়ে দিচ্ছে। আজকে এই ক্ষোভ কেন? প্রতি মণ ধান উৎপাদনে কৃষকের খরচ হচ্ছে ৭৫০ টাকা, সেই ধান বিক্রি করতে গেলে তারা পাচ্ছে ৩০০ টাকা। কৃষকেরা প্রতিবছর ক্ষতির শিকার হচ্ছে। কৃষি মন্ত্রণালয় কী করছে?
সিন্ডিকেটের কারণে কৃষকেরা ধানের দাম পাচ্ছে উল্লেখ করে পরিষদের আহ্বায়ক হাসান আল মামুন বলেন, যেখানে এক কেজি চালের দাম ৪০ টাকা সেখানে এক কেজি ধানের দাম ১২ থেকে ১৪ টাকা। কৃষককে গলা টিপে হত্যা করা হচ্ছে।
কৃষকের ধানের ন্যায্য দামের দাবিতে মানববন্ধন থেকে কর্মসূচি ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ। আগামী ১৫ মে বুধবার সারা দেশের জেলাগুলোতে কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয় পর্যায়ে মানববন্ধন করা হবে।



 

Show all comments
  • Chowdhury Arif ১৪ মে, ২০১৯, ১১:১৫ এএম says : 0
    সারা দেশে আন্দোলন, মানববন্ধন করা অতিব জরুরি, তবুও যদি সরকারের বোধহয় ঘটে।
    Total Reply(0) Reply
  • Oli Uddin ১৪ মে, ২০১৯, ১১:১৬ এএম says : 0
    সার ও কিটনাষক ঔষদের উপর ভর্তুকি দিলে কৃষক বাচবে
    Total Reply(0) Reply
  • Zibon ১৪ মে, ২০১৯, ১১:১৬ এএম says : 0
    আসলে সরকারের ধানের দাম বাড়ানো উচিৎ
    Total Reply(0) Reply
  • Al Mahmud ১৪ মে, ২০১৯, ১১:১৯ এএম says : 0
    ৭০ টাকা চালের কেজি অথচ ধানের মন ৫০০ টাকা !!
    Total Reply(0) Reply
  • ash ১৪ মে, ২০১৯, ৯:৫৪ এএম says : 0
    BANGLADESH E ATO RAB, ATO PULISH ATO CID ERA KI KORE?? SINDIKET DER DORTE PARE NA KENO??? NAKI ONARA KHOMOTASHIN DOLER KHUB APON JON ??? POROTI BOSOR ATO PULISHE LOK NEW A R PORE O ROAD E ATO CHADA BAJI HOY KI VABE??? AMADER SHORORASHTRO MONTRI KI KORE ?? SINDIKET BONDO NA HOLE DESHER MANUSH ARO VUGBE, ARO GORIB HOBE ! WNNOON TOKHON ........................
    Total Reply(0) Reply

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

আরও পড়ুন