Inqilab Logo

ঢাকা, মঙ্গলবার, ২৪ সেপ্টেম্বর ২০১৯, ৯ আশ্বিন ১৪২৬, ২৪ মুহাররম ১৪৪১ হিজরী

সালমান এফ রহমানের সাথে যুক্তরাষ্ট্রের প্রতিনিধিদলের সাক্ষাৎ

অর্থনৈতিক রিপোর্টার | প্রকাশের সময় : ১৪ মে, ২০১৯, ১২:০৫ এএম

যুক্তরাষ্ট্রের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সহকারী বাণিজ্যমন্ত্রী (অ্যাসিসট্যান্ট সেক্রেটারি) ইয়ান স্টেফ-এর নেতৃত্বে ও বাংলাদেশে নিযুক্ত যুক্তরাষ্ট্রের রাষ্ট্রদূত আর্ল রবার্ট মিলারের উপস্থিতিতে একটি প্রতিনিধিদল প্রধানমন্ত্রীর বেসরকারী শিল্প ও বিনিয়োগ উপদেষ্টা সালমান ফজলুর রহমান এমপি-এর সঙ্গে সাক্ষাৎ করেছেন। গতকাল গুলশানস্থ কার্যালয়ে বৈঠকে প্রতিনিধিদলের কাছে দারিদ্র্য দূরীকরণ, খাদ্যে স্বয়ংসম্পূর্ণতা, কৃষি, অবকাঠামো ও অর্থনীতিসহ বিভিন্ন আর্থসামাজিক খাতে গত ১০ বছরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশের অসামান্য অর্জনের কথা বিস্তারিত তুলে ধরেন সালমান ফজলুর রহমান। দেশে বিনিয়োগ উৎসাহিত করা ও ব্যবসা সহজীকরণের লক্ষ্যে সরকার যেসব ব্যবস্থা হাতে নিয়েছে, সেগুলোর মধ্যে উন্নততর ব্যবসায়ীক ও বিনিয়োগ পরিবেশ, ডিজিটাইজেশন, অর্থনৈতিক অঞ্চল প্রতিষ্ঠা এবং বিনিয়োগকারীদের জন্য চালু হওয়া ‘ওয়ান স্টপ সার্ভিস’-এর কথা উল্লেখ করেন তিনি। এছাড়া ২০৪১ সালের মধ্যে বাংলাদেশকে একটি উন্নত দেশে পরিণত করার লক্ষ্যে বৈদেশিক বিনিয়োগ আরও বেগমান করতে সরকারের ভবিষ্যৎ পরিকল্পনাসমূহও ব্যাখ্যা করেন প্রধানমন্ত্রীর উপদেষ্টা।
সহকারী বাণিজ্যমন্ত্রী স্টেফ বাংলাদেশের অসাধারণ অগ্রগতির প্রশংসা করেন। তিনি বাংলাদেশের ভবিষ্যৎ নিয়ে আমেরিকান কোম্পানিসমূহের মধ্যে যে ক্রমবর্ধমান আস্থা ও আশাবাদ বিরাজ করছে, তা উপদেষ্টাকে অবহিত করেন। তিনি জানান, মার্কিন বহু কোম্পানি বাংলাদেশে বিনিয়োগ কিংবা বিদ্যমান ব্যবসা সম্প্রসারণে আগ্রহী এক্ষেত্রে তিনি বাংলাদেশের জ্বালানী, অবকাঠামো, তথ্যপ্রযুক্তি, এলএনজি খাত ও বিশেষ করে ড্রেজিং-এ মার্কিন কোম্পানিগুলোর আগ্রহের কথা উল্লেখ করেন।
স্টেফ বাংলাদেশে মার্কিন কোম্পানিসমূহের জন্য ই-কমার্স ও ব্যাংকিং সিস্টেম সংক্রান্ত কিছু চ্যালেঞ্জের কথা উল্লেখ করেন। তিনি মেধাসত্ত¡ লঙ্ঘন ও নকল (কাউন্টারফেইট) পণ্যের প্রসঙ্গও বৈঠকে উত্থাপন করেন। সালমান এফ রহমান জবাবে বলেন, স্বল্পোন্নত (এলডিসি) দেশসমূহের তালিকা থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে বাংলাদেশের উত্তরণ শেষে মেধাস্বত্ত¡ বিষয়ক বিধিবিধান যথাযথ প্রতিপালনসহ পরিবর্তিত পরিস্থিতি মোকাবিলার উদ্দেশ্যে একটি স্থায়ী সেল সৃষ্টি করা হয়েছে। নকল পণ্যের বিষয়ে তিনি বলেন, এ ধরনের কোনো গুরুতর ঘটনা তার নজরে আসেনি। তবে তিনি প্রতিনিধিদলকে আশ্বস্ত করেন যে, পণ্য নকল করার যেকোনো ঘটনার বিরুদ্ধে কর্তৃপক্ষ যথাযথ ব্যবস্থা নেবে।
দুই দেশের মধ্যে বিনিয়োগ ও ব্যবসায়িক সম্পর্ক আরও বৃদ্ধি পাবে বলে বৈঠকের শেষে উভয় পক্ষ আশাবাদ ব্যক্ত করেন।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

ঘটনাপ্রবাহ: সালমান এফ রহমান


আরও
আরও পড়ুন