Inqilab Logo

ঢাকা, শুক্রবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ৬ আশ্বিন ১৪২৫, ১০ মুহাররাম ১৪৪০ হিজরী‌

ফেভারিটদের জয়-জয়কার

প্রকাশের সময় : ২৮ মে, ২০১৬, ১২:০০ এএম | আপডেট : ১২:১১ এএম, ২৮ মে, ২০১৬

এবারের ইউরোপিয়ান শীর্ষ ঘরোয়া কাপ ফুটবলে ছিল ফেভারিটদের জয়-জয়কার। মৌসুম জুড়ে ফ্রান্সে প্রতাপ দেখানো রাজধানীর দল প্যারিস সেইন্ট জার্মেই (পিএসজি) ছাড়া ফাইনালের বাকি চার ম্যাচে ছিল অদ্ভুদ একটা মিল। ইউরোপিয়ান শীর্ষ পাঁচ কাপের চারটিই গড়াই অতিরিক্ত সময়ে। ইংল্যান্ড, স্পেন, ইতালি ও জার্মানির কাপগুলোতে খেলা গড়ায় বাড়তি সময়ে। তবে ম্যাচ শেষে ট্রফি জয়ের উল্লাস করে ফেভারিটরাই। ইংল্যান্ডে রেকর্ড ১২তম এফএ কাপ জিতে আর্সেনালের পাশে বসে মানচেস্টার ইউনাইটেড। ইতালিতে টানা দ্বিতীয় ডাবল জয়ের রেকর্ড গড়ে জুভেন্টাস। 

পেপ গার্দিওলার বিদায়ী ম্যাচে পেনাল্টি ভাগ্যে জিতে নেয় আরেক ফেভারিট দল বায়ার্ন মিউনিখ। আর স্পেনে হ্যাটট্রিক ইউরোপা জয়ী সেভিয়াকে হারিয়ে রেকর্ড ২৮ বারের মত
শিরোপা ঘরে তোলে বার্সেলোনা। শিরোপা হাতে উল্লাসিত সেই সব চ্যাম্পিয়নদের নিয়েই আজকের আয়োজন... ইমামুল হাবীব বাপ্পি
জুভেন্টাস

কোপার লড়াইয়ে সবচেয়ে আকর্ষনীয় ম্যাচ ছিল এটিই। রোমের অলিম্পিক স্টেডিয়ামে অতিরিক্ত সময়ে গড়ানো এই ম্যাচে মাঠে নেমেছিল ইতালির দুই ঐতিহ্যবাহী ক্লাব এসি মিলান ও জুভেন্টাস।
মিলানের সেই ঐতিয্যে অবশ্য এখন ভাটা পড়েছে বেশ। তবে লড়াই করেই একমাত্র গোলে হারে তারা।
জুভেন্টাসের এটি ছিল টানা দুই মৌসুম ডাবল জয়ের ইতালিয়ান রেকর্ড। ১১টি শিরোপা জিতে আসরের সফলতম দলও তারা। শিরোপা সংখ্যায় তাদের নিকটতম প্রতিদ্ব›িদ্ব রোমা (৯টি)।

ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড

ব্যার্থ এক মৌসুমে এটিই হলো ইংল্যান্ডের ঐতিহ্যবাহী দলটির একমাত্র সান্ত¦না। ২০১৩ সালে রেড কিংবদন্তি কোচ অ্যালেক্স ফার্গুসন যুগের পর এই প্রথম শিরোপা উল্লাস করে দলটি। লন্ডনের ওয়েম্বলি স্টেডিয়ামে এর মাধ্যমে শেষ হয় আরো একটি অধ্যায়ের। শেষ বারের মত এদিন রেড ডেভিলস দলের ডাগ আউটে ছিলেন লুইস ফন গাল। নিজের বহিষ্কারের দুঃসংবাদটা অবশ্য ফন গাল জানতে পারেন পরে। যাই হোক না কেন বিদায়টা তো হল শিরোপা দিয়ে! এটিই হয়তো তার এখন একমাত্র সাত্বনা। অতিরিক্ত সময়ে গড়ানো এদিনের ম্যাচে ক্রিস্টাল প্যালেসের বিপক্ষে তার দলের জয়টা ছিল ২-১ গোলের। এফএ কাপে এটি ম্যানইউ’র ১২তম শিরোপা। ১২টি শিরোপা জিতে এতদিন রেকর্ড ধরে রেখেছিল লিভারপুল। রেকর্ডটা এবার ভাগাভাগি হল দুই ‘রেড ’ দলের মধ্যে।

বার্সেলোনা

বার্সেলোনার চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকে ছিটকে পড়াটা হয়তো ভক্তরা এখনো ভুলতে পারেননি। এই ব্যর্থতাটা বাদ দিলে মৌসুমটা কিন্তু মন্দ কাটেনি স্প্যানিশ চ্যাম্পিয়নদের।
যে মাঠ থেকে হেরে চ্যাম্পিয়ন্স লিগ থেকে বিদায় নিয়েছিল তারা অ্যাটলেটিকো মাদ্রিদের সেই মাঠ ভিসেন্তে ক্যালডেরনে সেভিয়াকে ২-০ গোলে হারিয়ে স্প্যানিশ ‘ডাবল’ জয়ের উল্লাস করে মেসি-নেইমার-সুয়ারেজরা।
এটি ছিল কাতালানদের টানা দ্বিতীয় ও রেকর্ড ২৮তম কোপা দেল রে শিরোপা। ২৩ বার আসরের শিরোপা দখলে নিয়ে দ্বিতীয় স্থানে অ্যাটলেটিক বিলবাও, ১৯ বারের চ্যাম্পিয়ন রিয়াল মাদ্রিদ তৃতীয় অবস্থানে।


বায়ার্ন মিউনিখ

ফ্রান্সের মত জার্মানির ফুটবলেও এখন এক ঘোড়ার দৌড়! যদিও এবারের কাপ ফাইনালে সবচেয়ে আকর্ষনীয় ম্যাচ উপহার দিয়েছে তারাই।
বার্লিনের অলিম্পিক স্টেডিয়ামে বরুশিয়া ডর্টমুন্ডের বিপক্ষে বায়ার্নের ভাগ্য নির্ধারণ হয় পেনাল্টি শুট-আউটে।
১২০ মিনিটেও গোল শূণ্য ড্র হওয়ায় পেনাল্টি ভাগ্যে ৪-৩ গোলে জিতে ডাবল নিশ্চিত করে বায়ার্ন। এই ম্যাচের মাধ্যমে শেষ হয় বায়ার্নে গার্দিওলা অধ্যায়।
পোকাল কাপ খ্যাত জার্মানির ঘোরোয়া এই কাপ জয়ে বায়ার্নের ধারেকাছেও নেই কোন দল। রেকর্ড ১৮ বার শিরোপা জিতেছে তারা। ৬ বার শিরোপা জিতে তাদের প্রতিদ্ব›িদ্ব ওয়ের্ডার ব্রিমেন।


প্যারিস সেইন্ট জার্মেই (পিএসজি)

পিএসজি মানেই এক তারকার গল্প। মাত্র চার মৌসুমেই দলের সমর্থক শব্দে পরিণত হওয়া নামটি জøাতান ইব্রাহিমোভিচ। প্যারিসের হয়ে এটি ছিল তার শেষ ম্যাচ। শেষটাও সুইডিশ স্ট্রাকিার রাঙিয়ে রাখেন তার নিজস্ব স্টাইলে। প্যারিসের জাতীয় স্টেডিয়ামে অলিম্পিক মার্শেইয়ের বিপক্ষে ৪-২ গোলের জয়ে জোড়া গোল করেন, দলও জেতে ঘরোয়া ডাবল শিরোপা। একই সাথে মৌসুমে গোলের অর্ধশতকও পূর্ণ করেন ইব্রা। চার বছরে পিএসজির হয়ে মোট ১২টি শিরোপা জেতেন সাবেক বার্সেলোনা ফরোয়ার্ড। আর ফরাসি চ্যাম্পিয়নদের এটি ছিল দশম কাপ শিরোপা। অলিম্পিড ডি মার্শেই-এর সাথে আসরের যৌথ সর্বোচ্চ শিরোপাও এখন পিএসজি’র।



 

দৈনিক ইনকিলাব সংবিধান ও জনমতের প্রতি শ্রদ্ধাশীল। তাই ধর্ম ও রাষ্ট্রবিরোধী এবং উষ্কানীমূলক কোনো বক্তব্য না করার জন্য পাঠকদের অনুরোধ করা হলো। কর্তৃপক্ষ যেকোনো ধরণের আপত্তিকর মন্তব্য মডারেশনের ক্ষমতা রাখেন।

গত​ ৭ দিনের সর্বাধিক পঠিত সংবাদ